মিশেলকে বরণে সেজেছে মার্বেইয়া | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 04.08.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

মিশেলকে বরণে সেজেছে মার্বেইয়া

মার্বেইয়া, ভূমধ্যসাগর তীরে স্পেনের ছোট্ট একটি শহর৷ তবে সেটাই এখন বড় খবর হতে যাচ্ছে৷ কারণ, সেখানে অবকাশ যাপনে যাচ্ছেন মার্কিন ফার্স্টলেডি মিশেল ওবামা৷ সঙ্গে মেয়ে সাশাকেও নিয়ে যাচ্ছেন তিনি৷

default

ভূমধ্যসাগর তীরের মার্বেইয়া শহর

স্বাগতম ওবামা পরিবার - এই বড় বিলবোর্ড ঝুলছে এখন মার্বেইয়ায়৷ মিশেল ও সাশাকে অভ্যর্থনা জানানোর জন্য তৈরি এই নগরী৷ বুধবার সেখানে যাচ্ছেন তাঁরা৷ মার্বেইয়া এতদিন মুগ্ধ করে এসেছিলো আরব শেখ আর অপরাধ জগতের পুরোধাদের৷ সেই ইমেজ থেকে বের হতে চাইছে নগরবাসী৷ আর তাদের সে সুযোগ করে দিয়েছেন মিশেল৷

হোয়াইট হাউস গত সপ্তাহেই ঘোষণা দেয়, অবকাশ যাপনের জন্য স্প্যানিশ শহরটিকে বেছে নিয়েছেন মিশেল৷ প্রথমে শোনা গিয়েছিলো, নিজের ৪৯তম জন্মদিনে প্রেসিডেন্ট ওবামাও যোগ দেবেন স্ত্রী-কন্যার সঙ্গে, মার্বেইয়ায়৷ তবে পরে জানানো হয়, সে রকম কোনো পরিকল্পনা নেই৷ শুধু মিশেল আর সাশা, অবশ্য তাতেও কম খুশি নয় মার্বেইয়াবাসী৷ তাঁরা মনে করছেন, মার্বেইয়াকে আকর্ষনীয় পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত করতে এর চেয়ে বড় বিজ্ঞাপন আর হয় না৷ মার্বেইয়ার পাশের নগরী মালাগার মেয়র ফ্রান্সিসকো দে লা তোরে বলছেন, ‘‘ওবামা পরিবারের আসাটা আমাদের জন্য একটা বড় খবর৷'' স্পেনের জনকল্যাণমন্ত্রী হোসে ব্লাংকো বললেন, ‘‘এর জন্য আমরা গর্বিত৷ বিশ্বে স্পেনের যে একটা ভূমিকা আছে, এটা তারই স্বীকৃতি৷''

মিশেল ও সাশা মার্বেইয়ায় কাটাবেন চারদিন৷ কয়েকজন পারিবারিক বন্ধুও থাকছেন তাঁদের সঙ্গে৷ তাঁরা উঠবেন সেখানকার একমাত্র পাঁচ তারকা হোটেল ভিলা পদিয়ের্নায়৷ হোটেলটিতে সবচেয়ে কম ভাড়ায় রাত কাটাতে হলে গুনতে হয় ২৫০ ইউরো৷ তবে মিশেলরা যে কক্ষে আর যে সুবিধা নিয়ে থাকবেন, তা পেতে হলে প্রতি রাতের জন্য খরচা হবে ৫ হাজার ইউরো৷ ফার্স্টলেডি তো দেশেরই প্রতিনিধি, তাই হোটেলটিতে ঢোকার পথেই এখন উড়ছে মার্কিন পতাকা৷ হোটেল ঘষেমেজে পরিষ্কার করা হয়েছে৷ শুধু তাই নয়, আশপাশের সড়কগুলো আর সৈকতও ঝকঝক-তকতক করছে৷ হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, চারদিনের সফরে স্পেনের রাজা হুয়ান কার্লোস আর রানি সোফিয়ার সঙ্গেও দেখা করবেন মিশেল৷

তবে ওবামা পরিবার কীভাবে থাকবেন, সে বিষয়ে মুখ খুলতে রাজি হচ্ছেন না ভিলা পর্দিয়রানের মালিক রিকার্দো আরাঁজ৷ তিনি শুধু বললেন, ‘‘এটা তাঁদের ব্যক্তিগত সফর৷ তাঁরা নিজেদের মতো করেই থাকতে চাইছেন৷ তাঁদের এই ইচ্ছাকে আমরা সম্মান করছি৷ অবকাশ যাপনের জন্য তাঁরা যেন ভবিষ্যতেও এই স্থানটি বেছে নেন, সে জন্য আমরা সচেষ্ট৷''

তবে মিশেল না চাইলে কী হবে, ওবামা পরিবারের সদস্যরা স্পেনে যাচ্ছেন, তা তো খবর হবেই৷ স্প্যানিশ ফার্ম ওক পাওয়ার কমিউনিকেশন হিসাব করে বের করেছে, মিশেলের মার্বেইয়ায় যাওয়ার খবর নিয়ে বিশ্বের গণমাধ্যমে অন্তত ৫০ হাজারটি প্রতিবেদন হবে৷ আর তাতে মুফতে বিজ্ঞাপন হয়ে যাবে শহরটির৷ এমনিতে এত বিজ্ঞাপন দিতে চাইলে একশ কোটি ডলার খরচ করতে হতো৷

সাগর তীরের মার্বেইয়া নগরীতে বাস প্রায় এক লাখ মানুষের৷ গলফ খেলতে যারা ভালোবাসেন, তাদের পছন্দের শহর এটি৷ বেশ কিছু গলফ কোর্টও আছে সেখানে৷ তবে সেখানকার অনেক সম্পত্তি এখন আরব ধনীদের কব্জায়৷

প্রতিবেদন: মনিরুল ইসলাম

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক