1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

মিলেনিয়াম উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ‘মিলেনিয়াম ভিলেজ’

মিলেনিয়াম উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের জন্য পৃথিবীর ১৪টি দেশে কাজ করে চলছে জাতিসংঘ৷ এসব লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে এগিয়ে এসেছে স্থানীয় এনজিওগুলো৷ ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্যে কাজ করছে ‘সেন্টার ফর সলিডারিটি’ ও ‘প্রভা’ নামক দুটি সংস্থা৷

default

ঝাড়খণ্ডের স্কুলের পড়ুয়া

ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্যের দেওঘর জেলার সারওয়ান ব্লকে চলছে জাতিসংঘের মিলেনিয়াম উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের প্রচেষ্টা৷ দুটি এনজিও সেখানে কাজ করছে মানুষদের বিভিন্নভাবে সাহায্য করতে৷ এই দুটি এনজিওর মূল লক্ষ্য হল সারওয়ান ব্লকটিকে এমন একটি মডেল হিসেবে তুলে ধরা, যে গ্রামটি হবে সবক্ষেত্রে সফল৷ ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্যের জারকা এবং থারি লাপরা পঞ্চায়েত এলাকায় এ ধরণের কাজ চলছে৷ সারওয়ান ব্লকের ২৬টি গ্রাম ইতিমধ্যেই ‘মিলেনিয়াম ভিলেজ' হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে৷ প্রকল্পের নাম মিলেনিয়াম ভিলেজ প্রজেক্ট৷ এছাড়া মিলেনিয়াম উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের কাজ চলছে পশ্চিম বঙ্গের পুরুলিয়ায়৷

বলা প্রয়োজন, এই দুটি অঞ্চল ভারতের দরিদ্রতম অঞ্চলগুলির মধ্যে অন্যতম৷ গত পাঁচ বছর ধরে চলছে মিলেনিয়াম উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার কাজ৷ চেষ্টা করা হচ্ছে সেখানকার প্রায় সাত হাজার পরিবারকে সাহায্য করতে, শিক্ষা এবং আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী করতে৷ ববিতা সিনহা কাজ করছেন ‘প্রভা' এবং ‘সেন্টার ফর সলিডারিটি' সংস্থার সঙ্গে৷ এই দুটি সংস্থাকে আর্থিকভাবে সাহায্য করছে জার্মানির ‘জার্মান এ্যাগ্রো এ্যাকশান' সংস্থা এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন৷ ববিতা সিনহা জানালেন তাঁরা আসলে কী অর্জন করতে চাইছেন৷ ববিতা সিনহা বললেন, ‘‘প্রতিটি এনজিও চায় যে – আমরা মডেল তৈরি করবো৷ এই ভিশন প্রতিটি সংস্থার থাকে৷ তবে আসল কথা হল এনজিও পৃথিবী পাল্টাতে পারে না৷ এনজিও-র মূল লক্ষ্য হল ছোট ছোট জায়গায় ছোট ছোট প্রকল্পে কাজ করা৷ এর ফলে খুব সাধারণ মানুষের জীবনে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন আনা সম্ভব৷ আমাদের সংস্থা বিশ্বকে দেখাতে চায় যে, হ্যাঁ, আমার পারি, আমাদের ভেতরে যদি ইচ্ছাশক্তি থাকে তাহলে আমরা সত্যিই ভাল কিছু করতে পারি৷ মিলেনিয়াম ডেভেলপমেন্ট গোলকে গ্রাউন্ড লেভেলে – এক্কেবারে সাধারণ মানুষের পর্যায়ে নামিয়ে আনা সম্ভব৷ সফল করা সম্ভব৷''

প্রতিবেদন: মারিনা জোয়ারদার

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

নির্বাচিত প্রতিবেদন