1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মুবারকের নতুন উদ্যোগ, কিন্তু আন্দোলন থামছে না

বিক্ষোভ থামাতে আবারও নতুন উদ্যোগ নিয়ে সামনে এলেন মিশরের প্রেসিডেন্ট হোসনি মুবারক৷ কিন্তু তাহরির চত্বরে জনতার সমাগম কমছে না৷ কারণ তাদের দাবি একটাই৷ মুবারকের পদত্যাগ৷

default

মিশরের প্রেসিডেন্ট হোসনি মুবারক

নতুন উদ্যোগ

আজ তিনি একটি ডিক্রি জারি করেছেন৷ এর মাধ্যমে তিনি একটি কমিটির অনুমোদন দিলেন৷ এই কমিটি সংবিধান সংশোধনের বিষয়টি দেখবে৷ এসব তথ্য দিয়েছেন ভাইস-প্রেসিডেন্ট ওমর সুলাইমান৷ এছাড়া বিরোধী দলগুলোর সঙ্গে সরকারের আলোচনায় যেসব সিদ্ধান্ত হয়েছে সেগুলো বাস্তবায়নের জন্য একটি ফলো-আপ কমিটি গঠন করতে প্রধানমন্ত্রীকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে বলেও জানান সুলাইমান৷ তৃতীয় আরেকটি কমিটি গঠনেরও আভাষ দিয়েছেন ভাইস-প্রেসিডেন্ট সুলাইমান৷ গত বুধবার বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে মুবারক সমর্থকদের যে সংঘর্ষ হয়েছে সে ব্যাপারটি তদন্ত করে দেখবে ঐ কমিটি৷ এদিকে সুলাইমান তাঁর নিজের একটি বক্তব্য বলেছেন, শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তরের জন্য নির্দিষ্ট একটা পরিকল্পনা ও সময়সূচি গ্রহণ করা হয়েছে৷

NO FLASH Ägypten Proteste

আন্দোলন

কিন্তু এসব সিদ্ধান্ত আন্দোলনে কোনো প্রভাব ফেলছে বলে মনে হচ্ছে না৷ কারণ এখনো তাহরির চত্বরে হাজার হাজার মানুষ সমবেত হয়ে আছে৷ তারা বলছে, মুবারক না যাওয়া পর্যন্ত তাদের আন্দোলন চলবে৷

সংবিধান সংশোধন কতটা গুরুত্বপূর্ণ?

বেশ গুরুত্বপূর্ণ৷ কেননা এখন যদি মুবারক পদত্যাগ করেন, তাহলে সংবিধান অনুযায়ী ৬০ দিনের মধ্যে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন দিতে হবে৷ আর সেটা হলে পরবর্তী প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হবে মুবারকের দল থেকেই৷ কারণ বর্তমান সংবিধানে প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচনের জন্য কিছু ‘অসম্ভব শর্ত' দেয়া রয়েছে বলে জানিয়েছেন ‘ইজিপ্শিয়ান ইনিশিয়েটিভ ফর পারসোনাল রাইটস' নামক একটি সংস্থার প্রধান হোশাম বাহগাত৷ ফলে মুবারকের দলের লোক ছাড়া আর কারও পক্ষে নির্বাচন করা সম্ভব নাও হতে পারে৷ তাই তিনি মনে করেন, বর্তমান সংবিধানের অধীনে নির্বাচন করা হবে একটা ‘বিপর্যয়'৷

অর্থনীতিতে প্রভাব

বিখ্যাত রেটিং সংস্থা ‘ক্রেডিট অ্যাগ্রিকোল' বলছে, প্রতিদিন কমপক্ষে ৩১ কোটি ডলার ক্ষতি হচ্ছে৷ তাই এ বছর প্রবৃদ্ধির হার ৫.৩ থেকে কমিয়ে ৩.৭ শতাংশ করা হয়েছে৷ এর কারণ হলো, প্রায় ১০ দিন ধরে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ ছিল৷ শেয়ারবাজার এখনো বন্ধ রয়েছে৷ খুলবে আগামী সপ্তাহে৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

নির্বাচিত প্রতিবেদন