1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

যুদ্ধাপরাধ, সরকারবিরোধী আন্দোলন আর বিদ্যুৎ সংকট

বাংলাদেশের বিরোধী দলীয় নেত্রী খালেদা জিয়া সরকার বিরোধী আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন, অন্যদিকে বিদ্যুৎ সংকট নিরসনে সার কারখানায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করছে সরকার৷ এরই মাঝে শ্রমিকদের চাকরির বয়স বাড়ানোর বিষয়েও রয়েছে আলোচনা৷

default

খালেদা জিয়া (ফাইল ফটো)

বলছি বাংলাদেশের পত্রিকাগুলোর কথা৷ সোমবারের পত্রিকাগুলোতে ইস্যু অনেক৷ আলোচনাও নানামুখী৷ অন্তত অধিকাংশ সংবাদপত্রের ইন্টারনেট সংস্করণ তাই বলছে৷ যুদ্ধাপরাধের বিচার সংক্রান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে সবাই৷ একটি ভিন্ন ধরণের খবরকে প্রধান প্রতিবেদনের জায়গা দিয়েছে দৈনিক ইত্তেফাক৷ আর তা হলো, শ্রমিকদের চাকরির বয়স বাড়ানো হয়েছে৷ আগে যেখানে তাদের চাকরির বয়স ছিল ৫৭ বছর, এখন তা করা হয়েছে ৬০ বছর৷ পত্রিকাটির ভাষ্য অনুযায়ী, শিল্প, বস্ত্র, পাট, পরিবেশসহ সরকারের বিভিন্ন সংস্থায় কর্মরত শ্রমিকরা এখন থেকে ৬০ বছর পর্যন্ত কাজ করতে পারবেন৷

সরকারবিরোধী আন্দোলন

অবশ্যই, দৈনিক প্রথম আলো, দৈনিক সমকাল, দৈনিক যুগান্তরসহ প্রায় সব পত্রিকাই বিষয়টিকে বেশ গুরুত্ব দিয়ে প্রকাশ করেছে৷ প্রথম আলোর ইন্টারনেট সংস্করণের শিরোনাম, ‘সরকারবিরোধী আন্দোলনের প্রস্তুতি নিতে খালেদার আহ্বান'৷ বুঝতেই পারছেন, বেগম জিয়ার বক্তব্য থেকেই তৈরি হয়েছে এই শিরোনাম৷ খালেদা জিয়ার দাবি, বাংলাদেশে এখন প্রতিদিন ১০ জন করে মানুষ খুন হচ্ছে৷ একইসঙ্গে বিদ্যুৎ, পানি ও গ্যাসের তীব্র সংকট মোকাবিলায় বর্তমান সরকার ব্যর্থ হচ্ছে৷ এরকম নানা কারণ দেখিয়ে সরকার বিরোধী আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন খালেদা জিয়া৷

বিদ্যুৎ সংকট

সরকারের উদ্যোগ তো রয়েছেই৷ গতকালই আমরা আলোচনায় বলেছিলাম দীর্ঘমেয়াদে পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনের চেষ্টা করছে সরকার৷ আজকেও পত্রিকা এবং বার্তামাধ্যমগুলোতে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা দেখা যাচ্ছে৷ বিডিনিউজ টোয়েন্টি ফোর ডট কম তার প্রধান শিরোনামে বলছে, ‘সার কারখানার গ্যাস যাবে বিদ্যুৎকেন্দ্রে'৷ মানে আপাতত বাংলাদেশে সারের উৎপাদন বন্ধ রেখে বিদ্যুৎ উৎপাদনে গ্যাস ব্যবহার করবে সরকার৷ আর এই উৎপাদিত বিদ্যুৎ ব্যবহার করা হবে সেচ কাজে৷ কারণ সেচ কাজের জন্য প্রয়োজনীয় বিদ্যুৎ না পেয়ে কৃষকরা সম্প্রতি বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কার্যালয় ঘেরাও করেছে৷ আর তাই সরকার চাইছে তাদের চাহিদা জরুরী ভিত্তিতে মেটাতে৷ এই খবরটি অন্যান্য পত্রিকাতেও দেখা গেছে৷

প্রতিবেদক: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সংশ্লিষ্ট বিষয়