রাশিয়ার বিরুদ্ধে সাইবার হামলা চালানোর অভিযোগ | বিশ্ব | DW | 17.04.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

রাশিয়ার বিরুদ্ধে সাইবার হামলা চালানোর অভিযোগ

যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ক তিন সংস্থা সোমবার এক বিবৃতিতে রাশিয়ার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ এনেছে৷ এ ব্যাপারে রাশিয়া এখনও কোনো মন্তব্য করেনি৷

যুক্তরাজ্যের জাতীয় সাইবার নিরাপত্তা কেন্দ্র, যুক্তরাষ্ট্রের হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগ ও এফবিআই এক যৌথ সতর্কবার্তায় বলেছে, রুশ সরকারের সমর্থন পাওয়া হ্যাকাররা ২০১৫ সাল থেকে বিভিন্ন দেশের রাউটার ও সুইচের উপর হামলা চালিয়ে আসছে৷ এর মাধ্যমে তারা গোয়েন্দাগিরি, মেধাস্বত্ত্ব চুরি ইত্যাদি অপরাধ করে চলেছে বলে ‘খুব বিশ্বাস' করে এফবিআই৷ এছাড়া এই হামলার মাধ্যমে ভবিষ্যতে বড় ধরনের সাইবার হামলা চালানোর ভিত্তি তৈরি করা হয়েছে বলেও মনে করছে মার্কিন ঐ গোয়েন্দা সংস্থাটি৷

বিভিন্ন দেশের সরকারি, বেসরকারি সংস্থার গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো,  ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের উপর রাশিয়ার হ্যাকাররা এই হামলা চালায় বলেঅভিযোগ যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রের ঐ তিন সংস্থার৷

এখন কেন এই অভিযোগ উত্থাপন?

যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য বলছে, এখন বিবৃতি প্রকাশের মাধ্যমে তারা বিভিন্ন সংস্থাকে সতর্ক করতে চেয়েছে, যেন কোনো হামলা হলে তারা সঙ্গে সঙ্গে সেটি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানাতে পারে৷

রাশিয়ার কোনো মন্তব্য নেই

বিবৃতির বিষয়ে রাশিয়ার পক্ষ থেকে এখনও কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি৷ তবে এর আগে যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্যান্য দেশের উপর সাইবার হামলা চালানোর অভিযোগ অস্বীকার করেছিল রাশিয়া৷

এর আগে ওয়াশিংটন ও লন্ডন গত ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়ার বিরুদ্ধে ২০১৭ সালে ‘নটপেটিয়া' নামে ইউক্রেনের উপর সাইবার হামলা চালানোর অভিযোগ এনেছিল৷ সেই সময় অন্যান্য দেশের তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক যন্ত্রপাতিও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল৷

উল্লেখ্য, ব্রিটেনের মাটিতে সাবেক এক রুশ গোয়েন্দা কর্মকর্তার উপর ‘নার্ভ এজেন্ট' দিয়ে হামলার পর রাশিয়ার সঙ্গে ব্রিটেন, যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা বিশ্বের কয়েকটি দেশের সম্পর্কের অবনতি ঘটে৷ এরপর সিরিয়ায় রাসায়নিক হামলাকে ঘিরে আবারও রাশিয়ার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের সম্পর্ক খারাপ হয়েছে৷

আলেকজান্ডার পিয়ার্সন/জেডএইচ

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়