1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

রাশিয়ায় আবারো জোড়া আত্মঘাতী বোমা হামলা, হত ১২

মস্কোর মেট্রো স্টেশনে হামলার রেশ কাটতে না কাটতেই বুধবার আবারও জোড়া আত্মঘাতী বোমা হামলার ঘটনা ঘটলো রাশিয়ার সমস্যাসঙ্কুল উত্তর ককেশাস অঞ্চলের দাগেস্তানে৷ পরপর দু দুটি হামলায় মারা গিয়েছে অন্তত ১২ জন৷

default

বোমার আঘাতে ধ্বংস হওয়া গাড়ি

সোমবারের জোড়া আত্মঘাতী বোমা হামলায় ৩৯ জনের প্রাণহানির পর রাশিয়া জুড়ে নেয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা৷ কিন্তু এরই মধ্যে নিরাপত্তার চাদর ভেদ করে দাগেস্তানের কিজলিয়ার শহরে ২০ মিনিটের ব্যবধানে বিস্ফোরিত হলো দু'দুটি আত্মঘাতী বোমা হামলা৷ হামলার লক্ষ্যবস্তু ছিল পুলিশ৷

দুটি হামলাই হয় দিনের প্রথমভাগই, একই স্থানে৷ দাগেস্তানের কিজলিয়ার শহরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সামনে পুলিশ নিয়মিত তল্লাশির অংশ হিসাবে যখন বিভিন্ন গাড়ি থামিয়ে দেখছিল, ঠিক সেখানেই একটি গাড়িতে বসেছিল আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী৷ তাকে বেরিয়ে আসতে বলার সঙ্গে সঙ্গে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নিজেকে উড়িয়ে দেয় সে৷ বোমার আঘাতে উড়ে যায় আশেপাশের গাড়ি এবং মানুষজন৷ এরপরের ঘটনাটি ঘটে ঠিক একই স্থানে মাত্র ২০ মিনিটের ব্যবধানে৷ পুলিশের সদস্যরা তখন ঘটনাস্থল পরীক্ষা নিরীক্ষা করছিল, সেখানেই পুলিশের পোশাক পরে থাকা অপর আত্মঘাতী হামলাকারী শরীরের সাথে বেঁধে রাখা বোমাটির বিস্ফোরণ ঘটায়৷ জোড়া হামলার এই ঘটনায় মারা যায় স্থানীয় পুলিশ প্রধানসহ ৯ পুলিশ সদস্য৷ দুই আত্মঘাতীসহ মারা যায় আরও তিনজন৷

Russland Dagestan Anschlag in Kisljar

দাগেস্তানে হামলার পর পুলিশী তদন্ত

আহত হয়েছে কমপক্ষে ২৩ জন৷

রুশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী রাশিদ নুরগালিয়েভ এই ঘটনার পর দেয়া এক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ‘‘আজকের এই সন্ত্রাসী ঘটনা দেখে এটাই প্রতীয়মাণ হচ্ছে যে সন্ত্রাসীরা সব কিছুই তাদের হামলার লক্ষ্যবস্তু করতে পারে৷ ফলে সজাগ থাকুন!''

এদিকে, রুশ প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমির পুটিন বুধবারের এর জোড়া বিস্ফোরণের ঘটনার পর বলেছেন, মস্কো এবং দাগেস্তানে বোমা হামলার সঙ্গে একই সন্ত্রাসী গ্রুপ জড়িত থাকতে পারে৷ সরকারি এক সভায় দেয়া তাঁর এই বক্তব্য প্রচার করে রুশ টেলিভিশন৷

ঐ সভায় তিনি বলেন, ‘‘এই দুই ঘটনা একই দল করেছে এমন সন্দেহের বিষয়টি আমি উড়িয়ে দিচ্ছি না৷'' তিনি আরও বলেন, ‘‘এই হামলা কোথায় ঘটেছে, সেটা মস্কোতে হয়েছে নাকি দাগেস্তানে হয়েছে, কট্টর খ্রিষ্টান নাকি মুসলিম নাকি অন্য কোন ধর্ম বিশ্বাসীদের উপর হয়েছে, সেটা কোন বড় কথা নয়৷ বড় কথাটি হলো এই অপরাধ সংঘটিত হয়েছে রাশিয়ার বিরুদ্ধে৷'

বিশেষ বাহিনী এই অপরাধীদের বিরুদ্ধে কাজ করছে বলে জানান রুশ প্রধানমন্ত্রী৷ অবশ্য এখনো পর্যন্ত কোন দল বা গ্রুপ এই ঘটনার দায় স্বীকার করেনি৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়