1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

রক্তে ইবোলা নেই, তবে বীর্যে আছে!

হ্যাঁ, এমনই অবস্থা ভারতীয় এক যুবকের৷ ২৬ বছর বয়সের এই ভারতীয় নাগরিকের রক্তে ইবোলা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া না গেলেও বীর্যে এখনও সেটা রয়ে গেছে৷ তাই তাঁকে আলাদা করে রাখা হয়েছে৷

ভারতীয় এই যুবক লাইবেরিয়ায় থাকাকালীন সেপ্টেম্বরের ১১ তারিখ ইবোলায় আক্রান্ত হন৷ তারপর চিকিৎসা শেষে ৩০শে সেপ্টেম্বর তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেয়া হয়৷ এরপর লাইবেরিয়ার কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে সার্টিফিকেট নিয়ে নভেম্বরের ১০ তারিখ তিনি ভারতে ফেরেন৷

তবে ভারতীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতি বলছে, ইবোলা থেকে মুক্তি পেলেও আক্রান্ত হওয়ার ৯০ দিন পর্যন্ত রোগীর বীর্যে ইবোলা ভাইরাসের উপস্থিতি থাকতে পারে৷ যেমনটা পাওয়া গেছে ফেরত ঐ ভারতীয় নাগরিকের বীর্যে৷ তাই সতর্কতা অবলম্বন স্বরূপ তাঁকে সবার থেকে পৃথক অবস্থায় রাখা হয়েছে৷ যতক্ষণ না তিনি পুরোপুরি ইবোলা মুক্ত হচ্ছেন, ততদিন তাঁকে এই অবস্থায় রাখা হবে বলে জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়৷

উল্লেখ্য, কারও বীর্যে ইবোলা থাকার মানে তিনি যৌনমিলনের মাধ্যমে অন্যের দেহে ইবোলা ছড়িয়ে দিতে পারেন৷

এদিকে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, গত বছরের ডিসেম্বর থেকে এখন পর্যন্ত বিশ্বের আটটি দেশের মোট ৫,৪২০ জন রোগী ইবোলায় মারা গেছেন৷ এ সময় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ছিল ১৫,১৪৫ জন৷ এর মধ্যে আক্রান্ত স্বাস্থ্যকর্মীর সংখ্যা ছিল ৫৮৪৷ মারা গেছেন ৩২৯ জন৷ অবশ্য আক্রান্ত ও মারা যাওয়াদের আসল সংখ্যা আরও বেশি হবে বলেই মনে করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা৷

ইবোলায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে লাইবেরিয়ার মানুষ৷ সংখ্যাটা ৭,০৬৯ জন৷ এর মধ্যে মারা গেছেন ২,৯৬৪ জন৷ তবে আশার কথা হচ্ছে, দেশটিতে ইবোলা প্রসারের গতি ধীর হওয়ায় জরুরি অবস্থা তুলে নেয়া হয়েছে৷

জেডএইচ/ডিজি (ডিপিএ, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন