1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ব্লগওয়াচ

রমজান এলেই আলোচনায় তিনি

রমজান এলেই বিভিন্ন টেলিভিশনে ইফতারের আয়োজন নিয়ে নানা অনুষ্ঠান হয়৷ তেমনি একটি অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন কেকা ফেরদৌসী৷ তার বেশ কিছু রেসিপি নিয়ে চলছে আলোচনা-সমালোচনা, তৈরি হচ্ছে কমেডি ভিডিও৷ তবে তাঁর পক্ষেও অবস্থান অনেকের৷

প্রতি বছর রোজার সময় একটি বিশেষ কোম্পানির নুডলসের সৌজন্যে একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে কেকা ফেরদৌসী এই রান্নার অনুষ্ঠানটি করেন৷ যেহেতু নুডলস কোম্পানির সৌজন্যে অনুষ্ঠান, তাই হয়ত নুডলস দিয়ে রান্নাগুলোই করতে হয়৷ আর সেই রকম কয়েকটি রান্না নিয়েই অনেকে ফেসবুক সরগরম করছেন৷ তবে এ বছর কেন হঠাৎ আবার তাঁকে নিয়ে আলোচনা শুরু হলো তা জানা যায়নি৷ যেসব রেসিপি নিয়ে আলোচনা হচ্ছে, সেগুলো ২০১৪ সালে রোজার সময় প্রচারিত অনুষ্ঠানের৷

আর সেই সময় তিনি প্রথম আলোচনায় আসেন নুডলসের পায়েস বানিয়ে৷ সেই সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এটা নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হয়৷

এবার বেশি আলোচনা হচ্ছে নুডলসের আচার নিয়ে৷ যদিও সেটা সেই ২০১৪ সালের অনুষ্ঠানের৷ তবে রোজা শুরুর সাথে সাথে প্রায় প্রতিদিনই প্রচারিত হচ্ছে এই অনুষ্ঠান৷ তাই কেকা ফেরদৌসীর পুরোনো, নতুন সব রেপিসি নিয়েই চলছে আলোচনা-সমালোচনা-কটাক্ষ৷

হাফিজ আল ফারুকি লিখেছেন, ‘‘প্রতিভা থাকলে ঠেকায় কে? নুডলস দিয়ে আচার বানানোর কথা জন্মেও কল্পনা করেছেন?’’

রহমান রাশেদ অন্য একজনের মন্তব্য তুলে ধরেছেন নিজের ফেসবুক পাতায়৷ সেখানে লেখা, ‘‘সরকারী পৃষ্ঠপোষকতা পেলে কেকা ফেরদৌসী নুডলস দিয়ে পদ্মা সেতু বানিয়ে দিবেন৷’’

আরিশা রহমান অবশ্য এসব রান্নাবান্না বিষয়ে ছেলেদের আগ্রহই বেশি বলে মন্তব্য করেছেন৷ তিনি লিখছেন, ‘‘ভাইয়ারা নিয়মিত ঘড়ি ধরে রান্নার অনুষ্ঠান দেখেন এটার প্রমাণ নিউজফিডেই পাওয়া যাচ্ছে৷ তাদের ভাষ্যমতে- ‘বস্তা পচা এই অনুষ্ঠানের’ জনপ্রিয়তা অজান্তে তারা নিজেরাই বাড়াচ্ছেন৷’’

রফিক সুলায়মান ফেসবুকে লিখেছেন, ‘‘কেকা ফেরদৌসী’র শাহী নিয়ামত নুডলসের আচার৷ ফেরদৌসী'র শাহনামা এর কাছে কিছুই না৷’’

মো সাজ্জাদুল আলম সজীব মনে করতেন কেকা ফেরদৌসীর রান্না বিষয়ক সব কথা বানোয়াট৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘তাকে ট্রল করা সব পোস্ট দেখে মনে করতাম মজা নেয়ার জন্য এগুলো করেছে৷ কিন্তু আজকে কৌতুহলবশত ইউটিউবে তার রেসিপি দেখে এলাম৷ সত্যিই ভয়ংকর...নুডলসের ভর্তা, নুডলসের পায়েস...আর না বলি, রোজাদারেরা কষ্ট পাবেন৷’’

মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন ব্যাঙ্গ করে লিখেছেন, ‘‘ভাবছি একটা ডিনার পার্টি দিবো৷ কেকা ফেরদৌসী শেফ থাকবেন৷ কে কী মেনু খেতে চান?’’ উত্তরে অদ্ভুত সব খাবারের নাম লিখেছেন অনেকে৷

