1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

যৌনতায় বাড়াবাড়ি, ক্ষমা চাইলেন জুমা

তিন স্ত্রী, তার সঙ্গে নতুন বাগদত্তা৷ এরপরও যেন যৌন ক্ষুধা মেটে না জ্যাকব জুমার৷ ৬৭ বছর বয়স্ক দক্ষিণ আফ্রিকার এই প্রেসিডেন্ট অবশেষে রাশ টানতে বাধ্য হলেন তীব্র সমালোচনার মুখে৷ ক্ষমা চাইলেন দেশবাসীর কাছে৷

default

তিন স্ত্রীকে নিয়েও তৃপ্ত নন জ্যাকব জুমা

সাধ মেটে না জ্যাকব জুমার

জীবনে মোট পাঁচ বার বিয়ে করেছেন জ্যাকব জুমা৷ আরেকবারও করতে যাচ্ছেন বলে৷ এখন পর্যন্ত মোট ১৯ সন্তানের বাবাও হয়েছেন৷ মূলত জুলু গোষ্ঠীর এই প্রেসিডেন্ট তাঁর এই বহুবিবাহ এবং বহু সন্তান নিয়ে বেশ গর্বিতই বলা যায়৷ কারণ আফ্রিকান সংস্কৃতিতেই একাধিক স্ত্রী এবং বহু সন্তান অত্যন্ত স্বাভাবিক একটি বিষয়৷ তাই আফ্রিকান সমাজেও তাঁর এই বহু বিবাহ নিয়ে তেমন কোন হইচই হয়নি৷ তবে বিপত্তি বেধেছে কয়েকদিন আগে যখন তিনি মুখ ফসকে বলে বসলেন যে স্ত্রীর সঙ্গে যৌনক্রিয়ায় তিনি কনডম ব্যবহারের ধার ধারেন না৷ উল্লেখ্য, বিশ্বের এইডস আক্রান্ত দেশগুলোর অন্যতম হচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা যেখানে প্রতি নয়জনে একজনের শরীরে এইচআইভি ভাইরাস রয়েছে৷ এছাড়া অনিরাপদ যৌনতার জন্য যৌনরোগীর সংখ্যাও দেশটিতে অনেক৷ এই অবস্থায় খোদ প্রেসিডেন্ট যখন বলেন যে তিনি নিরাপদ যৌন জীবনে অভ্যস্ত নন তখন সাধারণ মানুষের অবস্থা কি তা বলাই বাহুল্য৷

Süsafrika Jacob Zuma nach der Wahl

এতসব ঘটনার পর জনপ্রিয়তা কি ধরে রাখতে পারবেন জুমা?

এসব নিয়ে যখন সমালোচনা চলছে তখন দক্ষিণ আফ্রিকার সানডে টাইমস একটি বোমা ফাটানো খবর দেয়৷ তা হলো, এতগুলো স্ত্রী নিয়েও তৃপ্ত নন জ্যাকব জুমা৷ তারা জানিয়ে দেয়, দেশটির ফুটবল কর্তৃপক্ষের প্রধান আরভিন খোজার ৩৯ বছর বয়স্ক মেয়ে সোনোনো খোজার সঙ্গে প্রেসিডেন্ট জুমার গোপন প্রেমের কাহিনী৷ এবং এই গোপন প্রেমের ফসল হচ্ছে সোনোনোর গর্ভে জুমার ২০ তম সন্তান৷ আশ্চর্যের বিষয়, গত অক্টোবরে সোনোনো একটি মেয়ে সন্তান জন্ম দেওয়ার মাত্র তিন মাসের মাথায় তৃতীয় বিয়েটি করে বসেন জুমা৷

ফাটা বাঁশে আটকে.......

এসব খবর প্রথমদিকে ব্যক্তিগত ব্যাপার বলে উড়িয়ে দিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট জুমা৷ কিন্তু যখন বুঝতে পারলেন যে আর চেপে গিয়ে লাভ নেই তখন স্বীকার করতে বাধ্য হলেন তিনি৷ শনিবার তাঁর বিবাহ বহির্ভূত প্রেমের কথা স্বীকার করেছেন, একই সঙ্গে স্বীকার করেছেন সন্তানের কথাও৷ পাশাপাশি এসব ঘটনায় গোটা দক্ষিণ আফ্রিকার সমাজ যে এখন বিশ্ববাসীর সামনে হাসির পাত্র হয়ে পড়েছে সেজন্য ক্ষমাও চেয়েছেন৷ এক বিবৃতিতে জুমা বলেন, আমি আমার পরিবার, এএনসি (সরকারি দল), সরকারি জোট এবং দক্ষিণ আফ্রিকার নাগরিকদের কাছে আন্তরিক দুঃখ প্রকাশ করছি৷ এদিকে জুমার দল আফ্রিকান ন্যাশনাল কংগ্রেস জুমার এই ক্ষমা প্রার্থনাকে স্বাগত জানিয়েছে এবং দেশবাসীকে আহ্বান জানিয়েছে এই ঘটনা মনে না রাখতে৷ কিন্তু এসব কাহিনী আর সহজে ভোলা যায়!

প্রতিবেদক: রিয়াজুল ইসলাম, সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সংশ্লিষ্ট বিষয়