1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

রয়েল বেবি: এই যুগেও কড়া গোপনীয়তা সম্ভব!

সোমবার শ্যাম্পেইনের বোতাম খুলে হিপ! হিপ! হুররে! চিৎকারে মেতে ওঠেন অনেক ব্রিটিশ৷ তাদের জন্য আরো একবার আনন্দের উপলক্ষ্য এনে দিয়েছে রয়েল পরিবার৷ একটি পুত্রসন্তানের জন্ম দিয়েছেন কেট, প্রিন্স উইলিয়ামের স্ত্রী৷

২২ জুলাই স্থানীয় সময় বিকেল সাড়ে চারটার দিকে জন্ম নেন ব্রিটেনের ভবিষ্যত রাজা৷ জন্মের সময় তার ওজন ছিল ৩.৭৫ কেজি৷ লন্ডনের কেন্দ্রের সেন্ট মেরি'স হাসপাতালে জন্ম এই ছেলেসন্তানের৷ তিন দশক আগে তার বাবা উইলিয়াম আর চাচা হ্যারির জন্মও সেখানেই হয়েছিল৷

ব্রিটেনের ভবিষ্যত রাজার এই জন্মকে অভিনন্দনের বন্যায় ভাসিয়েছে গোটা বিশ্ব৷ মার্কিন প্রেসিডেন্ট থেকে শুরু করে সলোমন দ্বীপপুঞ্জের প্রধানমন্ত্রী – সবাই অভিনন্দন বার্তা পাঠিয়েছেন উইলিয়াম এবং কেটকে৷

Kate bringt einen Jungen zur Welt

এই নোটিশের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে রয়েল বেবির জন্মের খবর দেয়া হয়

ব্রিটেনের নতুন রাজার জন্মের সঙ্গে আরেকটি বিষয় নিয়ে বেশ আলোচনা হচ্ছে৷ এর আগে কেটের নগ্ন ছবি প্রকাশ নিয়ে বিব্রত অবস্থায় পড়েছিল ব্রিটিশ রাজ পরিবার৷ এবার কেটের গর্ভধারণ থেকে সন্তান জন্ম পর্যন্ত পুরো সময়টা কড়া গোপনীয়তা বজায় রেখেছেন তাঁরা৷ রাজ পরিবার এই বিষয়ে যতটুকু তথ্য দিয়েছে তার বেশি জানা সম্ভব হয়নি কারো৷ এই যুগেও যে সবকিছু গোপন রাখা সম্ভব সেটাই যেন প্রমাণ হলো এবার৷

অথচ গোটা বিশ্ব মিডিয়ার নজর ছিল এই দম্পতির দিকে৷ তাঁদের কি ছেলে হবে নাকি মেয়ে? সন্তানের নাম কি হবে? চুলের রং কেমন হবে? সব নিয়ে জল্পনাকল্পনা চলেছে দীর্ঘ সময় ধরে৷ সামাজিক যোগাযোগ সাইট ফেসবুক বলুন আর চব্বিশ ঘণ্টা লাইভ সংবাদ প্রচার করা টেলিভিশন চ্যানেল – এসব জল্পনাকল্পনায় রসদ জুগিয়েছেন অনেকে৷ জুয়ারিরাও সন্তানের লিঙ্গ, নাম নিয়ে অনেক রকমের বাজি ধরেছে৷

London / Kate / Geburt Baby / Buckingham Palace / Volk

বাকিংহাম প্যালেসের সামনে উৎসাহী জনতার ভিড়

গত কয়েকদিন ধরেই সেন্ট মেরি'স হাসপাতালের সামনে অবস্থান নেওয়া সাংবাদিকদের চোখ এড়িয়ে কেট, যিনি এখন ডাচেস অফ কেমব্রিজ নামেও পরিচিত, সোমবার খুব সকালে পৌঁছে যান হাসপাতালে৷ তিনি হাসপাতালে পৌঁছানোর এক ঘণ্টার বেশি সময় পর তা জানতে পারে গণমাধ্যম৷ আর সন্তান জন্ম দেওয়ার পর চার ঘণ্টা একান্ত সময় কাটিয়েছেন উইলিয়াম, কেট এবং তাঁদের নবাগত সন্তান৷ গণমাধ্যম এই বিষয়টিও টের পায়নি৷

রাজ পরিবার তাঁদের প্রথামতো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেওয়ার পর, গোটা বিশ্বে চাউর হয়েছে সে খবর৷ এই ঘোষণাও অত্যন্ত সীমিত৷ শুধু জানানো হয়েছে জন্মের সময়, সন্তানের লিঙ্গ আর সন্তান এবং মায়ের সুস্থ থাকার খবর৷ ব্রিটেনের ভবিষ্যত রাজার নাম কি রাখা হবে সেটা ঘোষণায় উল্লেখ করা হয়নি৷ মিডিয়াও তা এখনো ফাঁস করতে পারেনি৷

এআই/ডিজি (এপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন