1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘মুক্ত' টিকরিটে গণকবরের খোঁজ, গুপ্তস্থান থেকে লড়ছে আইএস

টিকরিট দখলের পর হত্যাযজ্ঞের ভিডিও প্রচার করেছিল আইএস৷ শহরটি পুনরুদ্ধারের পর সেখানে গণকবরও খুঁজে পেয়েছে ইরাকি বাহিনী৷ তবে এখনো গুপ্তস্থান থেকে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে আইএস যোদ্ধারা৷

গত ৩১ মার্চ সাদ্দাম হোসেনের শহর হিসেবে পরিচিত টিকরিটকে মুক্ত এলাকা ঘোষণা করেছিলেন ইরাকের প্রধানমন্ত্রী হায়দার আল-আবাদি৷ তবে প্রায় ৯ মাস পর শহরটি থেকে সুন্নিদের জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস)-কে বিতাড়িত করার আনন্দটা দীর্ঘস্থায়ী হয়নি৷ প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পরপরই যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক কর্মকর্তারা জানিয়েছিলেন, টিকরিটে বা টিকরিটের আশপাশেই কিছু আইএস যোদ্ধা লুকিয়ে আছে, সুতরাং শহরটিকে এখনই পুরো মুক্ত এলাকা ভাবলে ভুল হবে৷ ইরাকের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ আল-ঘাবানও তা স্বীকার করেছিলেন৷

মঙ্গলবার হামরির পাহাড় থেকে নেমে আসে কয়েকজন আইএস যোদ্ধা৷ ইরাকি বেসরকারি বাহিনীর তিনটি ঘাঁটিতে হামলা চালায় তারা৷ হামলায় ৭ জন নিহত এবং ২১ জন আহত হয়েছে বলে সেনাসূত্র জানিয়েছে৷

গোয়েন্দাসূত্রে খবর পেয়ে টিকরিটের উত্তরের কোয়াদিসিয়া এলাকায় আইএস-এর কয়েকটি গোপন আস্তানায় হামলা চালায় ইরাকি সেনা ও বেসরকারি বাহিনী৷

Irak Tikrit Kämpfe Eroberung Irakische Armee

টিকরিটে ইরাকের আধা সামরিক বাহিনীর সদস্যদের বিজয়োল্লাস

গোয়েন্দারা জানিয়েছিলেন, সেখানে ৮ থেকে ১৫ জনের মতো আইএস যোদ্ধা লুকিয়ে আছে৷ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ইরাকি বাহিনীর হামলায় ‘বেশ কয়েকজন' আইএস যোদ্ধা মারা গেলেও এখনো সেখানে যুদ্ধ চলছে৷

অন্যদিকে টিকরিটের অন্য কিছু এলাকায় গণকবর থেকে লাশ উদ্ধার শুরু করেছে ইরাকি বাহিনী৷ গত বছরের জুনে টিকরিট দখল করার পর পলায়নে উদ্যত প্রায় সতের শ' ইরাকি সেনা সদস্যকে বন্দি করেছিল আইএস৷ তারপর বন্দি সেনাদের হত্যার বিভৎস কিছু ভিডিও প্রচার করে তারা৷ একটি ভিডিওতে সেনা সদস্যদের হত্যা করে লাশ টাইগ্রিস নদীতে ছুঁড়ে ফেলার দৃশ্যও ছিল৷ তাই ওই সতেরোশ' জনকেই হত্যা করা হয়েছে বলে আশঙ্কা করা হলেও সবার লাশ খুঁজে পাওয়ার সম্ভাবনা নেই৷ তবু যা পাওয়া যাবে তাতেও আইএস যোদ্ধাদের নির্বিচারে বন্দি হত্যার ব্যাপকতা বোঝা যাবে বলেই ধারণা করা হচ্ছে৷ ইরাকের মানবাধিকার কর্মী কামিল আমিন জানিয়েছেন, এ পর্যন্ত ১২টি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে৷ তবে তিনি মনে করেন, আরো অনেক লাশ পাওয়া যাবে৷

এসিবি/জেডএইচ (এপি, এএফপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়