1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

মুঠোফোনের বাজার নিতে হাত মেলাল নোকিয়া আর মাইক্রোসফট

স্মার্টফোনের জগতে সাধারণত সব সংস্থাই ‘একলা চলো রে’ নীতিতে বিশ্বাস করে৷ এবার নোকিয়া ও মাইক্রোসফট হাত মেলানোয় সেই ঐতিহ্য ভেঙে গেলো৷

default

নোকিয়ার ফোনে এবার মাইক্রোসফটের সফটওয়্যার বসবে

গোটা বিশ্বে এখন সাধারণ কম্পিউটারের চেয়ে ‘স্মার্টফোন'ই বেশি বিক্রি হচ্ছে৷ নামে ফোন, ভেতরে কী না নেই! উন্নত ছবি ও ভিডিও ক্যামেরা, এমপিথ্রি প্লেয়ার, অফিস থেকে শুরু করে দিক-নির্ণয় জিপিএস যন্ত্র – সবই ঠাসা রয়েছে মুঠোফোনের মধ্যে৷ অতএব ফোন যেহেতু কম্পিউটার, প্রয়োজন অপারেটিং সিস্টেমেরও৷ বাজারে এখন অ্যাপল'এর আই-ফোন ও গুগলের অ্যান্ড্রয়ডের আধিপত্য৷ কম্পিউটারের জগতে প্রায় একচেটিয়া আধিপত্য থাকলেও মোবাইলের জগতে মাইক্রোসফট'এর দাপট কম – এখনো কম৷ যদিও ‘উইন্ডোস ফোন ৭' অপারেটিং সিস্টেমের মাধ্যমে সেই দুর্বলতা কাটিয়ে তুলতে চাইছে এই সংস্থা৷

কিন্তু সমস্যা হলো, অ্যাপেল সব ক্ষেত্রেই ‘একলা চলো রে' নীতি মেনে চলে৷ তাই সবকিছু তাদের নিজেদের৷ অন্যদিকে মাইক্রোসফট অপারেটিং সিস্টেম বা সফটওয়্যার তৈরি করে অন্যদের হার্ডওয়্যারে তা চালান করে দেয়৷ মোবাইল ফোনের জগতে ফিনল্যান্ডের নোকিয়া এককালে অনেক রাজত্ব করেছে৷ তাদের ‘সিম্বায়ন' অপারেটিং সিস্টেম এককালে কার্যত স্মার্টফোনের জন্ম দিয়েছিল বলা চলে৷ কিন্তু এখন তাদের পড়তি অবস্থা৷ ঘুরে দাঁড়াতে কোম্পানির শীর্ষ পর্যায়ে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনা হয়েছে৷ সেইসঙ্গে কৌশলগত সহযোগিতার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নতুন নেতৃত্ব৷ আর এখানেই মাইক্রোসফটের মঞ্চে প্রবেশ৷ নোকিয়া এবার থেকে শুধু ফোন তৈরি করবে, তাতে সফটওয়্যার বসাবে মাইক্রোসফট৷

প্রশ্ন হলো, বিশ্বের সবচেয়ে বড় সফটওয়্যার কোম্পানির সঙ্গে সবচেয়ে বড় মোবাইল নির্মাতার এই সহযোগিতা কি বাকিদের কোণঠাসা করে দেবে? দুই সংস্থাই তাদের শক্তি প্রয়োগ করে বাজারের সিংহভাগ দখল করতে চাইবে ঠিকই, কিন্তু এখনই আইফোন বা অ্যান্ড্রয়েডের জন্য কোনো বড় হুমকি দেখছেন না বিশেষজ্ঞরা৷

প্রতিবেদন: সঞ্জীব বর্মন

সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সংশ্লিষ্ট বিষয়