1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

মুঠোফোন বিপ্লব ঘটাতে যাচ্ছে ফিলিপিন্সের কৃষিতে

মোবাইল ফোন-এর কল্যাণে সম্ভবত খুব শিগগিরিই ফিলিপিন্সের কৃষিতে এক বৈপ্লবিক পরিবর্তন ঘটতে চলেছে৷

default

সম্প্রতি ফিলিপিন্সের রাইস রিসার্চ ইন্সটিট্যুট বা ইরি-এর মুখপাত্র রোলান্ড বারেস জানিয়েছেন, খুব তাড়াতাড়িই আধুনিক কৃষি-তথ্য এখানকার ক্ষুদ্র চাষীদের হাতের নাগালে চলে আসবে৷ বলাই বাহুল্য, মাধ্যমটি হচ্ছে মুঠোফোন বা মোবাইল ফোন৷

ইদানিং মোবাইল ফোন বা মুঠোফোন বাংলাদেশ এবং ভারতে তার রাজত্ব কায়েম করলেও টেক্সট মেসেজিং এর ক্ষেত্রে ফিলিপিন্স কিন্তু পৃথিবীর সব দেশকেই পেছনে ফেলে দিয়েছে৷ জানা গেছে, মুঠোফোনে মেসেজ পাঠানোর ক্ষেত্রে এই দেশটি এখন পৃথিবীর পয়লা নম্বরে রয়েছে!

ফিলিপিন্সে প্রতিদিন মুঠোফোনে ৩০ কোটি টেক্সট মেসেজ চালাচালি হয়! আর এই বার্তা চালাচালির বিষয়টি মাথায় রেখেই সেদেশের কর্তৃপক্ষ তাদের কৃষিতে বিপ্লব ঘটানোর লক্ষ্যে মুঠোফোনের টেক্সট মেসেজ ব্যবহার করার এক চমৎকার পরিকল্পনা এঁটেছেন৷

চাষীদের যাবতীয় প্রয়োজনীয় তথ্য ঝটপট এই মুঠোফোনের টেক্সট মেসেজের মাধ্যমেই তাদের কাছে পৌঁছে যাবে৷ মোবাইল ফোনের মাধ্যমে চাষীদের জন্য পাঠানো এই টেক্সট মেসেজিং ফিলিপিন্সের কৃষির ক্ষেত্রে খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলেই এই মুখপাত্র আশা প্রকাশ করেছেন৷ বলা চলে, সেকেলে পদ্ধতিতে কৃষিকাজ করা প্রায় যোগাযোগবিহীন ফিলিপিন্সের এইসব ক্ষুদ্র ধানচাষীদের অনড় জীবনে মুঠোফোনের ভূমিকাটি যুগান্তকারীই হতে যাচ্ছে৷

ইরি ইতোমধ্যেই নতুন নতুন জাতের ধান সৃষ্টি করেছে৷ এসব নতুন জাতের ধান সেদেশের দারিদ্র্য কমাতে সহায়ক ভূমিকা পালনের পাশাপাশি উৎপাদনের ক্ষেত্রেও স্থিতিশীলতা বজায় রাখবে৷ এছাড়াও এর পরিবেশ-বান্ধব চরিত্র এবং জলবায়ু পরিবর্তনের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নেবার ক্ষমতার কারণে আশা করা হচ্ছে, বহুদিন পর এদেশের ক্ষুদ্র চাষীদের জীবনে সুবাতাসই বইবে৷

মুঠোফোনে কৃষি সংক্রান্ত এসব প্রয়োজনীয় বার্তা পাবার জন্য সেদেশের চাষীদের স্রেফ টোল ফ্রি একটি নম্বর চাপলেই চলবে৷ মুঠোফোনে ওপাশ থেকে একটি স্বয়ংক্রিয় কণ্ঠে উচ্চারিত বিবিধ সমাধানের থেকে নম্বর চেপে চেপেই চাষীরা বেছে নিতে পারবেন তাদের লাগসই সমাধানটি৷ যদিও ফিলিপিন্সে কৃষি সহায়তা দেবার জন্য কর্মকর্তারা রয়েছেন, রয়েছেন মাঠকর্মীরাও৷ কিন্তু সেদেশের প্রত্যন্তের চাষীদের জন্য এই মুঠোফোন প্রকৌশল অত্যন্ত সহায়ক হবে বলেই ইরি কতৃপক্ষের বরাতে জানা গেছে৷

উল্লেখ্য, এই টেক্সট মেসেজিং এর দাপটেই ২০০১ সালে ফিলিপিন্সের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট জোসেফ এস্ত্রাদার গদিটি নড়বড়ে হয়ে পড়েছিল৷ এস্ত্রাদার দুর্নীতির প্রতিবাদে ক্ষুব্ধ জনগণকে মাঠে জড়ো করতে সহায়তা করেছিল এই মুঠোফোনের টেক্সট মেসেজিংই, আর এবার এই প্রযুক্তিটি ব্যবহৃত হতে যাচ্ছে ফিলিপিন্সের কৃষি-কল্যাণে৷

প্রতিবেদন: হুমায়ূন রেজা

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়