1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মেক্সিকো উপসাগরে তেল দুর্ঘটনার এক বছর পূর্তি

মেক্সিকো উপসাগরে তেল দুর্ঘটনার কথা সহজে ভুলবার নয়৷ কারণ গত বছর প্রায় তিনমাস ধরে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে বেশ আলোচিত ঘটনা ছিল এটি৷ আজ যার এক বছর পূর্তি হলো৷

default

কুখ্যাত তেলের রিগ ‘ডিপওয়াটার হরাইজন'

ব্রিটিশ কোম্পানি বিপির তেলের রিগ ‘ডিপওয়াটার হরাইজন'৷ গত বছর এই দিনে সেটাতে একটি বিস্ফোরণ ঘটে৷ তা থেকে দুর্ঘটনার শুরু৷ ফলে প্রাণ হারায় ১১ জন৷ আর প্রায় ৫০ লক্ষ ব্যারেল তেল সাগরে ছড়িয়ে পড়ে৷

যদিও শুরু থেকেই বিপি চেষ্টা করেছিল তেল ছড়িয়ে পড়া রুখতে৷ শেষ পর্যন্ত তিনমাস পর তারা সফল হয়৷ তবে এরই মধ্যে ছড়িয়ে পড়া তেলের কারণে মেক্সিকো উপসাগরের আশেপাশের এলাকার পরিবেশ দূষিত হয়ে ওঠে৷ বিশেষ করে মারাত্মক প্রভাব পড়ে মৎস সম্পদ ও জীববৈচিত্র্যের ওপর৷

Flash-Galerie Ölpest am Golf von Mexiko

ভাসমান তেল প্রাণিজগতের জন্য বড় হুমকি

ফলে ক্ষতিগ্রস্তরা বিপির কাছে ক্ষতিপূরণ দাবি করে৷ আর এগুলো মেটাতে প্রায় ২০ বিলিয়ন ডলারের একটি তহবিল গঠন করে বিপি৷ এখন পর্যন্ত ১৭৭,০০০ মানুষকে ক্ষতিপূরণ হিসেবে প্রায় ৪ বিলিয়ন ডলার দেয়া হয়েছে৷ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে প্রায় ৭৯,০০০ জনের দাবি৷ আর ৪৩,০০০ জনকে ক্ষতিপূরণের যোগ্যতা প্রমাণের জন্য আরও কাগজপত্র জমা দিতে বলা হয়েছে৷ এতে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেছেন অনেকে৷ কেউ কেউ এর সমালোচনাও করেছেন৷

তবে সবাই যে বিপি'র পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার বিরুদ্ধে কথা বলছেন তা নয়৷ অনেকেই আছেন যারা দুর্ঘটনা পরবর্তী পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযানে কাজ করেছেন৷ এবং এজন্য তারা মোটা অংকের অর্থও পেয়েছেন৷ কারণ এ কাজে বিপি প্রায় সাড়ে ১৩ বিলিয়ন অর্থ ব্যয় করেছে৷

এদিকে তেল দুর্ঘটনার পর বিপির নেয়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে৷ ফলে বিশ্বব্যাপী বিপির সুনাম ক্ষতগ্রস্ত হয়৷ কিন্তু দুর্ঘটনার সময় থেকে এখন বিপি আরও নিরাপদ কোম্পানি বলে দাবি করেছেন কোম্পানির চেয়ারম্যান কার্ল-হেনরিক ফানবেয়ার্গ৷ সুইডেনের একটি পত্রিকাকে তিনি বলেছেন, ঐ দুর্ঘটনা থেকে তারা অনেক কিছু শিখেছেন৷ এবং সেজন্য বর্তমানে কাজ করতে গিয়ে তারা আগের চেয়েও কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করছেন৷

এদিকে দুর্ঘটনার পর টনক নড়েছে মার্কিন সরকারেরও৷ প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেছেন, মেক্সিকো উপসাগরের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে যা করার দরকার সবই তিনি করবেন৷ আর দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, তারা তেলকূপ খননের নীতিমালা আরও কঠোর করার প্রস্তাব দেবেন৷

মন্ত্রণালয়ের ‘সাগর ব্যবস্থাপনা' বিভাগের প্রধান মাইকেল ব্রোনউইচ বলেছেন তাদের প্রস্তাবনার

প্রধান লক্ষ্য হবে বিপি'র মতো আরেকটি দুর্ঘটনা প্রতিহত করা৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়