1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ইউরোপ

মুসলমানের সংখ্যা নিয়ে ইউরোপীয়দের ভুল ধারণা

ব্রিটিশ গবেষণা সংস্থা ইপসোস মোরি-র এক জরিপে দেখা গেছে, জার্মানরা মনে করেন, জার্মানির মোট জনসংখ্যার প্রায় ২১ শতাংশ মুসলমান৷ তবে প্রকৃত সংখ্যাটি আসলে মাত্র ৫ শতাংশ৷

জার্মানির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বুধবার জানিয়েছে, ২০১৫ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত জার্মানিতে বসবাসকারী মুসলমানের সংখ্যা ছিল ৪৪ থেকে ৪৭ লাখের মধ্যে৷ এর আগে ২০১১ সালে এমন জরিপ করা হয়েছিল৷ তখনকার চেয়ে জার্মানিতে বাসকারী মুসলমানের সংখ্যা ১২ লাখের মতো বেড়েছে বলে জানিয়েছে মন্ত্রণালয়৷

২০১৫ সালে জার্মানিতে রেকর্ড সংখ্যক অভিবাসী প্রবেশ করে৷ সংখ্যাটি ২১ লক্ষের বেশি৷ আগের বছরের তুলনায় ৪৬ শতাংশ বেশি৷ এদের মধ্যে আশ্রয়প্রার্থীরা থাকলেও ইইউর অন্যান্য দেশের নাগরিকও আছেন৷

ভিডিও দেখুন 02:22

ফ্রান্স, ব্রিটেন, ইটালি, বেলজিয়ামের নাগরিকদের মধ্যেও তাঁদের দেশে বসবাসকারী মুসলমানদের সংখ্যা নিয়ে ভুল ধারণা রয়েছে৷ ফরাসীরা মনে করেন, তাদের দেশের জনসংখ্যার ৩১ শতাংশই মুসলমান এবং আগামী চার বছরের মধ্যে সংখ্যাটি বেড়ে হবে ৪০ শতাংশ৷ তবে পিউ রিসার্চ সেন্টারের ২০১০ সালের জরিপ বলছে, ফ্রান্সে মুসলিমদের সংখ্যা মোট জনসংখ্যার সাড়ে সাত শতাংশ৷ আর সাম্প্রতিক সময়ে পিউ এর করা আরেক জরিপ বলছে, আগামী চার বছরে ফ্রান্সে মুসলিমদের সংখ্যা হবে মোট জনসংখ্যার ৮.৩ শতাংশ৷

ব্রিটেনের অধিকাংশ মানুষ মনে করে সে দেশের জনসংখ্যার ১৫ শতাংশ মুসলিম, কিন্তু বাস্তবে মুসলমান আছে মাত্র ৪.৮ শতাংশ৷

ইটালি আর বেলজিয়ামের নাগরিকরা মনে করেন, সে দেশে প্রতি পাঁচ জনের একজন মুসলমান৷ তবে বাস্তবতা হচ্ছে, ইটালির জনসংখ্যার ৩.৭ শতাংশ আর বেলজিয়ামের ৭ শতাংশ মুসলিম৷

জেডএইচ/এসিবি (ডিপিএ, কেএনএ, এএফপি)

জার্মানিসহ ইউরোপের দেশগুলোতে মুসলমানের সংখ্যা নিয়ে এই বিভ্রান্তির কারণ কী বলে আপনি মনে করেন? নীচের ঘরে আপনার মতামত লিখুন৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়