1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মুম্বই হামলায় লস্কর-এ-তৈয়বা নয়, জড়িত পাকিস্তান সরকার

লস্কর-এ-তৈয়বার সদস্য তাহায়ুর হুসেইন রানা অ্যামেরিকার একটি আদালতে জানিয়েছে, মুম্বই হামলার সঙ্গে পাকিস্তান সরকার এবং আইএসআই জড়িত ছিল৷ তারাই মদত জোগিয়েছে৷

Indian, army, troops, patrol, Taj, hotel, Mumbai, Terrorist, মুম্বই হামলা, লস্কর, তৈয়বা, পাকিস্তান, সরকার

ফাইল ছবি

২০০৮ সালের নভেম্বর মাসে মুম্বই হামলার সঙ্গে পাকিস্তান সরকার জড়িত কিনা তা নিয়ে এতদিন চলেছে তর্ক-বিতর্ক৷ লস্কর-এ-তৈয়বা দায়ী এরকম কথা শুরু থেকেই শোনা যাচ্ছিল৷ তবে সম্প্রতি লস্কর-এ-তৈয়বার সদস্য তাহায়ুর হুসেইন রানা মুখ খুলেছেন৷ তিনি অ্যামেরিকার একটি আদালতে খোলাখুলিভাবে জানান পাকিস্তান সরকার এবং আইএসআই এই হামলার সাথে জড়িত ছিল৷ সে নিজে হামলাকারীদের প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র সরবরাহ করেছে৷ পাকিস্তান বংশোদ্ভূত মার্কিন নাগরিক ডেভিড হিডলিও সেই সময় তাহায়ুর হুসেইন রানার সঙ্গে ছিল৷

এ মাসের ১৫ তারিখে শিকাগোর একটি আদালতে মামালার পরবর্তী শুনানি৷ মার্কিন আইনজীবীরা অভিযোগ এনেছেন তাহায়ুর হুসেইন রানা এবং লস্কর-এ-তৈয়বা এই হামলার জন্য দায়ী৷ তখন আদালতে বেশ কিছু কাগজপত্রসহ আরো কিছু প্রমাণাদি তাহায়ুর হুসেইন রানা উপস্থিত করে৷ সেই সঙ্গে বেশ জোর দিয়েই বলে, লস্কর-এ-তৈয়বা মুম্বই হামলার সঙ্গে কোন অবস্থাতেই জড়িত ছিল না৷ জড়িত ছিল খোদ পাকিস্তান সরকার এবং আইএসআই৷

এছাড়া ডেভিড হিডলি, যিনি পাকিস্তান বংশোদ্ভূত অ্যামেরিকান তিনি তার জবানবন্দিতে আইএসআই জড়িত এমন ইঙ্গিতই দিয়েছিলেন৷ ডেভিড হিডলির আসল নাম ছিল দাউদ সাইদ গিলানি৷ পাকিস্তান এবং ভারতে সহজে প্রবেশের জন্য তিনি খ্রিষ্টান নাম ধারণ করেন৷

এই খবর ভারত সরকারের জন্য প্রচণ্ড একটি ধাক্কা৷ কারণ, কয়েকদিন আগেই থিম্পুতে মিলিত হয়েছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী ড. মনমোহন সিং এবং পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইউসুফ রাজা গিলানি৷ তখন দুই পক্ষই বেশ জোর দিয়ে বলেছিলেন, মুম্বই হামলা কোন অবস্থাতেই দু'টি দেশের মধ্যে বাধা হয়ে দাঁড়াবে না৷ প্রয়োজনে দু'টি দেশ একে অপরকে সাহায্য এবং সহযোগিতা করবে৷ এর ফলশ্রুতিতেই ভারতে গতমাসে বিশ্বকাপ ক্রিকেট ফাইনালে ইউসুফ রাজা গিলানিকে মোহালিতে মাঠে বসে খেলা দেখার আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন ড. মনমোহন সিং৷

তবে এই তথ্য প্রকাশের পর দুটি দেশের মধ্যে সম্পর্ক এখন আবার শীতল হবে এ বিষয়ে কোন সন্দেহ নেই৷ আরো কিছুদিন চলবে একে-অপরকে দোষারোপ, এমনটিই মনে করছেন বিশ্লেষকরা৷

প্রতিবেদন: মারিনা জোয়ারদার

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই