1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

রাসায়নিক অস্ত্র নিরোধ চুক্তি বাস্তবায়ন শুরু করল সিরিয়া

রাসায়নিক অস্ত্র নিরোধ চুক্তি অনুযায়ী অস্ত্র তৈরিতে ব্যবহার করা যায় এমন রাসায়নিকের প্রথম কিস্তিটি সিরিয়া ছেড়েছে৷ রাসায়নিক দ্রব্যগুলো ডেনমার্কের একটি জাহাজে তুলে দিয়েছে সিরিয়া৷

গত সেপ্টেম্বরে দামেস্কে রাসায়নিক অস্ত্র হামলায় কয়েক'শ সিরীয় নিহত হওয়ার পর সিরিয়ায় হামলা চালানোর হুমকি দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র৷ তখন রাশিয়া আর চীন সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের সমর্থনে এগিয়ে আসে৷ এক পর্যায়ে অনেক রাজনৈতিক বিশ্লেষকের মনে বিশ্ব যুদ্ধ শুরুর আশঙ্কাও উঁকি দিয়েছিল৷ সিরিয়ার অস্ত্র নিরোধ চুক্তিতে স্বাক্ষর সেই আশঙ্কা দূরে ঠেলে৷

চুক্তি অনুযায়ী, ২০১২ সালের ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রথম কিস্তির রাসায়নিক অস্ত্র বা রসদ জাতিসংঘ এবং রাসায়নিক অস্ত্র নিরোধ সংস্থা (ওপিসিডাব্লিউ)-এর পর্যবেক্ষকদের হাতে তুলে দেয়ার কথা৷ খারাপ আবহাওয়া এবং আরো কিছু কারণে প্রথম কিস্তি ছাড়তে এক সপ্তাহেরও বেশি দেরি হয়েছে৷ সিরিয়া প্রথম কিস্তি ছাড়ায় ওপিসিডাব্লিউ তারপরও খুশি৷ এ অগ্রগতিকে ‘গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ' হিসেবে বর্ণনা করে ওপিসিডাব্লিউ-র মহাপরিচালক মেহমেত উজুমকু বলেন, আশা করি বাকি রাসায়নিক সময় মতো, নিরাপদে বের করে দেয়ার ব্যাপারেও সিরিয়া ঠিকভাবে কাজ করবে৷

মঙ্গলবার সিরিয়ার দুটি স্থান থেকে কিছু রাসায়নিক লাতাকিয়া বন্দরে নিয়ে যাওয়া হয়৷ জাতিসংঘ এবং ওপিসিডাব্লিউ-এর পর্যবেক্ষকরা যাচাই করে অনুমোদন দেয়ার পর রাসায়নিকগুলো ডেনমার্কের একটি জাহাজে তোলা হয়৷ আরো রাসায়নিক না আসা পর্যন্ত জাহাজটি সাগরেই থাকবে৷ রাসায়নিক অস্ত্র নিরোধ চুক্তির শর্ত অনুযায়ী আগামী জুনের মধ্যে শেষ কিস্তি সিরিয়া ছাড়ার কথা৷

এসিবি/ডিজি (এপি, এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়