1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

মূত্র দিয়ে মোবাইল ফোন চার্জ!

প্রস্রাব বা মূত্রকে বোধ হয় আর ঘেন্না করা ঠিক হবে না৷ কারণ অদূর ভবিষ্যতে হয়ত আমার-আপনার অতি প্রয়োজনীয় মোবাইল ফোন বা অন্য যে কোনো ইলেকট্রিক গেজেট চার্জ করতে দরকার পড়বে মূত্রের৷ যুক্তরাজ্যের বিজ্ঞানীরা এমন কথাই বলছেন৷

ARCHIV - Eine Schülerin hält während einer Pause in der Mittelschule St. Nikola in Passau (Niederbayern) ein Telefon in der Hand, aufgenommen am 01.02.2012. Braunschweiger Schüler wollen am 15.04.2013 für eine Woche ihre Smartphones abgeben. Sie wollen testen, wie sich ihr Leben dadurch verändert. Foto: Armin Weigel/ dpa +++(c) dpa - Bildfunk+++

Schülerin mit Telefon

হ্যাঁ, ব্রিটেনের ব্রিস্টল ইউনিভার্সিটি আর রোবোটিক ল্যাবরেটরির বিজ্ঞানীরা সম্প্রতি ঠিক এ কথাটাই জানিয়েছেন৷ তাঁরা মূত্র দিয়ে মোবাইল ফোন চার্জ করতে সমর্থ হয়েছেন, যেটা দিয়ে স্বল্প পরিসরে খুদে বার্তা পাঠানো, ইন্টারনেটে ব্রাউজিং এবং সংক্ষিপ্ত কল করা গেছে৷

রয়েল সোসাইটি অফ ক্যামেস্ট্রির জার্নাল ‘ফিজিক্যাল কেমিস্ট্র ক্যামিক্যাল ফিজিক্স'-এ গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে৷

গবেষকরা আশা করছেন, ভবিষ্যতে একটি ফোনসেট পুরো চার্জ করা সহ দৈনন্দিন কাজে ব্যবহৃত অন্য যে কোনো ইলেকট্রনিক গেজেটে চার্জ দেয়ার মতো পদ্ধতিও বের করা সম্ভব হবে এই ভাবে৷

গবেষক দলের সদস্য লোনিস লেরোপুলাস বার্তা সংস্থা এএফপি-কে বলেছেন, ‘‘আমরা আসলে এমন কিছু দিয়ে চার্জ দেয়ার পদ্ধতি বের করতে চেয়েছিলাম, যেটা কোনোদিনই শেষ হবে না৷''

যেভাবে কাজ করে

বিজ্ঞানীরা কার্বন ফাইবার অ্যানোডের মধ্যে ব্যাকটেরিয়ার জন্ম দিয়ে সেগুলোকে সিরামিকের তৈরি একটা সিলিন্ডারে রেখে দেন৷ এরপর সেখানে মূত্র প্রবেশ করালে ব্যাকটেরিয়া মূত্রের মধ্যে থাকা রাসায়নিক উপাদানগুলো ভেঙে ফেলে৷ এ সময় যে বিদ্যুৎ উৎপন্ন হয় সেটা ক্যাপাসিটরে জমা করা হয়৷ আর তার মাধ্যমেই এটা পরবর্তীতে অনেকটা ব্যাটারির মতো কাজ করার শক্তি সঞ্চয় করে৷

জেডএইচ/ডিজি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন