1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মোল্লা বারাদর সত্যিই আটক: পাকিস্তান সেনাবাহিনী

আফগান তালেবান গোষ্ঠীর শীর্ষ সামরিক কমান্ডার মোল্লা আব্দুল গনি বারাদর-এর আটক হবার খবর এবার খোদ পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীও স্বীকার করেছে৷ পাকিস্তানের বন্দর নগরী করাচিতে পাকিস্তানি ও মার্কিন এজেন্টদের যৌথ হানায় তাকে ধরা হয়৷

default

ইনিই কি মোল্লা ওমার? মোল্লা বারাদর নাকি এবার ধরা পড়েছেন

আফগানিস্তানে মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক অভিযানের পর থেকে বারাদরই তালেবানের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নেতা যাকে গ্রেপ্তার করা হল৷ ইসলামাবাদে পাকিস্তান সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয়, পরিচয় শনাক্ত করার বিশদ কার্যক্রম শেষে এটা নিশ্চিত করা গেছে যে, গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিদের একজন হলেন মোল্লা বারাদর৷

ধৃত ব্যক্তি সত্যিই বারাদর কিনা এই প্রশ্নের জবাবে পাকিস্তান সামরিক বাহিনীর মেজর জেনারেল আতহার আব্বাস ডয়চে ভেলেকে জানান: ‘‘এব্যাপারে আমি নিশ্চিত৷ যাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাদের সঠিক পরিচয় শনাক্ত করার প্রক্রিয়া শেষে আমরা নিশ্চিত হয়েছি যে তাদের একজন হলেন মোল্লা বারাদর৷ এবং তিনি এখন আটক আছেন৷''

তবে নিরাপত্তার কারণে কোথায় তাকে ধরা হয় সে সম্পর্কে অথবা এই গ্রেপ্তারির ঘটনা সম্পর্কে বিশদ আর কিছু তথ্য দেয়া হয় নি৷ এই গুরুত্বপূর্ণ গ্রেপ্তারির ঘটনা ঘটল এমন এক সময় যখন আফগানিস্তানে মার্কিন বাহিনী তালেবান জঙ্গিদের বিরুদ্ধে ন্যাটো জোটের বৃহত্তম এক আক্রমণ অভিযানে নেতৃত্ব দিচ্ছে৷ এবং এই অভিযানকে আফগানিস্তানে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সৈন্যসংখ্যা বৃদ্ধির কৌশলের জন্য প্রাথমিক এক পরীক্ষা হিসেবেই দেখা হচ্ছে৷

বিভিন্ন বার্তা সংস্থা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মার্কিন কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, যে যৌথ অভিযানে মোল্লা বারাদর ধরা পড়েন তা চালিয়েছিল পাকিস্তানের সামরিক গোয়েন্দা দপ্তর আইএসআই এবং মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ-র সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্মীরা৷ দীর্ঘদিন ধরেই মার্কিন মহলে এমন একটা ধারণা জোর পাচ্ছিল যে তালেবানবিরোধী লড়াই-এ পাকিস্তান যেন খুব বেশি উদ্যোগী হচ্ছেনা৷ কিন্তু মোল্লা বারাদরকে ধরতে সিআইএ-র সঙ্গে যৌথ অভিযানে অংশ নেয়ার ব্যাপারে আইএসআই-এর সিদ্ধান্তে খুশি মার্কিন কর্মকর্তরা৷ তবে এই সহযোগিতা কোথায় গিয়ে পৌঁছয় তা দেখতে চান তাঁরা৷

মোল্লা বারাদরকে দীর্ঘদিন ধরেই ধরার চেষ্টা করছিল মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলো৷ এই যৌথ অভিযানে সেই লক্ষ্য অর্জিত হল৷ মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগনের কর্মকর্তা লাপান বলেছেন, অতীতের সমস্যা সত্ত্বেও পাকিস্তানের সঙ্গে সহযোগিতা ভাল এবং তার উন্নতি হচ্ছে৷

ইন্টারপোলের তথ্য অনুযায়ী, ৪২ বছর বয়স্ক তালেবান সামরিক কমান্ডার মোল্লা বারাদর ২০০৭ সালের মে মাস পর্যন্ত পাকিস্তানের কোয়েটাভিত্তিক তালেবান গোষ্ঠীর সক্রিয় সদস্য ছিলেন৷ তাঁর জন্ম আফগানিস্তানের উরুজগান প্রদেশে৷

প্রতিবেদক: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সম্পাদনা: আবদুস সাত্তার

সংশ্লিষ্ট বিষয়