1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মুবারক বিদায়, শেয়ারবাজার আর ঢাকায় পাকিস্তান দল

মমির দেশ মিশরের রাজনৈতিক পালাবদল সব সংবাদপত্রের শিরোনামে৷ শেয়ারবাজার থেকে ঢাকায় পৌঁছনো পাকিস্তান দলের নিরাপত্তা, এইসবই প্রধান খবর আজকের৷

default

উত্তাল মিশর

মুবারক আর মিশর স্বভাবতই প্রধান শিরোনাম

‘গণ অভ্যুত্থানে পালালেন মুবারক’ শিরোনাম কালের কন্ঠ করেছে৷ ‘মুবারকের বিদায়’ শিরোনামে ইত্তেফাকের বক্তব্য, আবারও প্রমাণ হল যে শাসকের শক্ত গদির চেয়ে জনতার তুচ্ছ ঝাঁকুনি অনেক বড়৷ ৩০ বছরের ভিত চুরমার হল ১৮ দিনের বিপ্লবে৷ কালের কন্ঠ লিখেছে, ‘বিক্ষোভে উন্মাতাল জনতার কাছে অবশেষে পরাজিত হলেন হোসনি মুবারক’৷ অবসান হলো সুদীর্ঘ তিন দশকের একনায়কতন্ত্রের৷ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোরের বক্তব্য ‘মিশরে অবসান হল মুবারক যুগের’৷ একই ভাষায় তারা বলছে, টানা ১৮ দিন প্রবল গণবিক্ষোভের পর শুক্রবার সন্ধ্যায় মিশরের ভাইস প্রেসিডেন্ট ওমর সুলাইমান রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে এক বিবৃতিতে মুবারকের পদত্যাগের কথা ঘোষণা করেন৷
ষড়যন্ত্র সবেতেই নেই: বললেন সুরঞ্জিত

শেয়ার বাজারের বিনিয়োগকারীরা কোনো দলের নয় উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেছেন, সবকিছুতে ষড়যন্ত্র খুঁজলে সরকার চালানো যাবে না৷ শুক্রবার রাজধানীর রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট ঢাকা জেলা শাখা আয়োজিত এক আলোচনা সভায় সুরঞ্জিত বলেন, শেয়ার বাজারের বিনিয়োগকারীরা কোনো দলের নয়৷ আপনারা বাজার সামলান, সব কিছুতে ষড়যন্ত্র খুঁজলে হবে না৷ সবকিছুতে ষড়যন্ত্র খুঁজলে রাষ্ট্র পরিচালনা করা যাবে না। বিনিয়োগকারীরা এ দেশের মানুষ, এদের রক্ষা করুন৷

ঢাকায় নামল পাকিস্তান ক্রিকেট দল, নেমেই কড়া নিরাপত্তা

কালের কন্ঠের প্রতিবেদন, দল নিয়ে কোনো না কোনো একটা ঝামেলা তাঁদের লেগেই থাকে৷ যেমন ২০১১ বিশ্বকাপের দল ঘোষণা হয়ে যাওয়ার পরও অধিনায়কত্ব ইস্যু ঝুলে ছিল বেশ কিছুদিন৷ শেষ পর্যন্ত পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড বা পিসিবি বেছে নেয় শহীদ আফ্রিদিকে৷ ওয়ানডে ক্রিকেটের দ্রুততম সেঞ্চুরিয়ানের নেতৃত্বে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে শুক্রবার রাত ৮টায় ঢাকায় পৌঁছেছে পাকিস্তান দল৷ তাদের আগমনে যে নিরাপত্তাব্যবস্থা তুঙ্গে পৌঁছাবে, তা অবশ্য 'প্রেডিক্টেবল'ই ছিল৷ কাল বিকেল থেকেই পুলিশ-ব়্যাবসহ সরকারের নিরাপত্তা সংস্থাগুলোর শত শত কর্মী গোটা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এলাকা ঘিরে রেখেছিলেন৷ যে ঘেরাওয়ের ভেতর ঢুকে পড়ার অনুমতি মেলেনি বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের আলোকচিত্রী ও ক্যামেরাম্যানদেরও৷ যে কারণে সেখান থেকে নিরাশ হয়ে ছবি তোলার জন্য শেষ ভরসা হিসেবে তাঁরা চলে আসেন ঢাকায় পাকিস্তান দলের ঠিকানা হোটেল শেরাটনে৷

সংকলন : সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়