1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মে দিবসে কয়েকটি দেশে বিক্ষোভ-সংঘর্ষ

বিশ্বের নানা দেশে যথাযোগ্য মর্যাদার সাথে আন্তর্জাতিক মে দিবস পালিত হচ্ছে৷ তবে তুরস্কে কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে চলছে বিক্ষোভ৷ জাপান ও কম্বোডিয়াতেও ঘটেছে সংঘর্ষের ঘটনা৷

১৮৮৬ সালের ১লা মে যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহরে হে মার্কেটের সামনে দৈনিক কাজের সময় আট ঘণ্টার দাবিতে হাজারো শ্রমিক জড়ো হয়েছিলেন৷ মার্কিন পুলিশ তাঁদের ঘিরে রাখে৷ এক পর্যায়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে হঠাৎ বোমা ছোড়েন কেউ একজন৷ বোমা নিক্ষেপের ফলে কিছু পুলিশ হতাহতও হয়৷ এ সময় অন্যান্য পুলিশ শ্রমিকদের উপর অতর্কিত গুলিবর্ষণ শুরু করে৷ আর ১০-১২ জন নিরীহ শ্রমিক সেখানেই মারা যান৷

১৮৮৯ সালে ফরাসি বিপ্লবের শতবার্ষিকীতে প্যারিসে দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক কংগ্রেস অনুষ্ঠিত হয়৷ সেখানে ১৮৯০ সাল থেকে শিকাগো প্রতিবাদের বার্ষিকী আন্তর্জাতিকভাবে বিভিন্ন দেশে পালনের প্রস্তাব করেন রেমন্ড লাভিনে৷ ১৮৯১ সালে এই প্রস্তাব আনুষ্ঠানিকভাবে গৃহীত হয়৷

তখন থেকেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শ্রমজীবী মানুষ মে মাসের ১লা তারিখকে সরকারি ছুটির দিন হিসাবে পালনের দাবি জানায় এবং অনেক দেশে এটা কার্যকরও করা হয়৷ বাংলাদেশ এবং ভারতেও এই দিনটি যথাযথভাবে পালিত হয়ে আসছে৷ বিশ্বের বেশিরভাগ দেশের শ্রমজীবী মানুষ এবং শ্রমিক সংগঠনগুলো রাজপথে সংগঠিতভাবে মিছিল ও শোভাযাত্রার মাধ্যমে দিবসটি পালন করে থাকে৷ বর্তামানে বিশ্বের প্রায় ৮০টি দেশে ‘পহেলা মে' জাতীয় ছুটির দিন হিসেবে ধার্য্য করা হয়েছে৷

Istanbul Türkei 1. Mai Demonstration

ইস্তানবুলের তাকসিম স্কয়ারে অন্তত ৪০ হাজার মানুষ সরকারবিরোধী বিক্ষোভে অংশ নেয়

বৃহস্পতিবার জাপানের টোকিও শহরে হাজারো মানুষ মে দিবসের মিছিলে অংশ নেন৷ কর্ম পরিবেশের উন্নয়ন এবং প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে-র অর্থনৈতিক নীতির প্রতিবাদ জানান তাঁরা৷

এদিকে, মে দিবস উপলক্ষ্যে ইস্তানবুলের তাকসিম স্কয়ারে অন্তত ৪০ হাজার মানুষ সরকারবিরোধী বিক্ষোভে অংশ নেয়৷ তুরস্ক সরকার তাকসিম স্কয়ারে শ্রমিকদের সবধরনের সভা-সমাবেশ, মিছিল নিষিদ্ধ করেছে, যার প্রতিবাদ জানান তাঁরা৷ মার্চে নির্বাচন অনুষ্ঠানের পর এই প্রথম এত বড় সমাবেশ হল তুরস্কে৷ তিন দশক ধরে একটানা তাকসিম স্কয়ারে শ্রমিকদের সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ ছিল, ২০১০ সালে তা উঠিয়ে নেয়া হলেও গত বছর আবার জারি করা হয়৷

কম্বোডিয়ার রাজধানী নমপেনে মে দিবসের শোভাযাত্রায় পুলিশ লাঠিচার্জ করেছে বলে জানা গেছে৷ শ্রমিকরা সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করায় পুলিশ তাঁদের উপর হামলা চালায়৷ কম্বোডিয়ায় জানুয়ারি থেকে সব ধরনের বিক্ষোভ সমাবেশের উপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে৷ অন্তত এক হাজার শ্রমিক বৃহস্পতিবার ঐ শোভাযাত্রায় অংশ নেন৷

অন্যদিকে হংকং-এ পাঁচ হাজার মানুষ শ্রম দিবসের শোভাযাত্রায় অংশ নিয়েছে৷ এছাড়া ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তা, মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর, সিঙ্গাপুর, তাইপেই এবং দক্ষিণ কোরিয়ার সৌলে শান্তিপূর্ণভাবে শ্রম দিবস পালিত হচ্ছে বলে খবর৷

এপিবি/ডিজি (এপি, এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন