1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

রাশিয়া, কাতারে বিশ্বকাপ ফুটবল নিয়ে বর্ণবাদ, বিতর্ক

ব্রাজিলে বিশ্বকাপ ফুটবলের আসর ভালোয়-ভালোয় শেষ হয়েছে৷ কিন্তু সমস্যা দেখা দিচ্ছে আগামী দুটি বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ দু’টিকে নিয়ে৷ রাশিয়ায় বর্ণবাদ ও কাতারে প্রতিযোগিতার তারিখ বদলানো নিয়ে চলছে বিতর্ক৷

২০১৮ সালে রাশিয়ায় বিশ্বকাপ ফুটবলের আসর বসার কথা৷ এদিকে ইউক্রেন সংকটের জের ধরে রাশিয়া আন্তর্জাতিক আঙিনায় বেশ একঘরে হয়ে পড়েছে৷ ততদিনে রাজনৈতিক সংকট কেটে গেলেও সে দেশের ফুটবল জগতের একটি বড় সমস্যা দূর হবে কি না, তা বলা কঠিন৷ রাশিয়ায় বর্ণ-বৈষম্যের মাত্রা নিয়ে গভীর দুশ্চিন্তা প্রকাশ করেছেন ফিফা-র ভাইস প্রেসিডেন্ট জেফ্রি ওয়েব৷ সম্প্রতি ফ্যানদের আচরণের কারণে সিএসকেএ মস্কো ক্লাব-কে আগামী তিনটি উয়েফা ম্যাচ খেলতে হবে খালি স্টেডিয়ামে৷ ওয়েব নিজে ফিফার অ্যান্টি রেসিজম টাস্ক ফোর্সের প্রধান৷ তাঁর মতে, এক্ষেত্রে রাশিয়ার সামনে বিশাল চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করে রয়েছে৷ শিক্ষার মাধ্যমেই বর্ণবাদের এই বিষ দূর করতে হবে বলে তিনি মনে করেন৷ উপর থেকে বোঝাতে হবে, ‘ডাইভারসিটি' বা বৈচিত্র্য এবং সমাজের মূল স্রোতে বাইরের লোকের সমন্বয় ভালো জিনিস৷

Russland Eröffnung Fußballstadien WM 2018 Otkritie Arena

ফ্যানদের আচরণের কারণে সিএসকেএ মস্কো ক্লাব-কে আগামী তিনটি উয়েফা ম্যাচ খেলতে হবে খালি স্টেডিয়ামে

এদিকে কাতারে ২০২২ সালের বিশ্বকাপ নিয়ে বিভ্রান্তি কাটার কোনো লক্ষণও দেখা যাচ্ছে না৷ প্রতিযোগিতার দিনক্ষণ গ্রীষ্ম থেকে শীতকালে পিছিয়ে দিলে ইউরোপীয় ক্লাবগুলি ক্ষতিপূরণ দাবি করতে চাইছে৷ কাতার বলছে, সে দেশ বছরের যে কোনো সময়ে প্রতিযোগিতা আয়োজন করতে প্রস্তুত৷ তবে গ্রীষ্মে প্রবল গরমের কারণে ফিফা ও আয়োজক কমিটি শীতকালে খেলার বিষয়ে ভাবনা-চিন্তা করছে৷ কিন্তু ইউরোপের প্রায় ২০০ ফুটবল ক্লাবের সংগঠন এই সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে তাদের মতামতের গুরুত্ব বাড়াতে চাইছে৷ বিভিন্ন দেশে ফুটবল লিগে যে সব তারকা খেলোয়াড়রা খেলেন, শীতকালে বিশ্বকাপ হলে তাঁদের নিজস্ব জাতীয় দলগুলির হয়ে খেলতে হবে৷ ক্লাবগুলি এই ধাক্কা সামলাতে প্রস্তুত নয়৷ ইউরোপীয় ক্লাব সংগঠন ইসিএ-র প্রধান বায়ার্ন মিউনিখ ক্লাবের কার্লহাইনৎস রুমেনিগে এ প্রসঙ্গে মনে করিয়ে দিয়েছেন, গত দু'টি বিশ্বকাপে প্রায় ৭৬ শতাংশ খেলোয়াড় কোনো না কোনো ইউরোপীয় ক্লাবের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ ছিলেন৷

এসবি/ডিজি (এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন