1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

যা দুষ্প্রাপ্য, তাই কি বিলাস?

লাক্সারি বা বিলাস বলে কাকে? এ এক আর্থ-সামাজিক, দার্শনিক-নান্দনিক প্রশ্ন৷ সমাজ বদলানোর সঙ্গে সঙ্গে নাকি লাক্সারির সংজ্ঞাও বদলে যায়৷

সাদাম্পটন বিশ্ববিদ্যালয়ের জনাথন ফায়ার্স গবেষণা করেন ‘‘লাক্সারি'', অর্থাৎ ‘বিলাস' নিয়ে - বিলাসব্যসন, বিলাসসামগ্রী৷ তিনি ‘‘লাক্সারি'' নামধারী একটি পত্রিকার প্রকাশক – এটিই হল প্রথম পত্রিকা, যা বিলাসব্যসনের নেতিবাচক দিকটি নিয়েও আলোচনা করে থাকে৷ লাক্সারি-র সংজ্ঞাও ক্রমশ বদলে যাচ্ছে৷ যা দুষ্প্রাপ্য, তাই আজ বহুমূল্য৷ ফায়ার্স বলেন, ‘‘ঊনবিংশ শতকে বাড়িতে নিজের বাথরুম থাকাটা চরম বিলাস বলে মনে করা হতো৷ পশ্চিমা বিশ্বে আজ সেটা একটা সামাজিক, এমনকি আইনগত প্রয়োজন৷ কাজেই আমরা দেখতে পাচ্ছি, কালের হিসেবে বিলাসের একটা নিজস্ব টাইম স্কেল আছে৷ কিন্তু কোথায় সেই টাইম স্কেল প্রয়োগ করা হচ্ছে, তার উপর সব কিছু নির্ভর করে৷ পশ্চিমি দুনিয়ায় বিলাস থেকে প্রয়োজনে পরিবর্তন ঘটে খুব তাড়াতাড়ি৷ অন্যান্য দেশে আবার নিত্যপ্রয়োজনীয় বস্তু কালে কালে বিলাস হয়ে দাঁড়ায়৷''

Ausstellung What is Luxury im Victoria & Albert Museum in London EINSCHRÄNKUNG

লন্ডনের ভিক্টোরিয়া অ্যান্ড অ্যালবার্ট মিউজিয়ামে চলছে প্রদর্শনী

যেমন বেঁচে থাকার জন্য প্রয়োজন শুদ্ধ বাতাসের, যা কিনা বিশ্বের বহু অংশে একটা বিলাস হয়ে দাঁড়িয়েছে৷ অথবা শুদ্ধ পানীয় জল কিংবা শিক্ষা কিংবা খাদ্য৷

বিলাসের সংজ্ঞা

লন্ডনের ভিক্টোরিয়া অ্যান্ড অ্যালবার্ট মিউজিয়াম৷ এখানে ‘হোয়াট ইজ লাক্সারি?' অর্থাৎ ‘বিলাস কী?' এই নাম দিয়ে একটি প্রদর্শনী চলেছে৷ মানুষের ডিএনএ পরীক্ষা করতে সমর্থ একটি ভেন্ডিং মেশিন সাবধান করে দিচ্ছে যে, আপনার প্রাইভেসির ক্ষতি হতে পারে – অর্থাৎ ব্যক্তিগত তথ্য একটি বিলাসসামগ্রীতে পরিণত হচ্ছে৷

ভিডিও দেখুন 03:51

পুরোনো স্থাপত্য রক্ষায় অভিনব উদ্যোগ

খনিজ সম্পদ ফুরিয়ে যাচ্ছে, অন্যান্য সম্পদ বিরল হয়ে আসছে৷ যেমন প্লাস্টিকের তৈরি আসবাব একটি বিলাস হয়ে উঠছে, কেননা তা তৈরি করতে খনিজ তেল লাগে৷ বিলাস কী, সে বিষয়ে আমাদের সংজ্ঞা ক্রমেই বদলে যাচ্ছে, কেননা সমাজও ক্রমাগত বদলে চলেছে৷ ফায়ার্স বলেন, ‘‘আমরা এমন একটা পর্যায়ে পৌঁছেছি, যখন ‘লাক্সারি' নামটি দুনিয়ার সর্বত্র – এমন একটা অবস্থা, যে কথাটার আর প্রায় কোনো মানে নেই৷ কিন্তু তবু তা পুরোপুরি উবে যাবে বলে আমি মনে করি না৷ ওটা ভবিষ্যতে আবার ফিরে আসবে, তবে সম্পূর্ণ অন্য মানে নিয়ে৷ সেটা হয়ত কোনো কিছু পাওয়ার পরিবর্তে কোনো কিছু বর্জন, কোনো কিছু খাওয়ার পরিবর্তে কোনো কিছু না খাওয়া হতে পারে!''

তবে এটা ঠিক যে, বিলাস সব সময়ে ঠিক বিলাস হয় না৷ বহু দশক আগে হয়ত এই সব জিনিসের খুব চাহিদা ছিল৷ আজ সেগুলো দুষ্প্রাপ্য হিসেবে অমূল্য হলেও, এগুলোকে আর বিলাসসামগ্রী বলা চলে না, কেননা এগুলো আর কোনো কাজে লাগে না৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও