1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

যৌনকর্মীদের হত্যার দায় স্বীকার করল জার্মান পুরুষ

নিহত যৌনকর্মীরা বিদেশি নাগরিক এবং তাঁরা ন্যুরেমবার্গে খুন হয়েছিলেন৷ যে ব্যক্তি তাঁদের খুন করার কথা স্বীকার করেছেন, তার বিরুদ্ধে অতীতেও পারিবারিক সহিংসতার অভিযোগ উঠেছিল৷

পুলিশ এবং কৌঁসুলিরা সোমবার জানিয়েছে যে, খুনের দায় স্বীকার করা ২১ বছর বয়সি জার্মান পুরুষটি বাভারিয়ার ন্যুরেমবার্গে দুই যৌনকর্মীকে হত্যা করে৷ ন্যুরেমবার্গের পুলিশ প্রধান ইয়োহান রাস্ট এই বিষয়ে বলেন, ‘‘সে হত্যার দায় স্বীকার করেছে এবং বর্তমানে তদন্তের প্রয়োজনে আটক রয়েছে৷''

ঊধ্বর্তন কৌঁসুলি আলফ্রেড হ্যুবার এই প্রসঙ্গে জানান, দরদাম নিয়ে বনিবনা না হওয়ায় সৃষ্ট বিবাদের সময় দুই জনকে হত্যা করা হয়৷ পুলিশ জানায়, সন্দেহভাজন হত্যাকারী ফিলিক্স আর-কে গ্রেপ্তারে নিহত একজনের মোবাইলে থাকা টেলিফোন নম্বর এবং ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা ডিএনএ নমুনা সহায়তা করেছে৷ জার্মান আইন অনুযায়ী, সন্দেহভাজন অপরাধীর পুরো নাম গণমাধ্যম প্রকাশ করতে পারে না৷

নিহত যৌনকর্মীদের এক জনের বয়স ২২ বছর৷ তাঁর রুমানিয়া ও হাঙ্গেরির নাগরিকত্ব ছিল৷ গত ২৪ মে ন্যুরেমবার্গে তাঁকে হত্যা করা হয়৷ নিহত আরেক যৌনকর্মী ৪৪ বছর বয়সি এক চীনা নাগরিক৷ তাঁকে গত ৫ জুন হত্যা করা হয়৷ দু'জনকেই শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়৷ অগ্নিনির্বাপক কর্মীরা তাদের উদ্ধারের সময় তাঁদের হাত বাঁধা ছিল৷ ধারণা করা হচ্ছে যে, ফিলিক্স আর. তাঁদের হত্যার পর হত্যার আলামত পুড়ে ফেলার জন্য বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দিয়েছিল৷

উল্লেখ্য, গত বছর এক পারিবারিক সহিংসতার ঘটনায় জড়িত থাকার দায়ে শাস্তি হয়েছিল ফিলিক্স আর-এর৷ সেই সময় তাকে দুই সপ্তাহের জন্য একটি সংশোধানাগারে রাখা হয়েছিল৷ তার অপরাধপ্রবণ মানসিকতা সম্পর্কে তাই অবগত ছিল পুলিশ৷

এআই/এসিবি (এএফপি, এপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়