1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

রাতের আকাশে অবশেষে উড়লো সোলার প্লেন

উড্ডয়নের সময় এক সপ্তাহ পিছিয়ে আজই আকাশে ডানা মেললে সোলার প্লেন৷ অবশ্য এবারের লক্ষ্য কিছুটা ভিন্ন৷ এতদিন দিনে হলেও এবার এই বিমান চলছে রাতেও৷

default

সোলার সেল দিয়ে এবার তৈরি করা হলো প্লেনও

ঘড়ির কাঁটায় তখন সকাল ৬টা বেজে ৫১ মিনিট৷ সুইজারল্যান্ডের সময়৷ ঠিক এই সময়ে পেয়ার্নে বিমান ঘাঁটি থেকে উড়লো সৌরশক্তিচালিত উড়োজাহাজ বা সোলার প্লেন৷ এই প্লেনের পরীক্ষামূলক উড্ডয়ন এর আগেও হয়েছে৷ তবে এই বারেরটি বিশেষ৷ কারণ সূর্যের শক্তিতে চলা এই প্লেন এবার উড়বে রাতভর৷ চালাচ্ছেন আন্দ্রে বোর্শব্যার্গ৷ আকাশ পরিষ্কার, তাই বিমান উঠতে কোনো সমস্যাই হয়নি৷ ঘণ্টায় ৩৫ কিলোমিটার গতিতে সুইজারল্যান্ড এবং ফ্রান্সের আকাশে উড়বে এই প্লেন৷ বোর্শব্যার্গের লক্ষ্য, টানা ২৭ ঘণ্টা চালানো৷

সোলার প্লেনের স্বপ্নদ্রষ্টা বার্টার্ন্ড পিকার্ড এই বিমানের দিবারাত্রির প্রথম যাত্রা নিয়ে রীতিমতো উচ্ছ্বসিত৷ তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘সব কিছু ঠিকভাবে চলছে৷ এটা একটি স্মরণীয় দিন৷'' সোলার প্লেন তৈরির উদ্দেশ্যও জানালেন তিনি৷

Solarflugzeug Solar Impulse Projekt von Bertrand Piccard und Andre Borschberg

সোলার প্লেনের দুই স্বপ্নদ্রষ্টা আন্দ্রে বোর্শব্যার্গ এবং ব্যার্টরান্ড পিকার্ড

পিকার্ড বললেন, ‘‘আমি চাই আকাশেও জ্বালানি ছাড়া উড়তে৷ জীবাশ্ম জ্বালানি ছাড়া যারা কিছু ভাবতে পারে না, তাদের বোঝাতে, চাইলেই অনেক কিছু সম্ভব৷'' মানুষ চাইলে যে অনেক কিছু সম্ভব তার জলন্ত উদাহরণ তো পিকার্ড নিজেই৷ এক যুগেরও বেশি সময় আগে বেলুনে করে পৃথিবী পরিভ্রমণের রেকর্ড গড়েন তিনি৷

এক সময়ের জেট বিমানের পাইলট বোর্শব্যার্গ আকাশে থাকলেও ভূমি থেকে তাকে সহায়তা করার জন্য একটি দল ঠিক রেখেছেন পিকার্ড৷ আর সে দলে নেতৃত্ব দিচ্ছেন সাবেক নভোচারী ক্লদ নিকোলিয়ার৷ এই প্লেনটির বৈশিষ্ট্য হচ্ছে, এর ব্যাটারি দিনে সূর্য থেকে শক্তি সঞ্চয় করে রাখবে, রাতে তা ব্যবহার করবে৷ পুরো প্লেনটি ওজনে খুব বেশি নয়৷ একটি গাড়ির সমান৷ তবে এর ডানাগুলো এয়ারবাসের ডানার মতো৷ গত বৃহস্পতিবারই এর ওড়ার কথা ছিলো, তবে বৈদ্যুতিক ত্রুটির কারণে উড্ডয়ন পেছানো হয়৷ তবে এখন সব ঠিকঠাক আছে এবং রাতের আকাশে বিমানটির উড়তে কোনো সমস্যা হবে না বলে মনে করছেন নিকোলিয়ার৷

পিকার্ডের লক্ষ্য, আগামী দিনে সোলার প্লেনই পথ দেখাবে৷ দিনে ওড়া নিয়ে কারো আর সন্দেহ নেই৷ তবে রাতে কী হয়, তা দেখার অপেক্ষায় সবাই৷ এজন্য অপেক্ষা করতে হবে বৃহস্পতিবার ভোর পর্যন্ত৷ কারণ তখনই পেয়ার্নে ঘাঁটিতে পুনরায় ফিরবে প্লেনটি৷

প্রতিবেদন: মনিরুল ইসলাম

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক