1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

রাটকো ম্লাদিচ নির্দোষ? দাবি করছেন পুত্র

বসনিয়ার যুদ্ধপরাধী সার্ব রাটকো ম্লাদিচ নিজেকে নির্দোষ বলে দাবি করছেন, তাঁর ছেলে ডার্কো ম্লাদিচ গতকাল একথা জানিয়েছেন৷ ১৯৯৫ সালে স্রেব্রেনিৎসা হত্যাযজ্ঞে তাঁর বাবার কোন হাত ছিল বলে পুত্র ডার্কো জনসম্মুখে এই দাবি তুলেছেন৷

default

ম্লাদিচের মুক্তির দাবিতে বেলগ্রেডে বিক্ষোভ

রাটকো ম্লাদিচের গ্রেপ্তারের খবর শুনে তাঁর রাজনৈতিক দল ‘আল্ট্রা ন্যাশনালিস্ট'-এর সমর্থকরা প্রতিবাদ জানায়৷ তারা রাটকো ম্লাদিচকে ‘সার্বিয়ার হিরো' বলে শ্লোগান দিতে থাকে৷ প্রায় দশ হাজার মানুষ সার্বিয়ার রাজধানী বেলগ্রেডে জড়ো হয়৷ প্রতিবাদ শান্তিপূর্ণ রাখার লক্ষ্য পুলিশ নামানো হয় রাস্তায়৷ এক পর্যায়ে পুলিশের দিকে আগুনের গোলা এবং পাথর ছুঁড়ে মারতে থাকে বিক্ষোভকারীরা৷ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়ার আগেই পুলিশ দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করে৷

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ইভিকা দাচিচ টেলিভিশনে জানান, সবমিলে প্রায় ১১১ জনকে আটক করা হয়েছে৷ এর মধ্যে ৩৭ জন নাবালক৷ দশ জন সাধারণ মানুষ এবং ২৬জন পুলিশ গুরুতর জখম হয়েছে৷

এর আগে রাটকে ম্লাদিচের পুত্র ডার্কো ম্লাদিচ জনসম্মুখে জানান, তাঁর বাবা স্রেব্রেনিৎসা হত্যাযজ্ঞের সঙ্গে জড়িত ছিলেন না৷ স্রেব্রেনিৎসায় প্রায় আট হাজার মুসলমান পুরুষ এবং অল্প বয়স্ক ছেলেকে হত্যা করা হয়৷ ডার্কোর দাবি তাঁর বাবা এর সঙ্গে জড়িত নন৷ তাঁর বাবা তাদের বাঁচানোর চেষ্টা করেছিলেন কিন্তু শেষ পর্যন্ত ব্যর্থ হন তিনি৷

ডার্কো ম্লাদিচ এবং তাঁর মা শনিবার রাটকো ম্লাদিচকে সঙ্গে সার্বিয়ার যুদ্ধাপরাধ আদালতে দেখা করতে গিয়েছিলেন৷ ডার্কো ম্লাদিচ জানান, তাঁর বাবা হাজার হাজার নারী, শিশু এবং বৃদ্ধ-বৃদ্ধার জীবন বাঁচিয়েছেন৷ যেসব জায়গায় হত্যাযজ্ঞ চলছিল সেখান থেকে তাদের সরিয়ে নিতে সাহায্য করেছেন তাঁর বাবা৷ হত্যাযজ্ঞের পিছনে অন্যরা সক্রিয় ছিল কিন্তু তাঁর বাবা এসবের সঙ্গে জড়িত ছিলেন না৷

৬৯ বছর বয়স্ক রাটকো ম্লাদিচকে হয়তো আগামী সপ্তাহের মধ্যে নেদারল্যান্ডসের ডেন হাগে স্থানান্তরিত করা হবে৷ সেখানে জাতিসংঘের যুদ্ধপরাধ ট্রাইবুনালে রাটকো ম্লাদিচের বিচার কাজ শুরু করা হবে৷

প্রতিবেদন: মারিনা জোয়ারদার

সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়