1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

‘লজ্জা ঢাকার মতো এখন আর কিছুই নেই'

বসবাসের জন্য সবচেয়ে নিকৃষ্ট শহরগুলোর মধ্যে দ্বিতীয় ‘ঢাকা' – এই বিষয়ে লেখাটি সর্বাধিক পঠিত হয়েছে গত বছর৷ পুরনো প্রতিবেদনটি পড়ে এবারও ‘লজ্জা ঢাকার আর কিছুই নেই' – আমাদের ফেসবুক পাতায় এ রকম নানা মন্তব্য করেছেন পাঠকরা৷

গত কয়েক বছরের বসবাসের জন্য সবচেয়ে অনুপযোগী শহরের তালিকায় স্থান পেয়েছে ঢাকা৷ গতবছর সবচেয়ে খারাপ শহর হয়েছে সিরিয়ার রাজধানী দামেস্ক৷ ঢাকা ব়্যাংকিংয়ে ১৩৯তম হয়ে খারাপদের মধ্যে দ্বিতীয় সেরা৷ প্রতিবছর ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট-এর (ইআইইউ) এই ব়্যাংকিং নির্ধারণ করে বসবাসের জন্য বিশ্বের সেরা এবং সবচেয়ে খারাপ শহরগুলোকে৷ তবে শুধু পরিচ্ছন্নতা নয়, সেরা এবং সবচেয়ে খারাপ শহর বেছে নেয়া হয় স্বাস্থ্য সেবা, শিক্ষা, সংস্কৃতি পরিবেশ এবং অবকাঠামোগত সুযোগ-সুবিধার ভিত্তিতে৷

গত বছর ‘কী দিয়ে এ ‘লজ্জা' ঢাকবে ঢাকা?' – এই শিরোনামের যে প্রতিবেদনটি লেখা হয়েছিল, সেটা ছিল আমাদের সর্বাধিক পঠিত প্রতিবেদন৷

বসবাসের জন্য সবচেয়ে নিকৃষ্ট পাঁচ শহরের মধ্যে ঢাকা দ্বিতীয় জেনে ফেসবুক পাতায় দীপঙ্কর দাসের মন্তব্য ‘বলার মতো ভাষা আমার নেই৷ তবে মনটা ভীষণ খারাপ হয়ে গেল৷'

রাজশাহী ঢাকার চেয়ে পরিষ্কার শহর৷ সেজন্যই হয়ত মাসুম আহমেদ জানিয়েছেন যে, রাজশাহী অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন শহরের থেকে পরিষ্কার৷ কিন্তু সত্যিই কি তাই?

কী দিয়ে এ ‘লজ্জা' ঢাকবে ঢাকা?' – লেখাটা পড়ে ডয়চে ভেলের ফেসবুক বন্ধু ঝন্টু দেবনাথের সোজা মন্তব্য:‘‘লজ্জা ঢাকার মতো এখন আর কিছুই নেই৷''

ওদিকে সাব্বির মজা করে লিখেছেন, ‘‘লজ্জা নাই, থাকলে তো মনে হয় ‘ঢাকা' দিত৷''

ঢাকা শহরে ঢোকার জন্য ‘ট্যাক্স' বসালেই নাকি সমস্যা কমবে৷ মনে করেন পাঠক রকি সরকার৷

বসবাসের জন্য সবচেয়ে নিকৃষ্ট পাঁচ শহরের মধ্যে ঢাকা দ্বিতীয় স্থানে – এই খবরটি জানার পর হাবীব রহমান, শহীদ চৌধুরীর খুবই খারাপ লাগছে৷

তবে কী করলে নিজেরা ঢাকাকে কিছুটা পরিষ্কার রাখতে পারবেন – এ প্রশ্নে সেরকম কোনো পরামর্শ বা প্রস্তাব কিন্তু কেউ করেননি৷

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন