1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

মেধা পাচার রোধে মালয়েশিয়ার উদ্যোগ

দক্ষ জনশক্তিকে দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চালাচ্ছে মালয়েশিয়া৷ পাশাপাশি চাইছে বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর মানুষদের কাজের বাজারে সম্পৃক্ত করতে৷ আর এভাবেই অর্থনীতিকে আরও জোরালো করার পরিকল্পনা নিয়েছে দেশটির সরকার৷

default

দেশের মেধা পাচার বন্ধে দৃঢ়প্রতীজ্ঞ মালয়েশিয়ার নেতারা

বিভিন্ন নাগরিক সুযোগ-সুবিধা, পরিবার, বন্ধুবান্ধব এবং মালয়েশিয়ার মজার মজার খাবার থাকা সত্ত্বেও এডওয়ার্ড লেয়ং মনে করেন, বারো বছর আগে সপরিবারে নিউজিল্যান্ডে যাওয়াটা ছিল তাঁর জীবনের সবচেয়ে ভালো সিদ্ধান্ত৷

এডওয়ার্ডের বয়স চুয়ান্ন বছর৷ অকল্যান্ডে জমিজমা সম্পর্কিত উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করছেন৷ উন্নত জীবনযাত্রা, ভালো সুযোগ-সুবিধা এবং সন্তানদের উচ্চশিক্ষা – এইসব বিষয়কে মাথায় রেখে বিদেশে থাকাটাই ভালো মনে করেন৷ তাঁর মতো এমন মালয়েশীয় বংশোদ্ভূত মানুষের সংখ্যা দিনদিন বাড়ছে, যারা ইতোমধ্যে অন্যান্য দেশে চলে গেছেন অথবা বিদেশে যাওয়ার জন্য বিভিন্নভাবে চেষ্টা করছেন৷

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার তৃতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ মালয়েশিয়া৷ জনসংখ্যা ২ কোটি ৮০ লাখ৷ এই জাতি ২০২০ সালের মধ্যে নিজেদের উন্নত জাতি হিসেবে গড়ে তুলতে চায়৷ কিন্তু সেই লক্ষ্যে পৌঁছতে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে জনবলের ঘাটতি৷

মালয়েশিয়ার জাতীয় অর্থনৈতিক উপদেষ্টা পরিষদের গত বছরের প্রতিবেদনে দেখা গেছে, দেশটির সাড়ে ৩ লাখ মানুষ বিদেশে কাজ করছেন৷ আর তাঁদের মধ্যে রয়েছেন দেশটির অর্ধেকের বেশি বিশ্ববিদ্যালয় স্নাতক৷

তবে শ্রমশক্তি নিয়ে কাজ করেন এমন কিছু প্রতিষ্ঠান মনে করছে, এই সংখ্যা আরও বেশি৷ এমনকি এই সংখ্যা সহজেই ১০ লাখ ছাড়িয়ে যেতে পারে৷ এবং হাজার হাজার মালয়েশিয়ান প্রতি বছর দেশত্যাগ করছেন৷ সরকারি পরিসংখ্যানে পাশ্ববর্তী দেশ সিঙ্গাপুরে ৪০ শতাংশ, অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাষ্ট্র ও নিউজিল্যান্ডে ৩০ শতাংশ এবং বাকিরা অন্যান্য দেশের অভিবাসী হয়েছেন৷

এই অবস্থায় মেধা পাচার রোধে উদ্যোগ নিয়েছে সরকার৷ প্রধানমন্ত্রী নজিব রাজাক গঠন করেছেন ‘ট্যালেন্ট কর্পোরেশন' – যার মাধ্যমে দক্ষ জনশক্তিকে দেশে ফিরিয়ে আনার পাশাপাশি বিদেশি পেশাজীবীদেরও আকর্ষণ করার চেষ্টা করা হচ্ছে৷

সম্প্রতি কুয়ালালামপুরে বিনিয়োগকারীদের একটি সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, মালয়েশিয়ার নাগরিকরা যদি আবার দেশে ফিরে আসেন তাঁদের আয়কর ১৫ শতাংশের বেশি করা হবে না এবং যারা তাঁদের নাগরিকত্ব হারিয়েছেন তাঁদেরকে ‘রেসিডেন্ট পাস' দেওয়া হবে৷ এছাড়া বিদেশি দক্ষ নাগরিকদেরও এই পাস দেওয়া হবে যাতে তারা এখানে এসে কাজ করতে পারেন৷ সরকারের এই উদ্যোগের মধ্য দিয়ে মালয়েশিয়ার অনেক মানুষ আবার দেশে ফিরে আসবেন এবং তাঁদের পেশাগত অভিজ্ঞতা দিয়ে দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবেন বলে মনে করছেন প্রধানমন্ত্রী৷

প্রতিবেদন: জান্নাতুল ফেরদৌস

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন