1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

রাশিয়া, যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে জিহাদে নামার আহ্বান

সিরিয়ায় হামলা চালাচ্ছে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র৷ দুই পক্ষই বলছে তাদের লক্ষ্য জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট বা আইএস৷ যদিও রাশিয়া আসলেই আইএস-এর বিরুদ্ধে নেমেছে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করছেন অনেকে৷

রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ওদিকে জিহাদে নামতে মুসলমানদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে আইএস৷ এই জঙ্গি গোষ্ঠীর এক মুখপাত্র অনলাইনে প্রকাশ করা এক ভিডিওতে বলেন, দেশ দুটি মুসলমানদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নেমেছে৷

এদিকে, সিরিয়ায় সক্রিয় আল-কায়েদা সমর্থিত গোষ্ঠী আল-নুসরা ফ্রন্ট-এর প্রধান আবু মোহামেদ আল-জোলানি রাশিয়াকে হুমকি দিয়েছেন৷ তিনি বলেন, রাশিয়া যে সিরিয়ায় হামলা করছে সেজন্য তাকে চরম পরিণতি ভোগ করতে হবে৷ ককেশাস অঞ্চলে থাকা জিহাদিদের উদ্দেশ্যে জোলানি বলেন, ‘‘রাশিয়ার সৈন্যরা যদি সিরিয়ার মানুষকে হত্যা করে তাহলে তোমরাও তাদের মানুষদেরও হত্যা কর৷''

মঙ্গলবার সিরিয়ার রাজধানী দামাস্কাসে রাশিয়ার দূতাবাসে হামলা হয়েছে৷ লন্ডনভিত্তিক সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস বলছে বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রণে থারা দামাস্কাসের পূর্বাঞ্চল থেকে হামলা চালানো হয়েছে৷ চলতি বছর এর আগেও দামাস্কাসের রুশ দূতাবাসে হামলার ঘটনা ঘটেছে৷

এদিকে, সিরিয়ায় হামলা করার সময় আকাশে যেন রুশ ও মার্কিন সেনাদের মধ্যে সংঘর্ষ না ঘটে তা নিশ্চিত করতে বুধবার দু'পক্ষের মধ্যে বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে৷

ভিডিও দেখুন 02:12

সিরিয়ায় হামলা চালাতে যুক্তরাষ্ট্র রাশিয়াকে তথ্য দিয়ে সহায়তা করছেনা বলে দেশটির সমালোচনা করেছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিন৷

ইতিহাসের কয়েকটি ঘটনা উল্লেখ করে মার্কিন পত্রিকা ‘ওয়াশিংটন পোস্ট' সিরিয়ায় রাশিয়ার উপস্থিতির কারণ খোঁজার চেষ্টা করেছে৷

ইউক্রেন ইস্যু থেকে বিশ্বের নজর সরাতে পুটিন সিরিয়ায় হামলা করছেন বলে মনে করেন অনেকে৷ এক্ষেত্রে পুটিন সফল হচ্ছেন বলে জানিয়েছে দ্য ইকোনমিস্ট৷

রাশিয়া বলছে যে তারা সিরিয়ায় সন্ত্রাসীদের সঙ্গে যুদ্ধ করতে গেছে৷ তাহলে তারা আইএস-এর উপর কেন আঘাত হানছে না? প্রশ্ন দ্য ইকোনমিস্ট-এর৷

সংকলন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়