1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

মিষ্টি কুমড়া চাষ

ডয়চে ভেলের বাংলা ওয়েবসাইট ঠিকই দেখি, কিন্তু খুব কম মতামত পাঠানো হয়৷ ‘বাংলাদেশের কৃষকদের ঘুরে দাঁড়ানোর গল্প' এই শিরোনামের লেখাটি পড়ে খুব ভালো লাগলো৷ ঠিক এভাবেই লিখেছেন লিখেছেন বন্ধু বিধান চন্দ্র টিকাদার৷

তিনি আরো লিখেছেন, গাইবান্ধার চর এলাকার কৃষকরা কী ভাবে বালুর চরে গর্ত করে তাতে গোবর ও অন্যান্য সার মিশিয়ে কী ভাবে মিষ্টি কুমড়া চাষ করছে, তা জানলাম প্রতিবেদনটি থেকে৷ আমার অনুরোধ, অন্বেষণ কুইজের প্রশ্ন ডয়চে ভেলের ওয়েবসাইটে দেবেন এবং ই-মেলের মাধ্যমে যাতে উত্তর পাঠানো যায়, সে অনুমতি দেবেন৷ কারণ ফেসবুক আমাদের অনেকের দেখার সুযোগ নেই৷ তাই ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও উত্তর পাঠাতে পারিনা৷ ধন্যবাদান্তে বিধান চন্দ্র টিকাদার, জলিরপাড়, গোপালগঞ্জ৷

- মতামত জানানোর জন্য ধন্যবাদ৷ আপনার অনুরোধের উত্তরে শুধু বলতে হচ্ছে যে প্রতিযোগিতাটি কিন্তু ফেসবুক প্রতিযোগিতা৷ তাই নিয়ম অনুযায়ী এর উত্তরও ফেসবুকেই দিতে হবে৷ আপনার ওয়েবসাইট দেখার সুযোগ রয়েছে, ই-মেল করে অভ্যস্ত তাছাড়া আপনার নিজের ল্যাপটপ রয়েছে বলেও মনে হয়৷ তাই ফেসবুকে কুইজের উত্তর দেওয়ার সমস্যাটা ঠিক বুঝতে পারছিনা ভাই !

পরের ই-মেলে নাটোর থেকে রাজীব মণ্ডল লিখেছেন, বেশ কয়েক দিন ধরে দেখছি বাংলাদেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচিত বিষয় গুম! প্রতিবেদনভিত্তিক তথ্য স্থান পাচ্ছে ডয়চে ভেলের বাংলা ওয়েবসাইটে, যা আমাদের নজর কাড়ছে৷

Kürbissuppe in einer Kupferschale

‘‘ ‘বাংলাদেশের কৃষকদের ঘুরে দাঁড়ানোর গল্প' পড়ে খুব ভালো লাগলো’’

ধন্যবাদ জানাই ডয়চে ভেলেকে গুম নিয়ে নিরপেক্ষ ও বিস্তারিত তথ্য প্রতিবেদন প্রচার করার জন্য৷ গুম প্রতিরোধে সরকারের গৃহিত পদক্ষেপ গুলো কার্যকর ভূমিকা রাখুক এই প্রত্যাশাই করছি৷

‘বার্ধ্যক্যের বারাণসী' – যেখানে শুধুই মৃত্যুর দিন গোনা – অতীতকে পেছনে ফেলে জীবনের শেষ প্রান্তে এসে কাঙ্খিত পরম মুক্তির দিন গোনা৷ ৭টি ছবির মধ্য দিয়ে ফুটিয়ে তোলা জীবনের প্রতিচ্ছবি- অসাধারণ লাগলো৷ বারাণসীর মতো একই চিত্র উত্তর ভারতের আর এক শহর ‘বৃন্দাবনে', যেখানে গৃহত্যাগী বিধবারা মন্দিরে, আশ্রমে তাঁদের জীবনের বাকী দিনগুলি অতি দুঃখ কষ্টের মধ্য দিয়ে অতিবাহিত করে চলেছেন৷ ই-মেলে এই কথাগুলো লিখে পাঠিয়েছেন নতুন দিল্লী থেকে সুভাষ চক্রবর্তী৷

‘জাতীয় পোশাক শ্রমিক দিবস' গত বছর ২৪শে এপ্রিল – এ সাভার রানা প্লাজা ধসে পড়ে শত শত পোশাক শ্রমিক নিহত, আহত ও পঙ্গু হওয়ায় সারা বাংলাদেশে ‘জাতীয় পোশাক শ্রমিক দিবস' হিসেবে পালন করতে হবে৷ অতএব আরও উল্লেখ্য থাকে যে, সকল পোশাক তৈরি কারখানা, স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, বিশ্ববিদ্যালয় সহ সরকারী, বে-সরকারি, আধা-সরকারি, ব্যাংক, বিমা সহ সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পূর্ণ দিবস বন্ধ রাখতে হবে এবং সরকারি ভাবে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করতে হবে বলে মনে করেন ঢাকার বন্ধু আশেক মাহমুদ৷

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

নির্বাচিত প্রতিবেদন