1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

যদি বলতেন ‘অমুককে প্রধানমন্ত্রী চাই না’!

নোবেলজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসের সাম্প্রতিক কিছু মন্তব্য নিয়ে ফেসবুক আর ব্লগে এখন চলছে তুমুল আলোচনা, বিতর্ক৷ কদিন ধরে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সংগঠনের সদস্যরা তাঁর সঙ্গে দেখা করতে গেলে তিনি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের পক্ষে কথা বলেন৷

কাইমুল হক তার ফেসবুক স্ট্যাটাসের শুরুতে ড. ইউনূস সম্পর্কে তার পূর্ববর্তী ভাল লাগার কথা জানালেও এখন তাঁকে একটা রাজনৈতিক অ্যালার্জি ছাড়া আর কিছু মনে হচ্ছে না বলে মন্তব্য করেন৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘নোবেল বিজয়ী ড. ইউনূসকে অনেক শ্রদ্ধা করতাম৷ তাঁর বিরুদ্ধে অযাচিত ব্যষ্টিক/সমষ্টিক সমালোচনা দেখে আহত হতাম৷ তাঁর প্রতি একটা সম্মোহনী ফিলিংস কাজ করতো৷ ভাবতাম, আওয়ামী লীগ বীতশ্রদ্ধ হয়ে ইউনূসকে ধ্বংস করে দিতে চাইছে! কিন্তু এখন আর ইউনূস সাহেবের প্রতি ফিলিংস কাজ করছে না৷ এখন নিম্নমানের একজন রাজনীতিকের সাথে তাঁর পার্থক্য খুঁজে পাচ্ছি না৷ তিনি প্রতিশোধ পরায়ণ, তিনি একই কাতারের৷ তাঁর ভিন্ন কোনো উচ্চতা খুঁজে পাচ্ছি না এখন৷''

কাইমুলের এই স্ট্যাটাসের নীচে মাহি মুরশেজ লিখেছেন, ‘‘আওয়ামী লিগ সরকার গ্রামীণ ব্যাংক এবং ইউনূস সাহেবকে নিয়ে নির্লজ্জের মতো যা করেছে তাতে ইউনূস সাহেব লীগের সমালোচনা করবেন এটাই স্বাভাবিক নয় কি? সমালোচনা করার মতো কম সে কম এক লক্ষ কারণও রয়েছে৷ আর লীগের সমালোচনা করা মানেই বিএনপির পক্ষ নেওয়া নাও হতে পারে৷''

এদিকে, সামহয়্যার ইন ব্লগে ছৈয়দ সালাহউদ্দীন লিখেছেন, ‘‘আওয়ামী লীগের উপর ড. ইউনূসের মনে কত ক্ষোভ ছিল তা যতই নির্বাচনী সময় ঘনিয়ে আসতেছে ততই পরিষ্কার হচ্ছে, দিন দিন আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে মারাত্মক হিংসাত্মক আর প্রতিশোধমূলক আচরণ করতে শুরু করেছেন৷ এখন ইউনূস সাহেব রাজনৈতিক বক্তব্য বাদ দিয়ে রীতিমত উসকানিমূলক মন্তব্য করতে শুরু করেছেন, তিনি আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে বিএনপি জামাতের চেয়ে বহুগুণ বেশি হিংসাত্মক আর প্রতিশোধ পরায়ণ আচরণ শুরু করেছেন৷''

‘বাঙ্গাল' ফেসবুকে লিখেছেন, অমর্ত্য সেন বলেছিলেন তিনি নরেন্দ্র মোদীকে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দেখতে চান না৷ তাঁর ঐ কথার প্রেক্ষিতে ভারতের অনেক সুশীল ব্যক্তি অমর্ত্য সেনের সমালোচনা করেছিলেন৷ ‘‘এদিকে আমাদের নোবেল লরিয়েট যে নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক চাচ্ছেন সেটিই সহ্য হচ্ছে না... যেন নিরপেক্ষ মানেই বিরোধী দলের বোনজামাই৷ প্রতিহিংসার বশেও যদি ইউনূস সাহেব বলেন ‘অমুককে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চাই না' তাহলে কী হতো ভাবছি৷ এমন বলার অধিকার তিনি রাখেন৷ তাই না?''

এই স্ট্যাটাসের নীচে মন্তব্য সেকশনে শুভজিৎ বোস লিখেছেন, ‘‘বলার অধিকার রাখেন তিনি৷ কিন্তু তত্ত্বাবধায়ক নিয়ে ২০০৬'এ কি বলসিল সেটা জাইনা তারপর তার সাপোর্টে লেখাটা লিখলে ভালো হইত৷ পোশাক পরে নগ্নতা না করে পোশাক খুলেই করতে বলেন৷''

সংকলন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

নির্বাচিত প্রতিবেদন