1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

রাতের খাবারে কী নিয়ে কথা বলেছিলেন ট্রাম্প, কোমি?

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, তিনি এফবিআই-এর সাবেক পরিচালক জেমস কোমির কাছে তিনবার জানতে চেয়েছিলেন, তাঁকে নিয়ে তদন্ত চলছে কিনা৷ যুক্তরাষ্ট্রের টিভি চ্যানেল এনবিসিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প এই কথা জানান৷

‘‘আমি আসলে তাঁকে (কোমি) জিজ্ঞেস করেছিলাম, হ্যাঁ৷ আমি বলেছিলাম, ‘যদি সম্ভব হয়, আপনি কি আমাকে জানাবেন, আমাকে নিয়েও তদন্ত চলছে কিনা?''' এনবিসিকে বলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট৷ এক ডিনারে তাঁদের মধ্যে এ সব কথা হয় বলে জানান তিনি৷ কোমির উত্তর প্রসঙ্গে ট্রাম্প বলেন, ‘‘তিনি (কোমি) বলেন, ‘আপনাকে নিয়ে তদন্ত হচ্ছে না৷'' দু'জনের মধ্যে টেলিফোন আলাপে বাকি দু'বার কোমির কাছে একই বিষয়ে জানতে চেয়েছিলেন বলেও সাক্ষাৎকারে জানান তিনি৷

মঙ্গলবার জেমস কোমিকে এফবিআই-এর পরিচালকের পদ থেকে বরখাস্ত করেন ট্রাম্প৷ এক্ষেত্রে রাশিয়ার বিষয়টিও তাঁর মাথায় ছিল বলে সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন তিনি৷ ২০১৬ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার প্রভাব নিয়ে তদন্ত করছে এফবিআই৷ কোমি ছিলেন তার প্রধান৷

এদিকে, নিউ ইয়র্ক টাইমস পত্রিকা জেমস কোমির দু'জন সহকর্মীর বরাত দিয়ে জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার সপ্তাহখানেক পর ট্রাম্প কোমিকে হোয়াইট হাউসে ব্যক্তিগত ডিনারে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন৷ সেই সময় ট্রাম্প কোমির কাছে জানতে চান, তিনি (কোমি) তাঁর প্রতি আনুগত্যের অঙ্গীকার করবেন কিনা৷ কোমি তখন সেটি করতে অস্বীকার করে ট্রাম্পকে জানিয়েছিলেন যে, তিনি (কোমি) তাঁর সঙ্গে সবসময় সৎ থাকবেন৷

সেদিনের আলোচনা বরখাস্তের একটি কারণ হতে পারে বলে কোমি এখন বিশ্বাস করছেন, বলে দাবি নিউ ইয়র্ক টাইমসের৷

নিউ ইয়র্ক টাইমস অবশ্য বলছে, ট্রাম্প এনবিসির কাছে যে ডিনারের কথা বলেছেন, আর কোমির দু'জন সহকর্মী যে ডিনারের কথা উল্লেখ করছেন, দু'টো একই কিনা তা নিশ্চিত নয়৷ তবে ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর দু'জন একবারই ডিনারে অংশ নেন বলে নিউ ইয়র্ক টাইমস বিশ্বাস করে৷

এদিকে, এনবিসির সঙ্গে সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প বলেন, কোমি তাঁর চাকরি বাঁচাতে নিজেই ডিনারের আবেদন করেছিলেন৷ তবে কোমির দুই সহকর্মী নিউ ইয়র্ক টাইমসকে বলেন, ট্রাম্পই কোমির সঙ্গে ডিনার করতে চেয়েছেন৷

কোমির কাছে ট্রাম্পের আনুগত্য চাওয়ার বিষয়টি সত্য নয় বলে নিউ ইয়র্ক টাইমসে জানিয়েছেন হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র সারাহ হুকাবে স্যান্ডার্স৷ তিনি বলেন, ‘‘ট্রাম্প কখনই কারও কাছে তাঁর প্রতি আনুগত্যের দাবি করবেন না, শুধু দেশ ও তাঁর মহান নাগরিকদের প্রতি কারও আনুগত্য চাইতে পারেন৷''

জেডএইচ/ডিজি (এএফপি, নিউ ইয়র্ক টাইমস)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়