1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ম্যাথিউর আঘাতে হাইতিতে নিহতের সংখ্যা বাড়ছে

হ্যারিকেন ম্যাথিউ সবচেয়ে বেশি আঘাত হেনেছে হাইতিতে৷ সেখানে এখন পর্যন্ত কমপক্ষে ৩৩৯ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে এবং সংখ্যাটি বাড়ছে৷ স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা কলেরার বিস্তার লাভের আশংকা করছেন৷

Haiti Hurrikan Matthew Zerstörung (Reuters/C.G. Rawlins)

জেরেমি শহরের প্রায় ৮০ শতাংশ ‘সম্পূর্ণ ধ্বংস’ হয়ে গেছে

হ্যারিকেনের বেশি প্রভাব পড়েছে হাইতির দক্ষিণাঞ্চলে৷ সেখানে ২৯ হাজারেরও বেশি বাড়ি ধ্বংস হয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন সেখানকার স্থানীয় কর্মকর্তারা৷ প্রায় ২০ হাজার মানুষ গৃহহীন হয়েছেন৷ জেরেমি শহরের প্রায় ৮০ শতাংশ ‘সম্পূর্ণ ধ্বংস’ হয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন বিভিন্ন ত্রাণ সংগঠনের কর্মকর্তারা৷

হাইতির কর্মকর্তারা নিহতের সংখ্যা বাড়ার আশংকা করছেন৷ তাঁরা বলছেন, নিহতদের অনেকে মাথার উপর গাছ ভেঙে পড়ে প্রাণ হারিয়েছেন৷ অনেকে উড়ে বেড়ানো ধ্বংসস্তূপের উপাদানের আঘাতে নিহত হয়েছেন৷

জার্মান নাগরিক ডরিস ভাসমায়ার হাইতির রাজধানী থেকে বার্তা সংস্থা ডিপিএ'কে জানিয়েছেন, ‘‘হ্যারিকেনের কারণে বাড়ির ছাদ উড়ে গেছে, বিদ্যুতের লাইন পড়ে গেছে, অনেক মানুষ গির্জা ও স্কুলে গিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন৷'' ২০১০ সালে হাইতিতে ভূমিকম্পের পর সেখানে ত্রাণকর্মী হিসেবে কাজ করেছিলেন ভাসমায়ার৷ ঐ ভূমিকম্পে লক্ষাধিক মানুষের মৃত্যু হয়৷ তিনি বলেন, ‘‘হাইতির দক্ষিণাঞ্চলের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে৷ ফলে সেখানকার আসল পরিস্থিতি এখনও বোঝা যাচ্ছে না৷''

ভিডিও দেখুন 01:41

এদিকে, রবিবার হাইতিতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল৷ ম্যাথিউ আঘাত হানায় নির্বাচন বাতিল করা হয়েছে৷ নতুন তারিখ পরে জানানো হবে৷

ম্যাথিউর কারণে বিভিন্ন স্থানে বন্যার মতো পানি জমে যাওয়ায় এবং পয়নিস্কাশন ব্যবস্থা ভেঙে পড়ায় জাতিসংঘের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা দুর্গত এলাকায় কলেরা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করছেন৷

সহায়তার আবেদন

আন্তর্জাতিক রেডক্রস হাইতির জন্য জরুরি সহায়তা হিসেবে ৬.৯ মিলিয়ন ডলারের আবেদন করেছে৷ আহতদের চিকিৎসা সেবা দেয়া, আশ্রয়ের ব্যবস্থা করা, পানি ও পয়নিস্কাশনের ব্যবস্থা করতে এই অর্থ ব্যয় করা হবে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি৷

এদিকে, ম্যাথিউ কবলিত হাইতির শিশুদের জরুরি সহায়তা দিতে ৫ মিলিয়ন ডলারের সহায়তা চেয়েছে ইউনিসেফ৷

বিশ্ব খাদ্য সংস্থা জানিয়েছে, তাদের কাছে তিন লক্ষ মানুষের এক মাসের জন্য যে পরিমাণ খাবার প্রয়োজন, তা আছে৷

জেডএইচ/এসিবি (রয়টার্স, এপি, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়