1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

রাজধানী ঢাকায় টিকফা-র প্রথম বৈঠক

বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সহযোগিতা ফোরাম – টিকফা চুক্তির প্রথম বৈঠক হয়েছে সোমবার ঢাকায়৷ বৈঠকে বাণিজ্য ও বিনিয়োগের সব সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়ে হয়৷

default

বৈঠকে জিএসপি পুনর্বহালের পাশাপাশি শুল্ক ও কোটামুক্ত সুবিধা পাওয়ার বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে তুলে ধরেছে বাংলাদেশ

বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন বাণিজ্যসচিব মাহবুব আহমেদ৷ অন্যদিকে মার্কিন প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন দক্ষিণ এশিয়াবিষয়ক সহকারী মার্কিন বাণিজ্য প্রতিনিধি মাইক ডিলানি৷

টিকফা কাউন্সিলের প্রথম বৈঠকে জিএসপি পুনর্বহালের পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রে শুল্ক ও কোটামুক্ত সুবিধা পাওয়ার বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে তুলে ধরে বাংলাদেশ৷ এছাড়া মার্কিন বাজারে বাংলাদেশের পণ্যকে প্রতিযোগিতামূলক করতে বৈষম্যমূলক শুল্ক কমানোরও অনুরোধ জানানো হয়৷ এছাড়া, জিএসপি পুনর্বহালে বাংলাদেশের হালনাগাদ উদ্যোগ সম্পর্কে জানতে চায় যুক্তরাষ্ট্র৷ এই উদ্যোগ বিস্তারিত পর্যালোচনা করার কথা৷

দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্প্রসারণ এবং এ বিষয়ে বিরোধ নিস্পত্তির লক্ষ্যে দুই দেশ গত বছরের ২৫শে নভেম্বর ওয়াশিংটনে টিকফা সই করে৷

এদিকে টিকফা বৈঠক শুরুর একদিন আগে ঢাকায় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন বাংলাদেশের বাণিজ্যসচিব মাহবুব আহমেদ এবং মার্কিন বাণিজ্য প্রতিনিধি মাইক ডিলানি৷ মাইক ডিলানি বলেন জিএসপি সুবিধা স্থগিত করে বাংলাদেশকে কোনো শাস্তি দেয়া হয়নি৷ বাংলাদেশকে সতর্ক করা হয়েছে৷ বাংলাদেশ যাতে শ্রম অধিকার এবং শ্রমিক নিরাপত্তার ব্যাপারে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের চাওয়াকে গুরুত্ব দেয় এবং পূরণ করে সে জন্যই জিএসপি স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেয় ওবমা প্রশাসন৷ তিনি বলেন, বাংলাদেশকে আন্তর্জাতিক মানের শ্রম অধিকার নিশ্চিত করতে হবে৷

বাংলাদেশের পক্ষ থেকে অবশ্য গত সপ্তাহেই জিএসপি ফিরে পেতে যেসব কাজ করা হয়েছে তার প্রতিবেদন পাঠান হয় যুক্তরাষ্ট্রে৷ আর জিএসপি ফিরে পেতে ১৬ দফা শর্তের প্রায় সবগুলোই এরই মধ্যে বাংলাদেশ পূরণ করেছে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ৷ বাকি দু-একটি শর্ত পূরণের কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে বলে জানান তিনি৷

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেন, ‘‘যুক্তরাষ্ট্র রাজনৈতিক কারণে জিএসপি সুবিধা ফিরিয়ে দিচ্ছে না৷''

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের প্রধান রপ্তানি পণ্য তৈরি পোশাক যুক্তরাষ্ট্রে কখনোই জিএসপি সুবিধা পেত না৷ মোট রপ্তানি পণ্যের মাত্র ০.৫ ভাগ জিএসপি সুবিধা পেত৷ তবে তাজরিন ফ্যাশানস এবং রানা প্লাজা ধসে পোশাক শ্রমিক নিহত হওয়ার ঘটনার প্রেক্ষাপটেই যুক্তরাষ্ট্র জিএসপি সুবিধা স্থগিত করে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়