1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

যুদ্ধ করুন পাকিস্তানি সেনাদের বিরুদ্ধে!

বুধবার স্বাধীনতা দিবসে মুক্তিযুদ্ধের বিষয়বস্তু নিয়ে ‘লিবারেশন ৭১’ নামে একটি কম্পিউটার গেমের বেটা সংস্করণ উদ্বোধন করা হয়েছে৷ মুক্তিযুদ্ধে ঘটে যাওয়া ১৬টি গুরুত্বপূর্ণ মিশন নিয়ে গেমটি সাজানো হয়েছে৷

গেমটি তৈরি করেছে ‘টিম ৭১'৷ ফেসবুকে গেমের একটি পেজও খোলা হয়েছে৷ সেখানে বলা হয়েছে, ‘‘এই গেমের মাধ্যমে দেশের শিশু কিশোরদের মাঝে ছড়িয়ে দেয়া হবে মুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত ইতিহাস৷''

ফেসবুক পেজটিতে গিয়ে দেখা গেলো, অনেকে ইতিমধ্যে গেমটি খেলে ফেলেছেন এবং তাঁরা গেমটির উন্নয়নে কিছু পরামর্শও দিচ্ছেন৷ আগামী বিজয় দিবসে পূর্ণাঙ্গ গেমটি বাজারে আসার সময় সে সমস্যাগুলোর সমাধান করা হবে বলে ডেভেলপাররা জানিয়েছেন৷

লিবারেশন ৭১ এর ওয়েবসাইট থেকে বিনামূল্যে গেমটি ডাউনলোড করা যাচ্ছে৷

সামহয়্যার ইন ব্লগে সামির সাকির গেমটির উদ্বোধনের খবর দিয়েছেন৷ এরপর তিনি লেখেন, ‘‘সাধারণত যে-কোনো গেম তৈরিতে অনেক টাকা খরচ করা হয়৷ কোনো কোনো গেমের জন্যতো মিলিয়ন ডলারও খরচ করার ঘটনা আছে৷ অথচ এই গেমের প্রতিষ্ঠাতাদের জন্য এমন কোনো সুযোগ ছিল না৷ ছিল না কোনো অর্থনৈতিক সহায়তাও৷ এমনকি এই গেম নিয়ে তাদের কোনো ব্যবসার পরিকল্পনাও নেই৷

‘‘স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন জাগতে পারে তবে এমন গেম তৈরি করা কেন? উত্তরটা হলো মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস৷ অবাক হচ্ছেন তো? গেমের মাধ্যমে আবার ইতিহাস কী? এটাই তো এই গেমের অসাধারণত্ব! এই খেলার মূল উদ্দেশ্য শিশু, কিশোর, তরুণদের ১৯৭১ সালের সঠিক ইতিহাস সম্পর্কে ধারণা দেওয়া৷''

এমন একটা গেম তৈরি করায় ফেসবুকে নিজেদের অ্যাকাউন্টে স্ট্যাটাস দিয়ে টিম ৭১ এর সদস্যদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন অনেকে৷ আরিফ আর হোসেন শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি জানিয়েছেন, নির্মাতাদের একজনের সঙ্গে তাঁর পরিচয় আছে৷ সেই সূত্রে তিনি জানেন, গেমটিতে যে ১৬টি মিশন আছে সেগুলো কোনো কাল্পনিক কাহিনি নয়৷ মুক্তিযুদ্ধের দলিল অনুসরণ করেই গেমটা তৈরি হয়েছে৷ ১৬টি মিশনের মধ্যে সাতজন বীরশ্রেষ্ঠের সাতটি মিশনও রয়েছে বলেও জানিয়েছেন আরিফ৷

সংকলন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

নির্বাচিত প্রতিবেদন