1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

যোগ্যতাসম্পন্ন অভিবাসীই চায় ডাচ সরকার

নেদারল্যান্ডসকে দীর্ঘদিন বহুসাংস্কৃতিক সহিষ্ণুতার একটি দেশ হিসেবেই দেখা হয়েছে৷ অভিবাসী মানুষদের অব্যাহত জোয়ারের মুখে এই দেশটিতেও ভাবনার রদবদল ঘটছে৷ জোর পড়েছে অভিবাসীদের সমাজের মূলধারায় বেশি করে সম্পৃক্ত করার ওপর৷

default

আয়ান হিরসি আলি একজন যোগ্যতাসম্পন্ন ডাচ অভিবাসী

২০০৭ সালে নেদারল্যান্ডসে ইন্টিগ্রেশন কোর্স চালু করেছিল - যার মূল কথা অভিবাসী মানুষদের ডাচ সমাজের মূলধারায় সমপৃক্ত করা৷ এই বিধির আওতায় সকল অ-ইউরোপীয় অভিবাসী কর্মী ও তাদের পরিবারের সদস্যদের জন্য এই কোর্স করা এবং কোর্স শেষে একটি পরীক্ষায় পাশ করা বাধ্যতামূলক৷ যারা এই কোর্সে যোগ দেবেনা তাদের স্থায়ী বাসের অনুমতি দেয়া হবেনা৷ সামাজিক ভাতার ওপরও তাদের কোন দাবি থাকবেনা৷

Blumenfest in den Niederlanden

ডাচ সংস্কৃতিকে জানতে সাহায্য করছে ইন্টিগ্রেশন কোর্স

মরক্কোয় জন্ম নেওয়া রহমুনা লাকধারী তেরো বছর আগে নেদারল্যান্ডস'এ এলেও সেদেশে এতদিন তিনি যেন এক বহিরাগতের জীবন কাটিয়েছেন৷ কাজের ক্ষেত্রে এবং কারো সঙ্গে নতুন করে বন্ধুত্ব করার ক্ষেত্রে ভাষা ও সংস্কৃতি বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে তাঁর কাছে৷ কিন্তু গতবছর থেকে ৩৩ বছর বয়সি এই নারীর জীবনে নাটকীয় পরিবর্তন আসতে শুরু করেছে৷ আর এইজন্য তিনি ডাচ সরকারকে ধন্যবাদ জানান৷ কেননা সরকারের অর্থসাহায্যে সমাজের মূলধারার সঙ্গে সম্পৃক্ত হওয়ার জন্য তিনি কোর্স করছেন৷ তিনি মনে করছেন, এর মাধ্যমে তিনি নিজের জীবনযাত্রার উন্নয়ন ঘটাতে পারছেন, যা তাকে একজন দক্ষ অভিবাসী হতে সাহায্য করছে৷ আর এই ধরণের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে নেদারল্যান্ডস'এর নতুন ডানপন্থী সরকার অভিবাসীদের সুযোগ সুবিধা বাড়ানোর পরিকল্পনা নিয়েছে৷

লাকধারী প্রতি সপ্তাহে দশ ঘন্টা সময় কাটান ডাচ স্কুলে৷ এখানে তিনি ডাচ ভাষা শিখছেন৷ শিখছেন এই সমাজে কিভাবে মেলামেশা করতে হবে৷ সরকার কিভাবে কাজ করে, প্রতিবেশীদের সঙ্গে কিভাবে সখ্যতা গড়ে তোলা যায়, ব্যাংক হিসেব কিভাবে খোলা যায় এবং জন্ম নিয়ন্ত্রণ করতে হলে কি করতে হয় তাও শিখছেন তিনি৷ স্কুলে প্রশিক্ষণের এক ফাঁকে বার্তা সংস্থা এএফপি'কে লাকধারী বলেন, ‘‘নেদারল্যান্ডস'এ থাকতে গেলে, এদেশকে জানতে হলে একজন মানুষের কি কি প্রয়োজন হয় এখন আমি কেবল সেগুলোই শিখছি৷''

প্রতিবেদন: জান্নাতুল ফেরদৌস

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক