1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগে আটক ১৪

ইন্টারপোলের নির্দেশে আন্তর্জাতিক অপরাধ চক্রের সদস্য সন্দেহে ড্যান ট্যান সহ ১৪ জনকে সিঙ্গাপুরে আটক করেছে পুলিশ৷ ইউরোপ সহ বিশ্বের অনেক অঞ্চলে ফুটবল ম্যাচের ফলাফল বদলানোর অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে৷

ফুটবল মাঠে দুর্নীতি নতুন বিষয় নয়৷ ‘ম্যাচ ফিক্সিং'-এর ঘটনা ফাঁস হয়ে গেলে মানুষ এ সব বিষয় জানতে পারে৷ চুনোপুঁটিরা অনেক সময়ে ধরা পড়লেও রাঘব-বোয়ালরা ধরাছোঁয়ার বাইরেই থেকে যায়৷ কিন্তু এবার সিঙ্গাপুরের পুলিশ দাবি, তারা এমনই এক দুষ্টচক্রের চাঁইকে গ্রেপ্তার করেছে৷ সেই ব্যক্তির নাম ড্যান ট্যান, পুরো নাম ট্যান সিট এং৷ পেশায় ব্যবসায়ী৷ পুলিশের অভিযোগ, গোটা বিশ্বে ম্যাচ ফিক্সিং সিন্ডিকেট-এর গুরুত্বপূর্ণ নেতা এই ব্যক্তি৷ তার উপর সিঙ্গাপুর এই সিন্ডিকেটের অন্যতম ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত৷ সে দেশের পুলিশ অবশ্য বলেছে, ম্যাচ ফিক্সিং চক্রের বিরুদ্ধে সংগ্রামকে যথেষ্ট গুরুত্ব দেয়া হয়৷ উইলসন রাজ পেরুমল ও এরিক ডিং সি ইয়াং নামের আরও দুই চাঁইয়ের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিয়েছে তারা৷

Fußball WM-Qualifikation Nordirland Portugal

ফুটবল মাঠে দুর্নীতি নতুন বিষয় নয়

ইন্টারপোলের মহাসচিব রোনাল্ড নোবল স্বয়ং সিঙ্গাপুর পুলিশকে ফোন করে ট্যানকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ দিয়েছিলেন৷ ইটালির কর্তৃপক্ষ তার খোঁজ করছিল৷ তিনটি দেশে ৩২টি ম্যাচ ফিক্সিং-এর অভিযোগে হাঙ্গেরির পুলিশও ট্যান-কে দায়ী করছে৷ বৃহস্পতিবার প্রায় ১২ ঘণ্টার অভিযানে মোট ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, যাদের মধ্যে দুজন নারী৷ ইন্টারপোল জানিয়েছে, তারা সবাই সিঙ্গাপুরের নাগরিক৷ নয়জন আপাতত জামিন পেয়েছেন, বাকিদের রেহাই নেই৷ দেশের আইন অনুযায়ী এমন অভিযুক্তদের বিচার ছাড়াও এক বছর পর্যন্ত আটক রাখা সম্ভব৷ আটক ব্যক্তিদের মধ্যে ছয়জনের বিরুদ্ধে ইউরোপে তদন্ত চলছে৷

ম্যাচ ফিক্সিং সিন্ডিকেট-এর বিরুদ্ধে বিশ্বজুড়ে অভিযান চালাচ্ছে ইন্টারপোল৷ পাঁচটি দেশে তদন্ত চালিয়ে ৩৮০টি ম্যাচকে ঘিরে সন্দেহ দেখা দিয়েছিল৷ অনেক খেলোয়াড়, রেফারি, ফুটবল কর্মকর্তা তাতে জড়িত ছিলেন, এমনটা ভাবার কারণ রয়েছে৷ ফেব্রুয়ারি মাস থেকে চলা এই তদন্তেও সিঙ্গাপুরের দুষ্টচক্রের ভূমিকা স্পষ্ট হয়ে যায়৷

আন্তর্জাতিক ফুটবল সংগঠন ফিফা সিঙ্গাপুরের পুলিশের এই সাফল্যকে স্বাগত জানিয়েছে৷ ম্যাচ ফিক্সিং-এর জন্য দায়ী ব্যক্তিদের বিচারের আওতায় আনতে বিরুদ্ধে কর্তৃপক্ষের সব পদক্ষেপ জরুরি বলে মনে করে ফিফা৷

এসবি/ডিজি (এএফপি, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন