1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

যিনি হতে পারেন ম্যার্কেলের প্রতিদ্বন্দ্বী

ইউরোপীয় সংসদের সভাপতি মার্টিন শুলৎস জানিয়েছেন, তিনি তৃতীয় মেয়াদ এই দায়িত্বে থাকার চেষ্টা করবেন না৷ তাহলে কি তিনি এবার সামাজিক গণতন্ত্রীদের চ্যান্সেলর প্রার্থী হবেন?

সামাজিক গণতন্ত্রী রাজনীতিক মার্টিন শুলৎস (উপরের ছবিতে যাঁকে দেখা যাচ্ছে) হস্পতিবার ঘোষণা করেন যে, তিনি তাঁর নিজের রাজ্য নর্থরাইন ভেস্টফালিয়াতে ফিরে এখান থেকে বুন্ডেসটাগের সদস্য হবার চেষ্টা করবেন৷ জার্মান সংসদের নিম্নকক্ষের নাম বুন্ডেসটাগ৷

এই সিদ্ধান্ত নেওয়া তাঁর জন্য সহজ হয়নি বলে শুলৎস জানান৷ অপরদিকে শুলৎসের এই সিদ্ধান্তের কথা শুনে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট জঁ-ক্লোদ ইয়ুঙ্কার বলেছেন, তিনি ইউরোপীয় রাজনীতি থেকে শুলৎসের বিদায়ে ‘হতাশ'৷ ইয়ুঙ্কার ইতিপূর্বে এই আশা প্রকাশ করেছিলেন যে, শুলৎস ইউরোপীয় সংসদের সভাপতি পদে আরো কিছুকাল থাকবেন৷

শুলৎস যে ২০১৭ সালের নির্বাচনে চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলের প্রতিদ্বন্দ্বী হতে পারেন, তা নিয়ে জার্মান মিডিয়ায় বেশ কিছুদিন ধরে জল্পনা-কল্পনা চলছে৷ কাজেই জার্মানিতে ব্যাপারটা অংশত প্রত্যাশিতই ছিল৷ শুলৎস নিজে অবশ্য বৃহস্পতিবার ব্রাসেলসে এ বিষয়ে কিছুই বলেননি৷

Deutschland Treffen von Abgeordneten SPD, Linke und Grüne Sigmar Gabriel (picture-alliance/dpa/R. Jensen)

জার্মান ভাইস চ্যান্সেলর জিগমার গাব্রিয়েলের সঙ্গে প্রথমে লড়তে হতে পারে শুলৎসকে

বিশ্লেষকদের মতে ফ্রাঙ্ক-ভাল্টার স্টাইনমায়ার প্রেসিডেন্ট হলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে তাঁর শূন্য স্থান পুরণ করবেন শুলৎস৷ ম্যার্কেল গত রবিবার ঘোষণা করেন যে, তিনি চ্যান্সেলর পদে চতুর্থ কর্মকালের জন্য দাঁড়াবেন৷ ওদিকে সামাজিক গণতন্ত্রীরা এখনও বলে চলেছেন, তাদের চ্যান্সেলর পদপ্রার্থীর নাম জানুয়ারি মাসের শেষে ঘোষণা করা হবে৷

শুলৎস যদি সত্যিই এসপিডি দলের প্রার্থী হতে চান, তবে তাঁকে হয়তো প্রথমে এসপিডি প্রধান ও জার্মান ভাইস চ্যান্সেলর জিগমার গাব্রিয়েলের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে হবে৷ তবে বৃহস্পতিবার প্রকাশিত একটি জরিপের ফলাফলে দেখা যাচ্ছে, জার্মানদের ৪২ শতাংশ মনে করেন শুলৎসই ম্যার্কেলের যোগ্য প্রতিদ্বন্দ্বিী৷ গাব্রিয়েলকে সমর্থন করেন মাত্র ৩৫ শতাংশ৷ এসপিডি সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপারটা আরো স্পষ্ট৷ তাদের ৫৪ শতাংশ শুলৎসকে ম্যার্কেলের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে দেখতে চান; ৪১ শতাংশ চান গাব্রিয়েলকে৷

প্রতিবেদন: কেট ব্র্যাডি/এসি

সম্পাদনা: আশীষ চক্রবর্ত্তী

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়