1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মিনস্ক যুদ্ধবরতি চুক্তির পরও আমাদের সংশয় থাকা উচিত

মিনস্কে দীর্ঘ আলোচনার পর রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিন যুদ্ধবিরতির ঘোষণা দিয়েছেন৷ তবে ডয়চে ভেলের ইঙ্গো মানটয়ফেল মনে করেন, চুক্তি নিয়ে সংশয় প্রকাশের সত্যিই কারণ রয়েছে৷

বেলারুসের রাজধানী মিনস্কে ১৫ ঘণ্টার লম্বা বৈঠকে যেসব বিষয়ে আলোচনা হয়েছে তার অধিকাংশই এখনো অজানা রয়ে গেছে৷ সেই বৈঠকে জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলসহ উপস্থিত ছিলেন ইউক্রেন, রাশিয়া এবং ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টরা৷

বৈঠকের পর রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিন সবার আগে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন৷ তিনি জানান, ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে যুদ্ধবিরতির বিষয়ে সবাই সম্মত হয়েছে এবং ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে তা কার্যকর হবে৷ ম্যার্কেল এবং ফরাসি প্রেসিডেন্ট ফ্রসোঁয়া ওলঁদ পরবর্তীতে খবরটি নিশ্চিত করেন৷

প্রথম মিনস্ক সম্মেলনের থেকে বেশি কিছু?

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে যুদ্ধ এবং প্রাণহানি বন্ধে সম্মত হওয়া আলোচনার ইতিবাচক ফলাফল৷ তবে এটা নিয়ে সংশয় প্রকাশের কারণও আছে৷ দুই পক্ষের মধ্যে যে চুক্তি হয়েছে, তার বিস্তারিত এখনো জানা যায়নি৷ এর আগে গত সেপ্টেম্বরেও মিনস্কে আলোচনা হয়েছিল৷ তখনও যুদ্ধবিরতি এবং ভারি সমরাস্ত্র প্রত্যাহারের বিষয়ে সম্মত হয়েছিল উভয়পক্ষ৷ কিন্তু সেই যুদ্ধবিরতি আসলে কখনোই বাস্তবায়ন হয়নি৷ ফলে মিনস্কের দ্বিতীয় বৈঠকে প্রথম বৈঠকের চেয়ে বেশি কিছু অর্জিত হয়েছে কিনা বলা যাচ্ছে না৷

Ingo Mannteufel, Leiter der Europa-Redaktion der DW

ইঙ্গো মানটয়ফেল, ডয়চে ভেলে

বরং দুই বৈঠকের মধ্যকার সময়ে রুশপন্থি বিচ্ছিন্নতাবাদীরা বিভিন্ন ফ্রন্টে আরো বেশি জায়গার দখল নিশ্চিত করেছে৷ ডেবাল্টসেভের একটি রেল হাব ঘিরে এই মুহূর্তে যুদ্ধ চলছে৷ সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, বিচ্ছিন্নতাবাদীরা ‘হাব'টি ঘিরে রাখলেও ইউক্রেনের সেনারা বোধগম্য কারণেই যুদ্ধ ছাড়া সেটির নিয়ন্ত্রণ ছাড়তে রাজি হচ্ছে না৷

সর্বশেষ মিনস্ক চুক্তি সম্পর্কে যেহেতু আমরা কম জানি এবং যুদ্ধক্ষেত্রের বর্তমান পরিস্থিতি যদি বিবেচনায় আনি, তাহলে যুদ্ধবিরতির ভবিষ্যত নিয়ে সংশয় প্রকাশের যথেষ্ট কারণ থেকে যায়৷

যুদ্ধবিরতি চুক্তি শুধুমাত্র তখনই সফল করা সম্ভব যখন দুই পক্ষের মধ্যকার অসামরিকীকৃত এলাকা স্বাধীন কোনো বাহিনীর পর্যবেক্ষণে থাকবে৷ যদি তা না হয়, তাহলে যুদ্ধ অব্যাহত থাকার আশঙ্কা থেকেই যায়

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়