1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

যন্ত্রণা থেকে মুক্তি দেবেন

আমার আশা জার্মান চিকিৎসকরা স্মৃতিভ্রষ্ট রোগ নিয়ে গবেষণা করে খুব শীঘ্রই একটি ওষুধ আবিষ্কার করবে৷ এবং সারা পৃথিবীর স্মৃতিভ্রষ্ট রোগীদের দুঃসহ যন্ত্রণা থেকে মুক্তি দেবেন৷ তাপস নাথ, কলকাতা৷

default

ডয়চে ভেলের ওয়েবসাইট কেমন যেন অচেনা হয়ে যাচ্ছে৷ আমি প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে তোমাদের ওয়েবসাইট দেখি আর দেখি আমার মতামত দেওয়া হয়েছে কিনা? মোঃ রাসেল শিকদার, জ্ঞান বিকাশ কেন্দ্র রেডিও ক্লাব, শ্রীনাথদী, কেন্দুয়া, মাদারীপুর৷

আপনাদের ওয়েবসাইটে ফেসবুক খুলে দারুণ বিষয়ে জানলাম৷এখন ফেসবুকে বন্ধুদের সাথে কথা বলতে পারবো৷ সত্যি বলতে কি ফেসবুক সম্পর্কে আমার কোন ধারণা ছিলোনা৷ ডয়চে ভেলের অনুষ্ঠান শুনি বলে ফেসবুকের ব্যবহার শিখলাম৷ মনের কথা ফেসবুকের মাধ্যমে জানতে পারছি৷ আর এর মাধ্যমে আপনাদের অনেকের সাথে ফেসবুক বন্ধু হতে পেরেছি৷ সে কারণেই ফেসবুক আমার বন্ধু৷ কাঞ্চন কুমার চ্যাটার্জী, সাহানগর, মুর্শিদাবাদ৷

কয়েকদিন আগে আপনাদের ওয়েবসাইটে লেখা একটি প্রতিবেদন ছিলো, ‘‘ফেসবুকে যোগ হচ্ছে ফোন কল সুবিধা''৷ আমাদের দাবি, শ্রোতাবন্ধুদের সাথে ইন্টারনেট ফোন কলের মাধ্যমে কথা বলতে হবে৷ আমাদের ভালো মন্দ সব কথাই শুনতে হবে ডয়চে ভেলেকে৷ যদিও আমার মনে হয়না আমরা যারা ডয়চে ভেলের জন্মলগ্নের সাক্ষী, আপনাদের বিরুদ্ধে কোন কথা বলবো৷ তাহলে তো কবেই আপনাদের টা- টা বাই বাই বলে চলে যেতাম, তাইনা? দীপক কুমার, এন এইচ পী সী লিমিটেড, সিকিম৷

জার্মান উদ্যান মেলা নিয়ে প্রতিবেদন ভালো লাগলো৷ সত্য সাঁই বাবার সম্পর্কে প্রতিবেদন থাকলে ভালো হতো৷ দেশমাতৃকাপ্রসাদ ও মাম্পী রায়, পাইকর, বীরভূম৷

সারা বিশ্বের মধ্যে ডয়চে ভেলে খুবই প্রয়োজনীয় একটি চ্যানেল, আমরা ডয়চে ভেলেকে অত্যন্ত ভালোবাসি৷ ডয়চে ভেলে দীর্ঘজীবী হোক৷ সাগর, বাংলাদেশ৷

বিশেষ ধাঁধার ফলাফলে আমরা খুশি৷ যদিও অনেকে খুশি হতে পারেনি পুরস্কার পায়নি বলে৷ আমি মনে করি ডয়চে ভেলে সবসময় সকল মতভেদের ঊর্ধ্বে অবস্থান করে৷ খালিদ হাসান, আজমপুর, কুষ্টিয়া৷

ডয়চে ভেলের সকল বন্ধুদের জানাই পাকা আমের মৌ মৌ মিষ্টি সুবাসের শুভেচ্ছা৷ আশা করি সবাই ভালো আছেন৷ সময়ের অভাবে নিয়মিত ডয়চে ভেলের বাংলা অনুষ্ঠান শুনতে এবং ইনবক্স-এ লিখতে পারছিনা তাই আন্তরিকভাবে দুঃখিত৷ নিয়মিত ওয়েবসাইট দেখা কিন্তু থেমে নেই৷ আমি প্রতিদিন প্রায় দুই ঘন্টা ট্রেনে যাতায়াত করি এবং আপনাদের ওয়েবসাইট দেখে কাটাই ও উপভোগ করি৷ ডয়চে ভেলের ফেসবুকের পাতায় কোন চলতি ঘটনা দেখিনা৷ ডয়চে ভেলে ফেসবুকে স্ট্যাটাসে কমেন্টের প্রেক্ষিতে কোন কমেন্ট করেনা অর্থাৎ কমেন্ট দেওয়া পর্যন্তই শেষ৷ আর হ্যাঁ আমরা যারা ওয়েবসাইট দেখি তাদের মধ্যে শতকরা প্রায় সত্তরভাগই মোবাইল ব্যবহারকারী৷ তাই বিশেষ অনুরোধ যে, প্রতিদিনের অনুষ্ঠান যেন আংশিকভাবে এ এম আর অডিও ফরম্যাটে ওয়েবসাইটে রাখা হয় যেন আমরা পরে সময় করে শুনে নিতে পারি৷ মীর রাসেল, সার্চিং নলেজ রেডিও ক্লাব, বাউশা, বাঘা, রাজশাহী৷

আজ আপনাদের ওয়েবসাইটে, ‘‘নদী নিয়ে প্রথম ওয়েবসাইট বাংলাদেশে'' শিরোনামে একটি ওয়েবসাইট রিভিউ পড়ে খুব ভালো লাগলো৷ বিডিফিশ বাংলা সাইটটি প্রায় এক বছর যাবত বাংলাদেশের ফিশারিজ বিষয়ক তথ্য প্রকাশ করে আসছে যা, এ বিষয়ে আগ্রহীদের মাঝে নতুন নতুন তথ্য শেয়ারের একটি কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে৷ আমাদের এই উদ্যোগের সাথে বেশি সংখ্যক মানুষের সংযোগ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে আপনাদের সাইটে বিডিফিশ বাংলা সাইটের একটি রিভিউ প্রকাশের জন্য অনুরোধ করছি৷ এবিএম মহসিন, বিডিফিশ টিম, বাংলাদেশ৷

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: আবদুল্লাহ আল- ফারূক