1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ইউরোপ

রাশিয়ায় বিরোধী নেতা গ্রেপ্তার, প্রতিবাদে উত্তাল সারা দেশ

পুবে ভ্লাডিভস্টক থেকে শুরু করে পশ্চিমে সেন্ট পিটার্সবার্গ অবধি ৯৯টি শহরে প্রতিবাদের ডাক দেওয়া হয়েছিল৷ কর্তৃপক্ষ তার অধিকাংশ নিষিদ্ধ করা সত্ত্বেও হাজার হাজার মানুষ পথে নামেন, গ্রেপ্তার হন শত শত৷

প্রতিবাদের ডাক দিয়েছিলেন বিরোধী নেতা আলেক্সেই নাভালনি ও তাঁর ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে সংগ্রাম নিধি'৷ মস্কোয় যে প্রায় ৮,০০০ মানুষ এই অননুমোদিত বিক্ষোভে অংশ নেন, তাদের মধ্যে নাভালনিও ছিলেন৷ পুলিশ নাভালনি ও তাঁর প্রায় একশ' সমর্থককে গ্রেপ্তার করেছে বলে প্রকাশ৷ গোটা মস্কোয় ৮০০ মানুষ গ্রেপ্তার হয়েছেন বলে শোনা যাচ্ছে৷

রবিবারের দেশজোড়া প্রতিবাদ প্রমাণ করেছে যে, রাশিয়ার বিরোধীপক্ষকে যারা সুবিধাভোগী শহুরে মানুষদের একটি ছোট ও অপ্রাসঙ্গিক গোষ্ঠী বলে গণ্য করেন, তারা ভুল করছেন৷ রবিবারের প্রতিবাদে একদিকে পেনশনভোগী, অপর দিকে তরুণ জনতাকে একত্রিত হতে দেখা গেছে৷ বিক্ষোভ প্রদর্শিত হয়েছে শুধু বড় শহরগুলিতেই নয়, সাইবেরিয়ার চিতা ও বার্নাউলের মতো মফস্বল শহরেও৷

মেদভেদেভের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

এ মাসেই নাভালনি একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেন, যেখানে বলা হয়েছে প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি মেদভেদেভ বিত্তশালীদের সাহায্যপুষ্ট কিছু সন্দেহজনক এনজিও-র মাধ্যমে নানা সম্পদ আহরণ করেছেন, যার মধ্যে প্রাসাদ থেকে শুরু করে আঙুরখেত বা প্রমোদতরী, সব কিছুই পড়ে৷ মেদভেদেভের সম্পদ সম্পর্কে নাভালনি ইউটিউবে যে ভিডিওটি পোস্ট করেন, তা এক কোটি দশ লাখ বারের বেশি দেখা হয়েছে৷

গোটা মস্কোয় ৮০০ মানুষ গ্রেপ্তার হয়েছেন বলে শোনা যাচ্ছে

গোটা মস্কোয় ৮০০ মানুষ গ্রেপ্তার হয়েছেন বলে শোনা যাচ্ছে

নাভালনি চিরকালই ক্রেমলিনের চোখের বালি৷ ইতিপূর্বেও প্রতিবাদ, বিক্ষোভে নেতৃত্ব দেয়ার কারণে তাঁকে স্বল্পকালের জন্য কারাবাস করতে হয়েছে৷ এছাড়া তাঁকে দু'টি জালিয়াতির মামলায় দোষী সাব্যস্ত করা হলেও, সাজা স্থগিত রাখা হয়েছে৷ দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় নাভালনি আইন অনুযায়ী প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী হতে পারেন না৷ তা সত্ত্বেও তিনি ২০১৮ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হবেন বলে ঘোষণা করেছেন৷ সেই নির্বাচনে পুটিন স্বয়ং আরেকটি কর্মকালের জন্য প্রার্থী হবেন বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে৷

সরকারি প্রতিক্রিয়া

রাশিয়ার সরকারি সংবাদ মাধ্যম বিক্ষোভ সম্পর্কে ছোটখাট রিপোর্ট দিলেও, মুখ্য সরকারি নিউজ টিভি চ্যানেল রশিয়া-২৪ তাদের সান্ধ্য খবরে বিক্ষোভের উল্লেখ পর্যন্ত করেনি৷

অপরদিকে পুটিন, মেদভেদেভ বা অপরাপর উচ্চপদস্থ রুশ রাজনীতিকদের তরফ থেকে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি৷ কাজেই দেশজোড়া বিক্ষোভের পরিপ্রেক্ষিতে ক্রেমলিনের প্রতিক্রিয়া যে কী হবে, তা জানার উপায় নেই৷ ২০১১-২০১২ সালের পর এই বৃহত্তম প্রতিবাদ আন্দোলনের প্রতিবারের মতো দম ফুরিয়ে শেষ হয়ে যাবে, নাকি ভয় দেখিয়ে ও সাজা দিয়ে তাকে দমিয়ে দেওয়া হবে, তা ভবিষ্যদ্বাণী করার কোনো উপায় নেই৷ তবে ২০১৪ সালের একটি আইন অনুযায়ী অননুমোদিত প্রতিবাদের জন্য ১৫ দিন কারাদণ্ড হতে পারে এবং তৃতীয়বার সেই একই অপরাধের জন্য পাঁচ বছর জেল হতে পারে৷

বিশ্বের প্রতিক্রিয়া

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় রবিবারেই ‘শত শত শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদকারীকে' গ্রেপ্তারের নিন্দা করে৷ মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মার্ক টোনার রবিবার সন্ধ্যায় একটি ফেসবুক পোস্টে লেখেন, ‘‘শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদকারী, মানবাধিকার পর্যবেক্ষক ও সাংবাদিকদের আটক করা মূল গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের প্রতি অপমানের'' সমতুল৷

‘‘বিশ্বের অপরাপর জনগণের মতোই রাশিয়ার জনগণেরও এমন এক সরকার প্রাপ্য, যে সরকার ধ্যানধারণার মুক্ত আদানপ্রদান, স্বচ্ছ ও দায়িত্বশীল প্রশাসন, আইনের চোখে সমানাধিকার ও শাস্তির ভয় ছাড়া নিজের অধিকার পালনকে সমর্থন করেন,'' লেখেন টোনার৷

সোমবার ইউরোপীয় ইউনিয়ন রাশিয়ার প্রতি গ্রেপ্তারকৃতদের অবিলম্বে মুক্তি দেবার আহ্বান জানায়৷ ইইউ-এর এক মুখপাত্র বলেন, পুলিশি অভিযান ‘‘মতপ্রকাশের বুনিয়াদি স্বাধীনতার ব্যবহার রোধ করেছে'', যে স্বাধীনতা রুশ সংবিধানে লিপিবদ্ধ করা রয়েছে৷

এসি/এসিবি (এপি, এএফপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন