1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বাংলাদেশ

লংগদুর সংবাদ ব্লক করার অভিযোগ

লংগদুতে এক যুবলীগ নেতার মৃত্যুকে কেন্দ্র করে আদিবাসীদের ঘরবাড়িতে অগ্নিসংযোগ এবং ভাঙচুরের ঘটনার একাধিক সংবাদ বাংলাদেশে ব্লক করার অভিযোগ উঠেছে৷ তবে নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিশ্চিত বা অস্বীকার করেনি৷

গত বৃহস্পতিবার দুপুরে রাঙামাটির লংগদু উপজেলার ৭নং ইউনিয়ন শাখার যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. নুরুল ইসলাম নয়নের লাশ উদ্ধার করা হয়৷ স্থানীয় পুলিশ জানায়, দুর্বৃত্তরা তাঁকে হত্যার পর লাশ ফেলে রেখে যায়৷ এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে লংগদুতে আদিবাসীদের ঘরবাড়িতে অগ্নিসংযোগ এবং ভাঙচুর করা হয়, যার খবর প্রকাশ করেছে বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যম৷

তবে কিছু সংবাদ বাংলাদেশে ব্লক করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে৷ এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দিয়ে ইন্টারনেট গেটওয়েকে পাঠানো বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি'র এক কর্মকর্তার একটি ইমেলের কপি ডয়চে ভেলের হস্তগত হয়েছে৷ এতে দেখা যাচ্ছে, সিএইচটি নিউজ, পার্বত্য নিউজ এবং ঢাকা টাইমস নামক তিনটি অনলাইন পত্রিকার ছয়টি নিউজ লিংক ব্লক করতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে৷ বাংলাদেশে নিষিদ্ধ করতে বলা সবগুলো সংবাদই লংগদুর অস্থিরতা সংক্রান্ত৷

এই প্রসঙ্গে বিটিআরসি'র সেই কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি নিউজ ব্লক করা সংক্রান্ত ইমেলটি পাঠানোর বিষয়টি স্বীকার বা অস্বীকার কোনোটাই করেননি৷ আর তাঁর অনুরোধে বিটিআরসি'র একাধিক মুখপাত্রের সঙ্গে যোগাযোগ করেও এই বিষয়ে কোনো আনুষ্ঠানিক মন্তব্য পাওয়া যায়নি৷ বিটিআরসি'র চেয়ারম্যান বর্তমানে বিদেশে রয়েছেন৷ 

উল্লেখিত নিউজ লিংকগুলো আসলেই বাংলাদেশে ব্লক করা হয়েছে কিনা তা জানতে ফেসবুকের মাধ্যমে বাংলাদেশে ডয়চে ভেলের পাঠকদের কাছে প্রশ্ন করা হয়৷ ফেসবুকে এই বিষয়ে মিশ্র উত্তর পাওয়া গেছে৷ তবে ডয়চে ভেলের ঢাকা প্রতিনিধি হারুন উর রশীদ স্বপন নিশ্চিত করেছেন যে ঢাকা থেকে লিংকগুলোতে প্রবেশ করা যাচ্ছে না৷

এই বিষয়ে জানতে চাইলে অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসরত পাইচিংমং মারমা বলেন, ‘‘আওয়ামী সরকার হোক আর সামরিক সরকার - সব সরকারই রাষ্ট্রের আদিবাসী দমন-পীড়ন এবং সেটলারদের নিরংকুশ দখলবাজির রাষ্ট্রীয় পলিসি বাস্তবায়ন করে আসছে৷ পাহাড়ে যখনই কোন গ্রস হিউম্যান রাইটস ভায়োলেশন ঘটে তখনই মিলিটারি এজেন্সি এবং সরকারী এজেন্সিগুলো সেইসব ঘটনা ধামাচাপা দিতে তৎপর হয়৷''

আদিবাসীদের অধিকারের বিষয়ে প্রচারণা চালানো এই ব্লগার জানান যে, এর আগেও পাবর্ত্য চট্টগ্রাম সংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশের ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে৷ তিনি বলেন, ‘‘লোকচক্ষুর আড়ালে কত আদিবাসী জনপদ বিরান হয়ে যাচ্ছে সেটলারদের নিপীড়নে, সেটা কেউই জানে না৷''

এদিকে, লংগদুতে আদিবাসীদের উপর হামলার ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় আনতে বাংলাদেশি কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল৷ হামলার সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত পুলিশ এবং সেনা সদস্যদের ভূমিকা কী ছিল তার সুষ্ঠু তদন্তেরও দাবি জানিয়েছে লন্ডনভিত্তিক সংগঠনটি৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

সংশ্লিষ্ট বিষয়