লুডলসের আচার বানানোর অনুষ্ঠানটির ভিডিওর নীচে অনেকেই জানতে চেয়েছেন, আচার খেয়ে হজম করতে পারবেন কিনা ৷ এ বিষয়ে মনে সন্দেহ রয়েছে বলেও জানিয়েছেন তারা৷

এন রহমান লিমন কেকা ফেরদৌসীর রান্নার অনুষ্ঠানের বিভিন্ন দিক উল্লেখ করে লিখেছেন, ‘‘তাঁর বিশেষত্ব তিনি সমুদ্রের তীরে তীব্র বাতাসে বসেও মাটির চুলায় রান্না করতে পারেন৷ এছাড়া উনি নুডলস এক্সপার্ট হিসেবে খ্যাতির শীর্ষে অবস্থান করছেন৷’’ তাঁর উল্লেখযোগ্য রেসিপি হিসেবে নুডলসের আচার, নুডলসের ভর্তা, নুডলসের কেক এর কথা উল্লেখ করেছেন৷

রাহাত আমিন ফেসবুকে লিখেছেন, ‘‘দিনে দিনে কেকা ফেরদৌসী আপার যেসব এপিক লেভেলের রেসিপি হচ্ছে, তাতে হয়তো এই রমজান মাসে জিলাপি আর পেঁয়াজু দিয়ে লেবুর সরবত তৈরির প্রক্রিয়াও দেখিয়ে দেবেন৷’’

মশিউর বাপ্পী বিভিন্ন ধরনের খাবারের নাম দিয়েছেন, যেমন, নুডলসের বড়া, নুডলসের লাচ্ছি, নুডলসের ফালুদা, নুডলসের চিকেন ফ্রাই৷ তিনি প্রশ্ন রেখেছেন, ‘‘কেকা ফেরদৌসী আপার রেসিপি কি মানব সম্প্রদায়ের জন্য, নাকি অন্য কোনো প্রজাতির জন্য?’’

তবে কেকা ফেরদৌসীর পক্ষেও অনেকে মন্তব্য করেছেন৷ তাদের মধ্যে একজন কানিজ আকলিমা সুলতানা৷ যিনি লিখেছেন, ‘‘কেকা ফেরদৌসী যদি সুন্দর উচ্চারণে কথা বলতেন, অথবা তিনি পুরুষ হতেন বা নিদেনপক্ষে বিদেশি হতেন, তা-ও কি তাকে নিয়ে এত ব্যঙ্গ করা হতো? একজন মানুষ রান্নার শো করছেন৷ আপনার পছন্দ না হলে সেই শো দেখবেন না বা সেই খাবার বানাবেন না৷ মিরাক্কেল জনপ্রিয় শো হওয়ার পরেও কত মানুষই তা অরুচিকর বলে দেখে না৷ তাই বলে এইরকম ট্রল!’’ তিনি আরো লিখেছেন, ‘‘দেশ বিদেশে ঘোরা এবং থাকার সুবাদে কত ধরণের ফিউশন খাবার দেখেছি৷ কতবার তো এমন হয়েছে যা অন্যদের পাঁচমুখ করে খেতে দেখেছি তা নিজে সাহস করে পাতে তুলিনি৷ কিন্তু এটা নিয়ে যে বিদ্রুপ করতে হবে তা তো মাথায় আসেনি৷ রুচি কি শুধু খাবারে হয়, নাকি প্রকাশেও হয়?’’

সুপ্রীতি ধর লিখেছেন, ‘‘গত দু'দিন ধরে সবাই কেকা ফেরদৌসীকে নিয়ে যে হারে ট্রল করছে, তা দেখে আমি রীতিমতন টাসকিত৷ আমার অনুভূতি আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে যাচ্ছে৷ কিন্তু আজ উনার এসব ট্রলের বিপরীতে একটি স্ট্যাটাস দেখে যারপরনাই মুগ্ধ হয়ে গেলাম৷ একেই বলে শিক্ষা, একেই বলে যোগ্যতা!’’

সংকলন: অমৃতা পারভেজ

সম্পাদনা: আশীস চক্রবর্ত্তী

প্রিয় পাঠক, আপনি কিছু বলতে চাইলে লিখুন নীচে মন্তব্যের ঘরে... 

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক