1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

মুরিনিয়ো’র রেয়াল’এ আসায় এবার বার্সার আধিপত্য কমতে পারে

হচ্ছে স্পেনের লা লিগা’র কথা, যার খেতাব নিয়ে দুই পুরাতন বৈরীর প্রতিবারের লড়াই৷ দুটি’ই আবার অতি ধনী ক্লাব৷ গতবছর রেয়াল মাদ্রিদ মরশুম শেষ করে বার্সেলোনার তিন পয়েন্ট পিছনে৷ কিন্তু এবার?

default

রেয়াল মাদ্রিদের কোচ হোসে মুরিনিয়ো

হোসে মুরিনিয়ো গত সীজনে কি করছিলেন? ইন্টার মিলান'এর কোচ হয়ে ত্রিমুকুট জয় করছিলেন৷ তাঁকে আনতে রেয়ালের কম খরচা করতে হয়নি৷ সেই সঙ্গে নতুন প্লেয়ার কিনতে ৭৫ মিলিয়ন ইউরো ব্যয় করেছে রেয়াল৷ এই নতুন প্লেয়ারদের অবশ্যই গতবছরের দুই হাতি কেনা, অর্থাৎ ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডো এবং কাকা'কে আনার সঙ্গে তুলনাই করা চলে না৷ তবুও মনে রাখতে হবে, এবারের নতুন ছ'জনের মধ্যে থাকছে আর্জেন্টিনার এঞ্জেল দি মারিয়া, এবং জার্মানির সামি খেদিরা এবং মেসুৎ ওয়েজিল৷ বিশ্বকাপে এই তিনজনের পার্ফর্মেন্সের কথা মনে আছে তো? ওদিকে বের্নাবেউ থেকে বিদায় নিয়েছেন রাউল এবং গুটি'র মতো ভেটারান৷ এই হল মুরিনিয়োর রেয়াল৷

Real Madrid - Training

ট্রেনিং-এ মুরিনিয়োর সঙ্গে মেসুৎ ওয়েজিল

তবুও মুরিনিয়ো জানেন, বার্সা বার্সাই৷ বলেছেন: ‘‘বার্সা হল একটি সম্পূর্ণ প্রকল্প৷ ওদের প্লেয়াররা চোখ বুজে খেলতে পারে৷ রেয়াল মাদ্রিদের সে অবধি পৌঁছতে এখনও অনেক দেরী৷ রেয়ালকে একটি নতুন খেলার শৈলী এবং দর্শন গড়ে তুলতে হবে৷'' বার্সা যেন মুরিনিয়োর কথার প্রমাণ হিসেবেই গত শনিবার স্প্যানিশ সুপার কাপে সেভিলিয়া'কে ৪-০ গোলে ঠাণ্ডা করে দেয়৷ লিওনেল মেসি'র ফর্ম নিয়েও কোনো কথা উঠতে পারে না, তার হ্যাট্রিকের পরে৷

Fußball Champions League FC Barcelona - Arsenal

বার্সেলোনার লিওনেল মেসি

- তবে বার্সা আর্সেনাল থেকে চেস্ক ফাব্রেগাস'কে আনতে ব্যর্থ হয়েছে৷ অপরদিকে থিয়েরি অঁরি বিদায় নিলেও ভ্যালেন্সিয়া থেকে ডেভিড ভিয়াকে আনা গেছে৷ তবুও, বার্সার কোচ পেপ গুয়ার্দিয়োলা'কে এবার সাবধানে চলতে হবে৷ মেসি কিংবা সাবি চোট খেলেই বার্সাকে খোঁড়াতে হতে পারে৷

ওদিকে হোসে মুরিনিয়ো বলে বসেছেন যে, ফাবিও কাপেল্লো ম্যানেজার থাকাকালীন ইংল্যান্ডের কোনো বড় টুর্নামেন্ট জেতার আশা নেই৷ কাপেল্লো নাকি শুধু প্লেয়ারদের বকাবকি'ই করেন৷ প্লেয়াররা তাঁকে ভয় করে চলে৷ বলা বাহুল্য, মুরিনিয়ো নিজে চেলসি'র একাধিক প্লেয়ারের সঙ্গে আজও হার্দিক সম্পর্ক রেখে চলেন, যেমন জন টেরি অথবা ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ড৷

প্রতিবেদন: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

সংশ্লিষ্ট বিষয়