1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

রিয়েলিটি শো দিয়ে এবার ‘প্রেসিডেন্ট’ নির্বাচন

বক্তব্য দিতে প্রেসিডেন্ট উঠেছেন মঞ্চে৷ সঙ্গে সঙ্গে চারদিকে গুলি আর বিস্ফোরণের শব্দ৷ নিরাপত্তা কর্মীরা ব্যস্ত প্রেসিডেন্টকে বুলেট প্রুফ গাড়িতে তুলে দিতে৷ বাস্তবে হয়ত এভাবেই একজন প্রেসিডেন্টের প্রাণ রক্ষার চেষ্টা করা হয়৷

ঠিক একই দৃশ্যের চিত্রায়ন এবার দেখা গেছে একটি টিভি রিয়েলিটি শো-তে৷ কারণ এর মাধ্যমে একজন ‘প্রেসিডেন্ট'-কেই খোঁজার চেষ্টা চলছে!

বেথলেহেম ভিত্তিক মা'ন টিভি চ্যানেলের এই রিয়েলিটি শো-র নাম ‘দি প্রেসিডেন্ট'৷ ইতিমধ্যে শো-র কয়েকটি পর্ব প্রচারিত হয়ে গেছে৷ এ মাসের ২৫ তারিখে অনুষ্ঠিত হবে চূড়ান্ত পর্ব৷ আর তার মাধ্যমে ফিলিস্তিনিরা পেয়ে যাবেন একজন নতুন প্রেসিডেন্ট৷ যদিও বাস্তব জীবনের সবশেষ প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হয়ে গেছে আট বছর আগে৷ এরপর আর নির্বাচন দেয়া সম্ভব হয়নি৷ কবে হবে সেটাও কেউ বলতে পারছে না৷ ফলে আপাতত ভার্চুয়াল প্রেসিডেন্ট নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হবে ফিলিস্তিনিদের৷

A general view of Manger Square, outside the Church of the Nativity, the site revered as the birthplace of Jesus, is seen on Christmas eve in the West Bank town of Bethlehem December 24, 2012. REUTERS/Ammar Awad (WEST BANK - Tags: SOCIETY RELIGION)

বেথলেহেম ভিত্তিক মা'ন টিভি চ্যানেলের এই রিয়েলিটি শো-র নাম ‘দি প্রেসিডেন্ট'

শুরুর কথা

মা'ন টেলিভিশন নেটওয়ার্কের পরিচালক রায়েদ ওথম্যানের পরিকল্পনায় এই রিয়েলিটি শো চালু হয়েছে৷ এতে অংশ নিতে প্রায় এক হাজার ফিলিস্তিনি আবেদন করেছিল৷ তাদের মধ্য থেকে ১৫ জনকে বাছাই করে শো-র প্রচার শুরু হয়৷ প্রতিদ্বন্দ্বীদের বয়স ২০ থেকে ৩৫ এর মধ্যে৷ কয়েকটি পর্ব শেষে এখন অর্ধেকেরও কম সংখ্যক প্রতিদ্বন্দ্বী টিকে আছে৷ এর মধ্যে একজন নারীও রয়েছেন৷

নির্বাচন প্রক্রিয়া

পাঁচ সদস্যের একটি বিচারক প্যানেল ও দর্শকদের দেয়া ভোটের ভিত্তিতে বিজয়ী নির্বাচন করা হচ্ছে৷ বিচারক প্যানেলের সদস্যদের মধ্যে রয়েছেন পিএলও-র প্রখ্যাত নেতা হানান আশরাভি, আরব ইসরায়েলি সাংসদ আহমেদ টিবি ও একজন সাবেক পর্যটনমন্ত্রী৷ প্রতিদ্বন্দ্বীদের প্রত্যেক পর্বে বিভিন্ন বিষয়ে প্রশ্নের উত্তর দিতে হয়৷ এর মধ্যে রয়েছে পররাষ্ট্রনীতি, মধ্যপ্রাচ্য সংকট, অর্থনীতি ইত্যাদি৷ এছাড়া প্রেসিডেন্টদের কীভাবে টেবিলে বসতে হয় বা বিদেশি রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গে কীভাবে কথা বলতে হবে এমন নানা বিষয়ের উপর প্রতিদ্বন্দ্বীদের প্রশিক্ষণও দেয়া হয়৷

বাস্তব অভিজ্ঞতা

এই রিয়েলিটি শো-টি ব্যাপক জনপ্রিয়তা পাওয়ায় ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ অনুষ্ঠান কর্তৃপক্ষকে সহায়তার প্রস্তাব দিয়েছে৷ এতে অনুপ্রাণিত হয়ে কর্তৃপক্ষ নতুন নতুন পরিকল্পনা করছে৷ ফলে সামনের পর্বগুলোতে হয়তো প্রতিদ্বন্দ্বীদের বাস্তবের কোনো মন্ত্রীর কার্যালয়ে একদিনের জন্য কাজ করতে দেখা যেতে পারে৷

শেষ কথা...

পাঠক, বাংলাদেশেও এখন নানা বিষয়ে রিয়েলিটি শো হচ্ছে৷ ফিলিস্তিনের মতো এই বিষয়ের উপর কোনো শো হলে কী আপনি দেখতে চাইবেন?

জেডএইচ/ডিজি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন