1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

মিশায়েল শুমাখার শারীরিকভাবে ফিট, বললেন তাঁর ডাক্তার

ফর্মুলা ওয়ান মোটর রেসিং-এ সাতবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন, জার্মানদের প্রিয় ‘শুমি’ ফিরছেন গ্রঁ প্রী সার্কিটে৷ কিন্তু তাঁর ঘাড়ের চোট পুরোপুরি সেরে উঠেছে তো?

default

সোমবার ভ্যালেন্সিয়ায় শুমি

এটাও বলা দরকার, মার্সিডিজের কিংবদন্তীপ্রতিম ‘সিলভার এ্যারো' গাড়িতে ড্রাইভার হিসেবে শুমি'র দলীয় সতীর্থ হল নিকো রসবের্গ, সে'ও জার্মান, কাজেই একটি ‘অল জার্মান' দল৷ যে দলের আবার ম্যাকলারেনের ‘অল ইংল্যান্ড' দলের মোহড়া নেবার কথা৷ এ'সব মিলিয়ে জার্মানিতে শুমি উত্তেজনা এখন চরমে৷ যেমন সোমবার স্পেনের ভ্যালেন্সিয়ায় রিকার্ডো টোর্মি সার্কিটে আনকোরা নতুন সিলভার এ্যারোয় প্রথমবারের মতো ৪০ টি ল্যাপ বা রাউন্ড দিলেন শুমাখার৷ অন্যান্য দলেরাও সেখানে ঐ ট্রেনিং সেসনে৷ ল্যাপের হিসেবে শুমাখার করলেন দিনের তৃতীয় সেরা সময় - ফর্মুলা ওয়ান থেকে তিন বছর আগে অবসর নেওয়ার পর৷ শুমির বয়স আজ ৪১, দলীয় সতীর্থ নিকো রসবের্গের তার অর্ধেক৷ কিন্তু রসবের্গকে আধ সেকেন্ডের বেশী পিছনে ফেলে দিয়েছেন শুমাখার৷

শুমি'র ঘাড় কি বলে?

বস্তুত সোমবারের আসল প্রশ্ন ছিল: শুমি'র ঘাড় কি বলে? ২০০৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে একটি মোটরসাইকেল এ্যাক্সিডেন্ট করে ঘাড়ে চোট পান শুমাখার৷ সেই কারণেই গতবছর তাঁর ফেরারি'র হয়ে সেই বহুঘোষিত এবং বহুপ্রতীক্ষিত ‘কামব্যাক'-টি সম্ভব হয়নি৷ এবং যে কারণে তাঁর ডাক্তার ডক্টর ইয়োহান্নেস পাইল সোমবার সার্কিটেই ছিলেন এবং মঙ্গলবার সার্টিফিকেট দিয়েছেন যে, শুমাখার এখন স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরেছেন এবং স্বাভাবিক ভাবেই ট্রেনিং করতে পারবেন৷ - শুমি অবশ্য মঙ্গলবার ককপিটে বসেননি, যদিও রসবের্গ ঠিকই তার রাউন্ডগুলো দিয়েছে৷ তবে শেষের দিন বুধবারে শুমি'র আবার সিলভার এ্যারো'য় বসার কথা৷ আর শুমি ফ্যানরা ভাবছেন, কি করে ১৪ই মার্চ বাহরেন গ্রঁ প্রী'র টিকিট পাওয়া যায়৷ সেদিন আবার নতুন মরশুমের শুরু - শুমি'কে নিয়ে৷

প্রতিবেদক: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সম্পাদনা: আরাফাতুল ইসলাম

সংশ্লিষ্ট বিষয়