1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

‘যার মন যেটা চায়, সে সেটা খাবে'

বহু শতাব্দী ধরে বিভিন্ন ধর্মের মানুষের খাবারের উপর, বিশেষ করে মাছ-মাংসের ক্ষেত্রে নানা বিধিনিষেধ চলে আসছে৷ তবে এ যুগে এ রকম বিধিনিষেধ মানতে রাজি নন ডয়চে ভেলের বেশিরভাগ পাঠক৷ সেকথাই তারা তুলে ধরেছেন ফেসবুক পাতায়৷

আধুনিক যুগে খাবার নিয়ে ‘বিধিনিষেধ' একেবারেই অপ্রাসঙ্গিক বলে মনে করেন পাঠক অতনু মন্ডল৷

‘‘সৃষ্টির বিধানে কোনো কিছুই কারো জন্য নিষেধ নাই, যার মন যেটা চায় সে সেটা খেতে পারে'' – বিভিন্ন ধর্মের মানুষের উপর খাবারের বিষয়ে বিধিনিষেধ সম্পর্কে এই মত পোষণ করেন ডয়চে ভেলের ফেসবুক বন্ধু আমিনুল ইসলাম শাইন৷

আর পাঠক বিলাস সুরও অনেকটা আমিনুল ইসলাম শাইনের সাথে সুর মিলিয়ে বলছেন, ‘‘ খাবার নিয়ে বাড়াবাড়ি করাটা ঠিক না, কারো ইচ্ছা থাকলে খাবে, না থাকলে খাবে না৷''

তবে মোহাম্মদ মেহেদি মনে করেন যে, সৃষ্টিকর্তার বিধান একরকম আর মানুষের তৈরি বিধান অন্যরকম, কাজেই এ দু'টোর মধ্যে পার্থক্য থাকবেই৷

এদিকে পাঠক শেখ শিহাব আল মাহমুদ লিখেছেন, বৌদ্ধধর্মে সব ধরনের মাংস, এমনকি মাছ ভক্ষণও নিষিদ্ধ, কেননা, বৌদ্ধরা বিশ্বাস করেন যে, কোনো প্রাণিসত্তার মৃত্যুর জন্য তাদের দায়ী হওয়া উচিৎ নয়৷

আর নিজের রুচিতে যা খাবার যোগ্য সেটাই খাওয়া উচিত বলে বিশ্বাস করেন পাঠক রাজীব ইসলাম৷ তাঁর মতে  ‘‘একজনের কাছে যা আহার্য , আরেকজনের জন্য তা নিষিদ্ধ, কাজেই এ সব ঠুনকো বিষয়ের বিচারে না যেয়ে , নিজের পছন্দ মতোই খাওয়া উচিত৷''

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: আশীষ চক্রবর্ত্তী 

 

নির্বাচিত প্রতিবেদন