1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

রহস্যময় দেশে বিরল ঘটনা

গোপনীয়তা ও রহস্যের বেড়াজালে ঘেরা দেশ উত্তর কোরিয়ার জীবনযাত্রার কিছু ঝলক দেখার সুযোগ পাচ্ছেন একদল বিদেশি সাংবাদিক৷ উপলক্ষ্য ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট দলের বিরল পার্টি সম্মেলন৷

আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞার চাপে প্রায় একঘরে হয়ে রয়েছে উত্তর কোরিয়া৷ এমনকি সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ সহযোগী ও প্রতিবেশী দেশ চীনের সঙ্গেও সম্পর্ক আগের মতো ইতিবাচক নেই৷ আন্তর্জাতিক রোষ উপেক্ষা করে পরমাণু অস্ত্র ও ক্ষেপণাস্ত্রে বিনিয়োগ করে চলেছে কিম জং উন প্রশাসন৷ এমনই প্রেক্ষাপটে প্রায় ৩৬ বছর পর শাসক দল ওয়ার্কার্স পার্টি কংগ্রেস অনুষ্ঠিত হচ্ছে৷ এই সিদ্ধান্তের কারণ ও উদ্দেশ্য নিয়ে জল্পনা-কল্পনা চলছে৷
উল্লেখ্য, চীনের কোনো প্রতিনিধি এই সম্মেলনে উপস্থিত থাকছেন না৷ শোনা যাচ্ছে, চীনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি৷
তবে একটি বিষয়ে বেশিরভাগ পর্যবেক্ষকই একমত৷ রাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠাতা কিম ইল সুং এবং তাঁর পুত্র কিম জং ইল যে মাত্রার ক্ষমতার অধিকারী ছিলেন, বংশের তৃতীয় প্রজন্মের নেতা কিম জং উন দেশে-বিদেশে এখনো তার প্রমাণ দিতে পারেন নি৷ এই কংগ্রেসে সেই কাজটি সারতে চাইছেন তিনি৷ তিন থেকে চার দিনের এই সম্মেলনে কিম জং উন তাঁর বোন কিম ইয়ো জং-এর হাতে কিছু গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব তুলে দিতে চলেছেন বলেও মনে করা হচ্ছে৷
এত বড় আকারের সম্মেলন আয়োজন করতে অসংখ্য মানুষকে জোর করে কাজ করানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ৷
আন্তর্জাতিক আঙিনায় পার্টি কংগ্রেস সম্পর্কে প্রচার নিশ্চিত করতে উত্তর কোরিয়ার সরকার বেশ কিছু বিদেশি সাংবাদিকদের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন৷ সরাসরি সম্মেলন সম্পর্কে রিপোর্ট করতে না পারলেও তাঁরা ছবি ও ভিডিও-র মাধ্যমে সে দেশের বিরল খণ্ডচিত্র তুলে ধরেছেন৷ ডেইলি মেল সংবাদপত্রের প্রতিনিধি তাঁদের মধ্যে অন্যতম৷
সিবিএস-এর সাংবাদিক উত্তর কোরিয়ার সরকারি প্রচারণার দৃষ্টান্ত তুলে ধরেছেন৷
এসবি/ডিজি (ডিপিএ, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়