1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

রাশিয়ার ওপর আরো কঠোর অবরোধের পথে ন্যাটো

শেষ হচ্ছে দুদিনের ন্যাটো সম্মেলন৷ শেষ দিনে সম্মেলন থেকে রাশিয়ার ওপর আরো কঠোর অবরোধ আরোপের ঘোষণা আসতে পারে৷ এই দিনে ইউক্রেন, রুশপন্থি বিচ্ছিন্নতাবাদী আর রাশিয়ার মধ্যে চলছে শান্তির নতুন উদ্যোগ৷ চলছে যুদ্ধও৷

বিশ্লেষকরা বলছেন, শীতল যুদ্ধ অবসানের পর সবচেয়ে খারাপ সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে ২৮টি দেশের সামরিক জোট ন্যাটো৷ বৃহস্পতিবার নিউপোর্টে শুরু হয় দু দিনের সম্মেলন৷ আলোচ্য বিষয়ের তালিকার ওপরের দিকেই ইউক্রেন, ইরাক আর আফগানিস্তান৷ ইউক্রেন পরিস্থিতি নিয়েই ন্যাটো সবচেয়ে বেশি উদ্বিগ্ন৷ গত পাঁচ মাসের যুদ্ধে সেখানে নিহত হয়েছে অন্তত ২৬শ জন৷ ইউক্রেন সরকার এবং তার পশ্চিমা মিত্র দেশগুলোর মতে, রাশিয়ার মদতে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে রুশপন্থি বিদ্রোহীরা৷ এ কারণে রাশিয়ার ওপর কঠোরতর অবরোধ আরোপ করতে চলেছে ন্যাটো৷

ইউক্রেনকে সামরিক সহায়তা এবং চলমান যুদ্ধে আহত সৈনিকদের চিকিৎসাসেবা দেয়ার বিষয়েও একমত হয়েছেন ন্যাটোর সদস্যরা৷ জোটের আশঙ্কা, ইউক্রেন পরিস্থিতির প্রভাব সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের ছত্রছায়ায় থাকা দেশগুলোতেও পড়তে পারে৷

সে সব দেশেও দানা বাঁধতে পারে বিচ্ছিন্নতাবাদী চেতনা৷ তাই পূর্ব ইউরোপে সৈন্যসংখ্যা আরও বাড়ানোর বিষয়টিও বিবেচনা করে দেখছে ন্যাটো৷

ন্যাটো প্রধান আন্ডার্স ফগ রাসমুসেন বলেছেন, ‘‘রাশিয়া শান্তি আলোচনার উদ্যোগ শুরুর পর থেকে শান্তি ফিরিয়ে আনার জন্য অনুকূল একটি পদক্ষেপও নেয়নি৷ (ইউক্রেনের) সংকট নিরসনের চেষ্টা না করে রাশিয়া উল্টো আরো ঘনীভূত করছে৷''

এই পরিস্থিতিতেই মিনস্ক-এ আলোচনায় বসছে ইউক্রেন, ‘রুশপন্থি বিদ্রোহী' এবং রাশিয়া৷ আলোচনা শুরুর কয়েক ঘন্টা আগে ইউক্রেনের বন্দর নগর মারিউপোলে নতুন করে শুরু হয়েছে যুদ্ধ৷

এসিবি/এসবি (এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়