1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

যৌন কেলেঙ্কারিতে নাকাল ইটালির প্রধানমন্ত্রী বার্লুসকোনি

তাঁর আর্থিক উপদেষ্টার পক্ষ থেকে এবার নতুন কথা শোনা গেল৷ বার্লুসকোনির মিলানের বাড়িতে পতিতাদের আনাগোনার বিষয়টি অস্বীকার করে আর্থিক উপদেষ্টা জানালেন, বার্লুসকোনি মাঝেমধ্যেই অনেক মেয়েকে অর্থ দিয়ে সাহায্য করতেন৷

default

‘রুবি রুবাকুয়োরি’

একের পর এক যৌন কেলেঙ্কারিতে রীতিমত নাকাল হয়ে পড়েছেন ইটালির ৭৪ বছর বয়স্ক প্রধানমন্ত্রী সিলভিও বার্লুসকোনি৷ তাঁর মিলানের বাড়িতে পতিতাদের বহুদিন ধরে আনাগোনা রয়েছে, সম্প্রতি এমন প্রমাণ হাজির করেছেন মিলানের আইনজীবীরা৷ আদালতে এই প্রমাণ হাজির করার সময় তারা বার্লুসকোনি এবং যাকে নিয়ে এই ঘটনার আরম্ভ সেই রুবি ওরফে কারিমা এল মারুঘের কথোপকথনেরও একটি অডিও ফাইল হাজির করে বলে জানা যায়৷ আদালতে এভাবে প্রমাণ হাজির করায় স্বাভাবিকভাবেই বেশ বিপাকে পড়ে যান বার্লুসকোনি৷ এবার তাঁর আর্থিক উপদেষ্টা সেই পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করলেন৷

বৃহস্পতিবার বার্লুসকোনির আর্থিক উপদেষ্টা জুসেপে স্পিনেলির একটি সাক্ষাৎকার প্রকাশিত হয়েছে৷ তাতে তিনি জানিয়েছেন, বার্লুসকোনি মাঝে মধ্যেই অনেক ছাত্রছাত্রীকে আর্থিক সহায়তা করে থাকেন৷ তিনি আরও জানান, বার্লুসকোনির বাড়িতে আসলেই অনেক মেয়ের যাতায়াত ছিল৷ কিন্তু তাতে কোন বাজে উদ্দেশ্য ছিল না৷ রুবির ব্যাপারেও তিনি জানান যে এই মেয়েটিও মিলানের বাড়িতে আসতো যেত৷ অনেক সময়ই তাকে টাকা পয়সা দিয়ে সহায়তা করেছেন বার্লুসকোনি৷ কিন্তু তাঁর সঙ্গে যৌন সম্পর্কের কোন ঘটনা নেই৷ জুসেপে স্পিনেলি বলেন, ‘‘এমন দিনও গেছে যে রুবি এসেছে, তার ট্যাক্সি ভাড়াটাও দিয়ে দিয়েছেন ইটালির প্রধানমন্ত্রী৷'' কিন্তু শুধু আর্থিক সাহায্য নেওয়ার জন্যই কী এত অল্পবয়স্ক নারীদের আনাগোনা দেখা যেত সেই বাড়িতে? অন্তত বার্লুসকোনিকে যারা অনেক দিন ধরে চেনেন, তারা বিশ্বাস করতে পারছেন না এটা৷

প্রতিবেদন: রিয়াজুল ইসলাম

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

নির্বাচিত প্রতিবেদন