রোগা, না মোটা? কে বলবে! | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 21.02.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

রোগা, না মোটা? কে বলবে!

ফ্যাশনিস্টারা সবে নিউ ইয়র্ক ছেড়ে অতলান্তিক পার হয়ে লন্ডন ফ্যাশন উইকের দিকে ধেয়েছেন৷ স্টাইলিস্টাদের এর পর লন্ডন থেকে মিলান হয়ে প্যারিসে যেতে হবে৷ এরই মধ্যে একটি পুরাতন বিতর্কের আবর্তে পড়েছে ফ্যাশন দুনিয়া৷

default

এর নাম ফ্যাশন

রোগা, না মোটা? কে বলবে৷ ধরা যাক নিউ ইয়র্ক৷ ব্রায়ান্ট পার্কে ক্যালভিন ক্লাইনের শো'তে আগামী হেমন্ত এবং শীতের কলেকশন৷ সেখানে রানওয়েতে ক্লাইনের হয়ে যে সব মডেলরা হেঁটে যায়, তাদের মধ্যে ছিল ১৬ বছর বয়সের মোনিকা জাগাচিয়াক,

New York Fashion Week

এরও নাম ফ্যাশন

যে কিনা গত তিন বছর ধরে ফ্যাশন শিল্পের একজন টপ মডেল৷ অন্যান্য আরো অনেক টপ মডেলের মতো সে'ও পরে মার্কিন সাইজ শূন্য, যা কিনা ইউরোপে সাইজ ৩২, অর্থাৎ বাচ্চাদের সাইজ৷ মনে রাখা দরকার, ফ্যাশন ডিজাইনাররা কিন্তু এই সাইজ শূন্যকেই স্ট্যান্ডার্ড সাইজ হিসেবে ব্যবহার করে থাকেন৷ কাজেই মোনিকাও লম্বা এবং বাঁশের বাঁশির মতো সরু৷ হয়তো একটু বেশী সরু৷ কাজেই তাকে নিয়েই আবার সেই পুরনো বিতর্ক শুরু হয়েছে: এই থেকেই ছোট মেয়েদের এ্যানোরেক্সিয়া কি বুলিমিয়ার মতো রোগ হয়; আরেকটু বড়রা দৌড়য় ডায়েটের পেছনে; মহিলারা এক কাল্পনিক ফিগার নেই বলে মানসিক বিষাদে ভোগেন; জামাকাপড় গ্রাহক অনুযায়ী তৈরী না হয়ে, গ্রাহকরা জিমে গিয়ে জামাকাপড়ের সাইজমাফিক হবার চেষ্টা করেন, ইত্যাদি৷

৫০ কিলোতেই খারিজ

খুব ভালো কথা৷ এমনকি আমেরিকার কাউন্সিল অফ ফ্যাশন ডিজাইনার্স রীতিমতো মিটিং করে আলোচনা করেছে স্যাম্পল সাইজ বদলে আরো বড় করা উচিৎ কিনা৷ হাজার হোক, যুক্তরাষ্ট্রের, কিংবা বিশ্বের অধিকাংশ মহিলার তো আর বাঁশের বাঁশরীর মতো ফিগার নয়৷ শেষ অবধি আলোচনা আলোচনাই থেকে গেছে৷ উল্টে ক্যানাডার সুপারস্টার মডেল কোকো রচা'কে বলতে শোনা গেছে যে, ডিজাইনাররা নাকি ফ্যাশন শো'র কাস্টিং, অর্থাৎ মডেল বাছাই-এর সময় তাকে দেখেও দেখেন না৷ কেন? না ২১ বছর বয়সী রচা পরে মার্কিন সাইজ চার, তার উচ্চতা পাঁচ ফুট আট ইঞ্চি বা এক মিটার ৭৮ সেন্টিমিটার এবং ওজন সে তুলনায় নাকি বড়ই বেশী৷ কতো জানেন? পাক্কা ৫০ কিলো৷ এ'তেই সে ‘মোটা'!

London Fashion Week Flash-Galerie

বেশী, কম, সকলেরই ঐ সমস্যা

‘স্বল্পসময়ের জন্য'

কাজেই শনিবার লন্ডনের ক্যাটওয়াকে ব্রিটিশ নিটওয়্যার ডিজাইনার মার্ক ফাস্ট'কে আবার দেখা গেল বিদ্রোহীর ভূমিকায়৷ গত সেপ্টেম্বরে ঐ লন্ডন ফ্যাশন উইকেই নাকি এক স্টাইলিস্ট মার্ক ফাস্টের শো থেকে রেগেমেগে বেরিয়ে গিয়েছিলেন কেননা মার্কের মডেলরা বড়ই মোটা! এবারেও মার্ক যে সব মডেলদের নিয়োগ করেছেন, তাদের কেউই বাঁশের বাঁশুরীর পর্যায়ে পড়েন না৷ যেমন হেইলে মর্লে পরেন ব্রিটিশ সাইজ ৪০, যা কিনা ইউরোপে সাইজ ৪০ এবং যুক্তরাষ্ট্রে সাইজ দশ! মোনিকা জাগাচিয়াকের সাইজ মনে আছে তো? সাইজ শূন্য৷ - এই ভাবেই ব্রিটেনের ডেবেনহ্যামস বিভাগীয় বিপণী বৃহস্পতিবার তাদের উইন্ডো ডিসপ্লে'তে ব্রিটিশ সাইজ ষোলো মাপের কিছু ম্যানেকাঁ বা পুতুল রাখে, কেননা ব্রিটেনের অধিকাংশ মহিলার সাইজ নাকি ১৪ কিংবা ১৬৷ তবে ডেবেনহ্যামসের এই কর্মসূচিটাও ‘স্বল্পসময়ের জন্য'৷

প্রতিবেদক: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

সংশ্লিষ্ট বিষয়